শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১২:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
গ্লোবাল অ্যাকসেসিবিলিটি অ্যাওয়ারনেস ডে উদযাপিত এবং সম্মাননা প্রদান – টেক শহর মোরেলগঞ্জ ফেরিঘাটে ৫০০পিচ ইয়াবাসহ এক নারী আটক ঝড়ে নৌকাডুুবি, নিজের জীবন দিয়ে ছেলেকে বাঁচালেন বাবা! অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে গিয়ে বিপাকে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ শরণখোলায় শ্রমিক দলের কমিটি বিলুপ্ত! শরণখোলায় জলাবদ্ধতা নিরসন, নদী ও বেড়িবাঁধ ভাঙনরোধে আগাম পরিকল্পনা গ্রহন! সাঁতার শেখা শুরু করেছেন খালেদা জিয়া ও ড. মুহাম্মদ ইউনূস স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নামে ছাত্রলীগ সহসভাপতির চাঁদাবাজি! পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক নিয়োগ ২০২২-ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্য ব্যাংকে ১২৬ পদে চাকরি ⋆ KFPlanet র‍্যাবের করা সিলগালা হাসপাতালেই অপচিকিৎসায় শিশু আতিকার মৃত্যু

ইয়াসের এক মাস: ‘নদীতে না সাগরে আছি বুঝতে পারি না’

  • আপডেট সময় রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
ইয়াসের এক মাস: ‘নদীতে না সাগরে আছি বুঝতে পারি না’

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের একমাস পূর্ণ হয় গত ২৬ জুন। তবে দুর্ভোগ কাটেনি সাতক্ষীরার আশাশুনির উপজেলার প্রতাপনগরের মানুষের। এখনও পানিতে ভাসছে ২৫ হাজারেরও বেশি মানুষ। এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে তো বটেই, অনেক মানুষকে রাত-দিন কাটাতে হচ্ছে নৌকায়।

গত ২৬ মে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের জলোচ্ছ্বাসে বাঁধ ভেঙে বিভিন্ন অঞ্চল প্লাবিত হয়। অনেক এলাকায় বাঁধ থাকলেও প্রতাপনগরের দুটি পয়েন্টের বাঁধ অরক্ষিত। আশাশুনি উপজেলা সদর থেকে প্রতাপনগর ইউনিয়নে আসার প্রধান সড়কে ক্লোজার ওঠায় নৌকায় চড়ে যেতে হয় প্রতাপনগরে। সড়ক নষ্ট এবং এলাকা প্লাবিত হয়ে রাস্তা ডুবে যাওয়ায় ইউনিয়নের ২৫ হাজারেরও বেশি মানুষের চলাচলের জন্য নৌকাই একমাত্র ভরসা। প্রতাপনগরের তালতলা এলাকার মাসুম বিল্লাহ বলেন, ‘আমরা নদীতে নাকি সাগরে আছি বুঝতে পারি না। রাস্তায় বুক সমান পানি। এখন বেদেদের মতো নৌকায় ভাসমান জীবন কাটাচ্ছি। আমাদের কষ্ট দেখার কেউ নেই।’ কুড়িকাহুনিয়া এলাকার মিলন বিশ্বাস বলেন, ‘ইয়াসের কারণে কপোতাক্ষ খোলপেটুয়া নদীর ভেড়িবাঁধ ভেঙে প্রতাপনগর প্লাবিত হয়। ২৫ হাজার মানুষ আজও পানিবন্দি। সীমাহীন দুর্ভোগ মানবেতর দিন কাটাচ্ছি আমরা। বিশেষ করে রান্না, খাওয়া, প্রাকৃতিক কাজ এসব নিয়ে সমস্যার অন্ত নেই।’

ইউনিয়নের হরিষখালির দুটি ভাঙন পয়েন্ট, শ্রীপুর কুড়িকাহুনিয়া লঞ্চঘাটের দক্ষিণ অংশের দুটি পয়েন্ট এবং প্রতাপনগর সংলগ্ন পদ্মপুকুর ইউনিয়নের বন্যতলা গ্রামের একটি ভাঙন পয়েন্ট দিয়ে প্রতাপনগর বন্যতলায় নিয়মিত কপোতাক্ষ খোলপেটুয়া নদীর জোয়ার-ভাটা চলছে। জুন হরিষখালী ১৭ জুন কুড়িকাহুনিয়ায় বাঁধ দেওয়া হলেও ২৪ ঘণ্টা পার না হতেই ভেঙে যায়। ২১ জুন ঠিকাদার এলাকাবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁধের চাপান সম্পন্ন হয়। এই চাপানের মাধ্যমে ইউনিয়নের নং ওয়ার্ড পানিমুক্ত হলেও হরিষখালী প্রতাপনগর সংলগ্ন পদ্মপুকুর ইউনিয়নের বন্যতলা গ্রামের একটি পয়েন্ট দিয়ে এলাকায় এখনও পানি ঢুকছে। এতেই ডুবেছে ইউনিয়নের রাস্তা, ঘরবাড়ি।

প্রতাপনগরের ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন বলেন, ‘ছয়টি ওয়ার্ডের ১৫ কিলোমিটার রাস্তা পুরোপুরি নষ্ট। প্রধান সড়কগুলো যেন বড় আকারের খাল হয়ে গেছে। ভাটার সময় কিছুটা পানি সরলেও অনেক এলাকার পানি স্থায়ীভাবে আটকে গেছে। ইয়াসের পর এলাকাটা যেন ১০০ বছর অতীতে চলে গেছে। মানুষজন ভেলায় চড়ছে এখন।’ তিনি আরও বলেন, ‘মানুষ যে কী কষ্টে আছে তা চোখে না দেখলে বিশ্বাস হবে না। এলাকায় সুপেয় পানির তীব্র সংকট। ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাবও দেখা দিয়েছে।’

আশাশুনি উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মো. সোহাগ খান বলেন, ‘ইয়াসের প্রভাবে আশাশুনির ১৪টি পয়েন্টের বাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয়। অন্যসব বাঁধ মেরামত করা গেলেও হরিষখালি, বন্যতলা ক্লোজার দিয়ে পানি ঢুকে চলেছে। আগে যেখানে লোকালয় ছিল, সেখানে এখন জোয়ার-ভাটা চলছে। ৫-হাজার পরিবার পুরোপুরি পানিবন্দি।’

তিনি আরও বলেন, ‘উপজেলার ইট-খোয়ায় বানানো দুই কিলোমিটার এবং কাঁচা সড়ক সম্পূর্ণ ১৫ কিলোমিটার সড়ক আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’

সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড-নির্বাহী প্রকৌশলী (অতিরিক্ত) রাশেদুর রহমান বলেন, ‘হরিষখালী একবার বন্ধ করার পরও নদীতে পানির চাপ থাকায় আবার ভেঙেছে। দুয়েকদিনের মধ্যে আবারও বাঁধ দেবো। বন্যতলা পয়েন্টে জাইকার অর্থায়নে ঠিকাদাররা কাজ করছে। আশা করছি দ্রুত কাজ শেষ হবে।’

সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক হুমায়ুন কবির বলেন, ‘আমি সম্প্রতি যোগদান করেছি। বিষয়টি অবগত হয়েছি। দ্রুত এলাকা পরিদর্শন করবো। মন্ত্রণালয়ে কথা বলে দ্রুত যা করার করবো।’


Post Views:
4



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102