শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দুবলারচরে মহান ভাষা দিবস ২১ ফেব্রুয়ারী পালিত শরণখোলায় যুবদল ও শ্রমিকলীগের নেতাসহ আটক ৪, গাঁজা উদ্ধার পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে শরণখোলায় প্রতিবেশীর হাতে নির্মম নির্যাতনের শিকার বিধবা মর্জিনা, ক্ষোভ-অপমানে আত্মহত্যার চেষ্টা  দুবলারচর শুঁটকি পল্লীর জেলেদের আতংক খোকন রাজাকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের তদন্ত শুরু সুন্দরবনের জেলে-বাওয়ালীদের কম্বল দিল বনবিভাগ সাভারের চাঞ্চল্যকর গৃহবধূ ধর্ষনের আসামী শরণখোলায় র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার! শরণখোলায় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া কম্বল বিতরণ  মোরেলগঞ্জে মারপিটে স্বামী-স্ত্রী হাসপাতালে সুযোগে সিঁদ কেটে হাতিয়ে নিল মালামাল নিয়ে শরণখোলায় শিশুকল্যানে ২ দিনব্যাপী জনগনের সম্মেলন অনুষ্ঠিত সুন্দরবনে যাওয়া অনিশ্চিত পাঁচ লাখ টাকার বাওয়ালী নৌকায় আগুন!

মোরেলগঞ্জে ৬ বছর ধরে পরিত্যাক্ত স্কুল ভবন খুপরি ঘরে চলছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান

সেফালি আক্তার
  • Update Time : সোমবার, ১৭ জুলাই, ২০২৩
  • ২৪৫ Time View

শেফালী আক্তার রাখি, মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট)
বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যায়ের ভবন ৬ বছর ধরে পরিত্যাক্ত ঘোষণা হলেও দেখা মিলছে না নতুন ভবনের। টিনশেটের ছাপড়া ঘরে কোন মতে চলছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান। অভিভাবক ও স্থানীয়দের দাবি নতুন ভবন নির্মাণের।

সরেজমিনে উপজেলার বারইখালী ইউনিয়নের ১৭৪ নং দক্ষিণ সুতালড়ি শাহজাহানীয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ১৯৩৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে সরকারি বরাদ্দে ৪ কক্ষ বিশিষ্ট পাকা ভবনে চলে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম। ২০১৫ সাল থেকে ভবনটি পলেস্তরা খসে পড়ে লোহার রড বেড়িয়ে আসে। ভবনের অধিকাংশ ভীম ভেঙ্গে পড়ে। পাঠদানের অনুপযোগী হয়ে পড়ে।

২০১৭ সালে ভবনটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে কর্মকর্তারা। এর পর থেকেই ২০১৮ সাল থেকে টিনশেটের একটি ছাপড়া ঘরে শিক্ষার্থীদের চলে পাঠদান। ওই বছরেই ভবনটির সয়েল টেষ্ট হয়। পরবর্তীতে আর কোন অগ্রগতি নেই। বিদ্যালয়ে মোট শিক্ষার্থী রয়েছে ৬০ জন। শিক্ষক মন্ডলীর ৬টি পদ থাকলেও কর্মরত রয়েছে ৪ জন। ২০১৫ সাল থেকে প্রধান শিক্ষকের পদটি রয়েছে শূন্য। চলতি বছরের ১০ জুলাই থেকে সহকারি শিক্ষক পদে একজন বদলী হলে ওই পদটিও হয়ে পড়ে শূন্য। ২০২০ সাল থেকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষরে দায়িত্ব পালন করে আসছেন আর্চনা রানী হালদার।

শিক্ষার্থী ফাহামিদা আক্তার, মুন আক্তার, মিথিলা, সুমাইয়া আক্তার, রাব্বি বলেন, বৃষ্টির সময় ক্লাশে পানি পড়ে, প্রচন্ড রোদ্রে গরমে ক্লাশ করতে কষ্ট হয়। খেলা-ধূলাও করতে পারি না। কবে হবে আমাদের নতুন স্কুল ভবন?।
প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) অর্চনা রানী হালদার বলেন, স্কুলের নতুন ভবনের জন্য ২০২২-২০২৩ সালে দু’বারে রেজুলেশন সহ উপজেলা শিক্ষা অফিসারের দপ্তরে আবেদন দেওয়া হয়েছে। ২০১৮ সালে একবার সয়েল্ট টেষ্ট হয়েছে। পরবর্তীতে আর কোন অগ্রগতি হয়নি। অভিভাকদের কাছে হোম ভিজিটে গেলে স্কুল ভবনের বিষয়ে একাধিক প্রশ্ন তাদের। ছেলে মেয়েদের স্কুলে পাঠাতে অনিহা প্রকাশ করে। নতুন স্কুল ভবন হলে শিক্ষার পরিবেশ ফিরে আসবে।

শিক্ষার্থীর অভিভাবক জাকির হাওলাদার, ইসমত আরা, জয়নাল ফকির বলেন,  ১০/১২ বছর ধরে এ বিদ্যালয়টি জরাজীর্ণ দর্ন্যদশা। একাধিক কর্মকর্তারা স্কুলে আসে যায়। কিন্তু স্কুল ভবনের কোন পরিবর্তন নেই। ছেলে মেয়েদের স্কুলে পাঠিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকতে হয়। নতুন একটি ভবনের দাবি জানান তারা।

এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার শেখ মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, এ উপজেলায় ২০২৩ সালে ৫টি নতুন স্কুল ভবনের জন্য শিক্ষা কমিটির সুপারিশসহ আবেদন প্রাথমিক অধিদপ্তরে ইতোমধ্যে পাঠানো হয়েছে। ১৭৪ নং দক্ষিণ সুতালড়ি শাহজাহানীয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি পরিত্যক্ত বিষয়ে তিনি অবহিত নন। খোঁজ খবর নিয়ে আবেদনের জন্য বলা হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী মো. আরিফুল ইসলাম বলেন, দক্ষিণ-সুতালড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনটি কাগজপত্রে পরিত্যক্ত ঘোষণা হয়েছে কিনা সে বিষয় তিনি অবহিত নন। তবে, স্কুলটি সরেজমিনে দেখে দ্রæত পরিত্যক্ত ঘোষণা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সুপারিশ পাঠানো হবে। এ উপজেলায় ২৩টি বিদ্যালয়ের নতুন ভবনের কাজ চলমান রয়েছে। দরপত্র প্রক্রিয়াধীন রয়েছে ১১টি ও সয়েল্ট টেস্ট হয়েছে ১০টি বিদ্যালয়ে বলে এ কর্মকর্তা জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
স্বত্ব © সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর :- ২০২০-২০২৩
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102