রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০২:৪৮ পূর্বাহ্ন

প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে আগামী বছর ১৫ আগস্ট ভারতে চালু হচ্ছে 5G নেটওয়ার্ক : রিপোর্ট

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৯ জুন, ২০২১
  • ২৫
5g-network-to-live-in-india-on-august-15-auction-set-in-2022



5G নেটওয়ার্ক ভারতে ১৫ আগস্ট চালু হবে

সমস্ত বিতর্ককে সরিয়ে রেখে ভারতে 5G নেটওয়ার্কের জয়যাত্রা এখন মাত্র কিছু সময়ের অপেক্ষা। বিশেষত দেশের প্রথম সারির নেটওয়ার্ক অপারেটরেরা সফলভাবে 5G ট্রায়াল চালাবার পর এটা নিশ্চিতভাবেই বলা যায় যে হয়তো আগামী বছরেই আমরা 5G নেটওয়ার্ক ব্যবস্থার আগমন ঘটতে দেখবো। সম্প্রতি BusinessLine -এর একটি প্রতিবেদনেও তেমনটাই দাবী করা হয়েছে। প্রতিবেদকের মতে ২০২২ সালের ১৫ই আগস্ট ভারতের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসকে সাক্ষী রেখে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী 5G নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির সূচনা করবেন। শুধু তাই নয়, সারা দেশে অত্যাধুনিক 5G প্রযুক্তির বিস্তারের ক্ষেত্রে আমাদের স্থানীয় সফটওয়্যার নির্মাতারা চালিকাশক্তি হবেন বলেও রিপোর্টে দাবী করা হয়েছে। তবে এতকিছুর পরেও ঠিক কবে নাগাদ 5G স্পেকট্রাম নিলাম অনুষ্ঠিত হবে সে সম্পর্কে এখনো কেউ কোন নির্ভরযোগ্য তথ্য দিতে পারেননি।

এ বিষয়ে সকলেই অবগত রয়েছেন যে Reliance Jio এবং Airtel -এর মতো স্বদেশী নেটওয়ার্ক অপারেটরেরা কিছুদিন আগেই মুম্বাই এবং গুরগাঁও অঞ্চলে পরীক্ষামূলকভাবে 5G ব্যবহারে সফল হয়েছে। এছাড়াও Vodafone-Idea নেটওয়ার্ক এবং রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা এমটিএনএল (MTNL) খুব তাড়াতাড়ি তাদের ট্রায়াল রান শুরু করতে চলেছে। এক্ষেত্রে ডিপার্টমেন্ট অফ টেলিকমিউনিকেশন বা DoT -এর পক্ষ থেকে বিভিন্ন টেলকোগুলিকে (Telco) ৭০০ মেগাহার্টজ (MHz), ৩.৫ গিগাহার্টজ (GHz) এবং ২৬ গিগাহার্টজ (GHz) নেটওয়ার্ক ব্যান্ড ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আবার অন্যদিকে তারা 5G প্রযুক্তির পরিকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য দেশীয় টেলকোগুলিকে কোনো চীনা প্রতিষ্ঠানের শরণাপন্ন না হওয়ার নির্দেশ দেয়। একথা আক্ষরিকভাবেই সত্য যে দেশের টেলিকম অপারেটরেরা DoT -এর উপরোক্ত নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছে।

দৃষ্টান্তের ক্ষেত্রে বলতে পারি 5G প্রযুক্তির নির্মাণে রিলায়েন্স জিও নিজস্ব প্রযুক্তির উপরেই আস্থা রেখেছে। একই সাথে তারা এরিকসন (Ericsson), নোকিয়া (Nokia), স্যামসাংয়ের (Samsung) মতো গিয়ার ভেন্ডরদের সাথে কাজ করছে। এয়ারটেলের পক্ষ থেকেও গুরগাঁওয়ের সাইবার হাবে যে পরীক্ষামূলক 5G ট্রায়াল সম্পন্ন হয়েছে, সেখানে তারা এরিকসনের নেটওয়ার্ক গিয়ার ব্যবহার করেছে। প্রয়োজন অনুযায়ী ভবিষ্যতে তারা টিসিএস (TCS)-র OpenRAN প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারে বলেও জানা গিয়েছে।

সুতরাং সবদিক দিয়ে দেখতে গেলে Business Line পত্রিকার দাবী চট করে উপেক্ষা করা চলে না। পরিকাঠামোগতভাবে সবই যখন তৈরী, তখন আগামী বছরের আগস্ট মাসে 5G নেটওয়ার্কের যাত্রা সূচনায় অন্য কোন বাধা থাকার কথা নয়। সেক্ষেত্রে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী 5G প্রযুক্তির অভিষেক ঘটাতে পারেন।

সর্বোপরি বিজনেস লাইনের (Business Line) দাবী থেকে এটাও স্পষ্ট যে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তির ওপর নির্ভর করেই আমরা 5G ব্যবস্থার যাত্রা শুরু করতে চলেছি। হার্ডওয়্যার হোক বা সফটওয়্যার, ভারতীয় সংস্থাগুলি এখানে মূল চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করছে যা আমাদের কাছে অত্যন্ত আনন্দের বিষয়।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন






One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020




Source by [author_name]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি
সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০২১
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102