বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম
শরণখোলায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা  শরণখোলায় কুপ্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় লম্পটের হামলায় জখম কলেজ ছাত্রী শরণখোলার ইউএনও’র অফিসসহকারির বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও সেচ্ছাচারিতার অভিযোগ! শরণখোলার ইউএনও’র অফিসসহকারির বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও সেচ্ছাচারিতার অভিযোগ! সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন খুলনার পারিবারিক শিক্ষা সফর ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা ‘স্বপ্নপুরীতে’ ১০ শরিকের সম্পতি আত্মসাতের অভিযোগ অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে! বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বাঙালির শৃঙ্খল মুক্তির পথ দেখিয়েছে: এমপি বদিউজ্জামান সোহাগ মানুষ এখন অনেক সচেতন, বন্যপ্রাণিকে হত্যা না করে বনে ফিরিয়ে দেয় শরণখোলায় বয়লার মুরগীর চিকেন খেয়ে ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে শিশুর মৃত্যু! সাড়ে তিন মাসেও খোঁজ মেলেনি বঙ্গোপসাগরে নিখোঁজ ৯ জেলের

সাড়ে তিন মাসেও খোঁজ মেলেনি বঙ্গোপসাগরে নিখোঁজ ৯ জেলের

ডেস্ক:
  • Update Time : শুক্রবার, ১ মার্চ, ২০২৪
  • ১৩৩ Time View

সাড়ে তিন মাসেও খোঁজ মেলেনি বঙ্গোপসাগরে নিখোঁজ হওয়া দুবলার চরের ৯ জেলের। আগামী ২৮ মার্চ সুন্দরবনের দুবলার চরের শুটকি পল্লির কার্যক্রম শেষ হবে। সবকিছু গুটিয়ে নিয়ে নিজ নিজ এলাকায় ফিরে যাবেন জেলে-বহাদ্দরা। কিন্তু বঙ্গোপসাগরে হারিয়ে যাওয়া জেলেদের কোন খোঁজ না মেলায় উৎকণ্ঠা কাটছে না তাদের নিয়ে আসা বহাদ্দরের।

গত ১৭ নভেম্বের মাছ শিকারের সময় ঘুর্ণিঝড় মিথিলির আঘাতে বঙ্গোপসাগরে ট্রলারসহ নিখোঁজ হন ওই ৯ জেলে। এরপর সাড়ে তিন মাস পার হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত কোন সন্ধান মেলেনি তাদের।

দুবলার চরের অফিস কিল্লার ইসাহাক বহদ্দার ও আবু বহদ্দার জানান, তার এফবি আল্লাহর দান ফিসিং ট্রলারের ১৪ জেলে মাছ ধরার সময় ঘুর্ণিঝড় মিথিলির আঘাতে নিখোঁজ হন। পরে বঙ্গোপসাগরে ভাসমান অবস্থায় ৬ জেলেকে অপর একটি ফিসিং ট্রলারের জেলেরা জীবিত উদ্ধার করে। কিন্তু ৯ জেলে এবং ফিসিং ট্রলারে কোন খোঁজ পাওয় যায়নি। প্রায় সাড়ে তিন মাস পাড় হয়ে গেলেও জেলেদের সন্ধান না পেয়ে তিনি এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। কি করবেন বুঝে উঠতে পারছেন না। এমনকি অর্থনৈতিক ভাবেও নিশ্ব হয়ে পড়েছেন তিনি।

নিখোঁজ জেলেরা হচ্ছে, চট্ট্রগ্রামের হামিনি জলদাসের পুত্র সুদান, আব্দুল কারিমের পুত্র নেছার, হাবিবুর রহমানের পুত্র আবুল কাসেম, মোঃ ইসলামরে পুত্র বাদশা, করিম আকনের পুত্র মোঃ কালু, হরিসন্ন দাসের পুত্র হরি রঞ্জন, সোনায়েত আলীর পুত্র আমির হোসেন, ইসলাম মিয়ার পুত্র নুরুল আফসার, এছাড়া মোঃ জামাল মিয়ার পিতার নাম জানাযায়নি। এদের সবার বাড়ি চট্ট্রগ্রামের বাঁশখালি, সাতকানিয়া ও চকরিয়া উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে। বিষয়টি তারা ২৬ ডিসেম্বর বন বিভাগের দুবলা জেলে পল্লীর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে লিখিত ভাবে জানিয়েছেন।

এছাড়া পাশ্বর্তী ভারতের বকখালী, কাকদ্বীপসহ বিভিন্ন এলাকার জেলেদের কাছে খোঁজ নিয়েও কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। এব্যপারে শরণখোলা রেঞ্জের দুবলা জেলে পল্লীর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফরেষ্ট রেঞ্জার মোঃ খলিলুর রহমান বলেন, বিষয়টি তাৎক্ষনিকভাবে তারা আমাকে জানায়নি। যার কারনে মিথিলির ক্ষয়ক্ষতির রেপোর্ট দেয়ার সময় ৯ জেলের নিখোঁজ খবরটি উল্লেখ করা যায়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
স্বত্ব © সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর :- ২০২০-২০২৩
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102