বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০২:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম
শরণখোলায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা  শরণখোলায় কুপ্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় লম্পটের হামলায় জখম কলেজ ছাত্রী শরণখোলার ইউএনও’র অফিসসহকারির বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও সেচ্ছাচারিতার অভিযোগ! শরণখোলার ইউএনও’র অফিসসহকারির বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও সেচ্ছাচারিতার অভিযোগ! সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন খুলনার পারিবারিক শিক্ষা সফর ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা ‘স্বপ্নপুরীতে’ ১০ শরিকের সম্পতি আত্মসাতের অভিযোগ অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে! বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বাঙালির শৃঙ্খল মুক্তির পথ দেখিয়েছে: এমপি বদিউজ্জামান সোহাগ মানুষ এখন অনেক সচেতন, বন্যপ্রাণিকে হত্যা না করে বনে ফিরিয়ে দেয় শরণখোলায় বয়লার মুরগীর চিকেন খেয়ে ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে শিশুর মৃত্যু! সাড়ে তিন মাসেও খোঁজ মেলেনি বঙ্গোপসাগরে নিখোঁজ ৯ জেলের

গণতন্ত্র-ভোটাধিকার আ. লীগ প্রতিষ্ঠা করেছে, বিএনপি না: প্রধানমন্ত্রী

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৭ জুন, ২০২৩
  • ৪২ Time View

একমাত্র শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর আওয়ামী লীগই করেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএপির মুখে আজ ভোটাধিকার ও গণতন্ত্রের কথা শুনলে হাসি পায়। গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার আওয়ামী লীগই প্রতিষ্ঠা করেছে, বিএনপি করেনি।

প্রধানমন্ত্রী বুধবার (৭ জুন) ঐতিহাসিক ছয় দফা উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কক্ষে এ আলোচনা সভা হয়। এতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারাও বক্তব্য দেন।

বিএনপি নেতাদের মুখে গণতন্ত্রের কথা শোভা পায় না উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার প্রশ্ন—বিএনপির জন্ম কোন গণতন্ত্রের ভেতরে? মিলিটারি ডিক্টেটরের তৈরি রাজনৈতিক দলের নেতাদের মুখে এখন গণতন্ত্রের কথা শোভা পায় না।

জিয়াউর রহমান হাজার হাজার আর্মি অফিসারকে খুন করেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভোট কারচুপির সূচনা জিয়াউর রহমানের হাতেই। গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম ও আন্দোলন আমরাই করেছি। আমরাই এ দেশের মানুষের ভোটের অধিকার নিশ্চিত করেছি। আওয়ামী লীগ জনগণের দল হিসেবে দেশবাসীর ভোটের অধিকার তাদের হাতে তুলে দিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আজকে আমাদের ভোটারবিহীন বলে। অথচ জিয়াউর রহমান, এরশাদ ও খালেদা জিয়াই ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছে।

ছয় দফার প্রেক্ষাপট তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার পর আমাদের এ দেশ থেকেই পাকিস্তানি শাসকরা সম্পদ নিয়ে পশ্চিম পাকিস্তানকে সমৃদ্ধ করে। আমাদের এ দেশের মানুষ শোষণ বঞ্চনার শিকার হয়। বঞ্চিত মানুষের ভাগ্য গড়ার জন্যই বঙ্গবন্ধু ছয়দফা ঘোষণা করছিলেন। ছয়দফার অর্থ হলো একদফা, মানে স্বাধীনতা। দেশের মানুষের স্বাধীনতার জন্যই বঙ্গবন্ধু ছয়দফা ষোষণা করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে দেশের মানুষ ছয়দফা লুফে নিয়েছিল। এভাবেই ছয়দফা একদফায় পরিণত হয়েছিল।

সরকারপ্রধান বলেন, বঙ্গবন্ধু এদেশের মানুষের ভোট ও ভাতের জন্য যুদ্ধ করে গেছেন। বঙ্গবন্ধু দেশের মানুষের জন্য গণতন্ত্রর জন্য কাজ করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
স্বত্ব © সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর :- ২০২০-২০২৩
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102