সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:০৮ অপরাহ্ন

সারা খুলনা অঞ্চলের খবরা খবর

  • আপডেট সময় রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ৫৯
সারা খুলনা অঞ্চলের খবরা খবর

লকডাউনে কর্মহীন সকল মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন: মঞ্জু

০ খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু বৈশ্বিক এই সংকটে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেছেন, শুধুমাত্র দলীয় কর্মীদের না খুঁজে লকডাউনে কর্মহীন সকল মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন। নি¤œ আয় থেকে শুরু করে মধ্যম আয়ের মানুষের জীবিকা আজ বন্ধ হয়ে গেছে। অভুক্ত থেকেও লোকলজ্জায় অনেকে মুখ খুলতে পারছে না। সে সব অভুক্ত মানুষের ঘরে খাবার পৌছানোর ব্যবস্থা করুন।

শনিবার (জুলাই) দুপুরে ২৮ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির উদ্যোগে করেরবাজার এলাকায় করোনা ভাইরাস সংক্রমনরোধে সরকারের দেয়া লকডাউনে কর্মহীন ৩শ’ পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণকালে তিনি আহবান জানান। একই সাথে অসহায় মানুষের পাশের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য সমাজের বিত্তবান দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।

সময় উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ড বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইসহাক তালুকদার, সাধারন সম্পাদক সাবেক কাউন্সিলর ওয়াহেদুজ্জামান দীপু, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: ফারুক হোসেন, যুবদল নেতা মোহাম্মাদ সেলিম, রিয়াজুর রহমান সোহাগ, মো. জুয়েল রহমান, মো: মিজানুর রহমান প্রমূখ।

আল কারীম অক্সিজেন সেবা খুলনার শুভ উদ্বোধন

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনায় করোনা কালীন সময়ে করোনা রোগীদের সর্ব্বোচ্চ সেবা হিসেবে আল কারীম অক্সিজেন সেবা খুলনার যাত্রা  শুরু হলো। শনিবার (জুলাই) বিকাল টায় নগরীর পাওয়ার হাউজ মোড়স্থ কার্যালয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগরের ব্যবস্থাপনায় আল কারীম অক্সিজেন সেবা খুলনার শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আল কারীম অক্সিজেন সেবা খুলনার প্রধান পরিচালক আলহাজ্ব মুফতী আমানুল্লাহ, ইসলামী আন্দোলন নগর সহ সভাপতি মুফতী মাহবুবুর রহমান,  উপদেষ্টা আব্দুল মালেক, আল কারীম অক্সিজেন সেবা খুলনার প্রধান সমন্বয়কারী শেখ মোঃ নাসির উদ্দীন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম, আল কারীম অক্সিজেন সেবা খুলনার প্রদান টিম পরিচালক গাজী ফেরদাউস সুমন, মাওলানা আব্বাস আমীন, মোল্লা রবিউল ইসলাম তুষার, মুফতী শেখ আমীরুল ইসলাম, আলহাজ্ব সরোয়ার বন্দ, শেখ হাসান ওবায়দুল করীম, মাওলানা হাফিজুর রহমান, আলহাজ্ব আবুল কাশেম, মোঃ মেহেদী হাসান, ইমরান হোসেন মিয়া, মোঃ আব্দুর রশিদ, মুফতী আমানুল্লাহ, মোমিনুল ইসলাম নাসিব, নাজমুল ইসলাম, মোঃ আরিফুল ইসলাম, মিরাজ আল-সাদী, মোঃ হুসাইন আহমাদ, নুর আহমাদ, মোঃ মেহেদী হাসান সৈকত প্রমুখ।

আল কারীম অক্সিজেন সেবা খুলনার হটলাইন ০১৬৭৬৫০০৩৯৫, ০১৭১১২৪৮৩২১, ০১৭১৬০১২২৫৫, ০১৭১২৩৭৯৫৮৭।

সাতক্ষীরার মেডিকেলে মৃত্যুর ঘটনায় আরও একটি তদন্ত কমিটি

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

সাতক্ষীরা সরকারি মেডিকেল কলেজ ডেডিকেটেড হাসপাতালে অক্সিজেন সংকটের কারনে কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে মৃত্যুর ঘটনার তদন্তে আরও একটি কমিটি গঠিত হয়েছে।রোববার সকাল ১০টায় এই কমিটি ঘটনাস্থলে এসে তদন্ত করবে বলে জানিয়েছেন সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়েত। খুলনা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক ডা. রাশেদা সুলতানা দুই সদস্যের এই তদন্ত কমিটি গঠন করেন।কমিটির প্রধান হয়েছেন খুলনা মেডিকেল সাবডিপোর সহকারী পরিচালক ডা. রফিকুল ইসলাম গাজী। কমিটির অপর সদস্য হলেন মোংলা পোর্ট স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ড. মোশাররফ হোসেন। এর আগে একই ঘটনায় সাতক্ষীরা সরকারি মেডিকেল কলেজের তত্ত্বাবধায়ক ডা. কুদরত খুদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. কাজী আরিফ আহমেদকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেন।এই কমিটিতে রয়েছেন ডা. সাইফুল্লাহ ডা. মারুফ তিন কার্যদিবসের মধ্যে তাদের তদন্ত রিপোর্ট দেওয়ার কথা রয়েছে।উল্লেখ্য যে, গত ৩০ জুন বুধবার বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টার মধ্যে অক্সিজেন সংকটের কারনে আইসিইউ, সিসিইউ এবং সাধারণ করোনা ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন জন মারা যান। মৃতদের প্রথম জন ছিলেন করোনা পজিটিভ। সকাল থেকে অক্সিজেন সংকট দেখা দিলে ডাক্তাররা কর্তৃপক্ষকে তা অবহিত করেন।কিন্তু যথা সময়ে সাতক্ষীরার সেন্ট্রাল অক্সিজেন পন্ড পূরণ না করায় অক্সিজেনের প্রেশার কমতে থাকায়। একপর্যায়ে এর লেভেল কমে যাওয়ায় রোগীরা ছটফট করতে থাকেন। এসময় যে যার মত অক্সিজেন সিলিন্ডার বাইরে থেকে নিয়ে এসে রোগীদের বাচানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। রাত ৮টার মধ্যে জন রোগী মারা যান। এর আগে ওইদিনই করোনা উপসর্গে আরও জন সহ ১৪ জনের মৃত্যু ঘটে। ডা. হুসাইন শাফায়েত বলেন, রোববার তদন্ত কমিটির অনুসন্ধানে এই মৃত্যুর কারন বেরিয়ে আসবে বলে আমরা আশা করছি।

খুলনা’নবাগত জেলা প্রশাসকে খুলনা মহানগর শ্রমিক লীগের পক্ষ থেকে ফুলের শুভেচ্ছা

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা এর নবাগত জেলা প্রশাসক বরিশাল বিভাগের কৃতি সন্তান জনাব মো: মনিরুজ্জামান তালুকদার মহোদয়’কে শনিবার দুপুরে খুলনা রেলওয়ে ষ্টেশনে কর্মহীন শ্রমিকদের মাঝে খাদ্য-সামগ্রী বিতরন অনুষ্ঠানের আগমূর্হতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলনা মহানগর শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: মোতালেব মিয়া সাধারণ সম্পাদক  রনজিত কুমার ঘোষ এর নেতৃত্বে ফুলের শুভেচ্ছা অভিনন্দন জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.ডি.বাবুল রানা, বিভাগীয় শ্রম অধিদপ্তর খুলনা এর শ্রম পরিচালক মো: মিজানুর রহমান, নগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মুন্সি মাহাবুব আলম সোহাগ, খুলনা প্রেশ ক্লাবের সভাপতি এসএম জাহিদুল ইসলাম, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর শ্রীমতি কনিকা সাহা, নগর শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতি সাইফ মো: হুমায়ুন কবির, মো: মল্লিক নওশের আলী, মো: আব্দুর রহিম খান, মো: জাহাঙ্গীর হোসেন হাওলাদার, মো: মাহাবুব হাসান শামীম, মো: জয়নাল আবেদীন, মো: ই্উনুস মুন্সি, মো: তাজুল ইসলাম, মো: আক্তার হোসেন, মো: শরিফুল ইসলাম, মো: রফিকুল ইসলাম, বিপ্লব কুমার দে, মো: আজিম উদ্দিন, ১৩৮ এর সাধারণ সমপাদক মো: ফারুখ খা, শ্রমিকনেতা মো: আলমগীর মল্লিক, শাহিন শরীফ বাবু, মো: আইনুল ইসলাম, মো: আলী প্রমূখ নেতৃবৃন্দ। এসময় জেলা প্রশাসক মহোদয় বলেন, সমগ্র পৃথিবী আজ করোনা মহামারির করালগ্রাসে বিপন্ন তাই সবাইকে চলমান লক ডাউনকে স্বাগত জানিয়ে দুরুত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। নেতৃবৃন্দ নবাগত জেলা প্রশাসকের সুস্বাস্থ্য দীর্ঘায়ু জীবন কামনা করেন।

খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের অসুস্থ সদস্যদের সুস্থতা কামনা

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে) এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবুল বাশার, বিএফইউজে’নির্বাহী সদস্য কেইউজে’সদস্য এস এম ফরিদ রানা, ইউনিয়নের সদস্য মোঃ মিজানুর রহমান কাজী ফজলে রাব্বী শান্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। তাঁদের আশু সুস্থতা কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন (কেইউজে)এক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ তাদের আশু সুস্থতার পাশাপাশি দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

বিবৃতিদাতারা হলেন কেইউজে’সভাপতি মোঃ মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, সহ-সভাপতি মোঃ হুমায়ুন কবীর মহেন্দ্রনাথ সেন, সাধারণ সম্পাদক বিএফইউজে’নির্বাহী সদস্য মোঃ সাঈয়েদুজ্জামান সম্রাট, যুগ্ম সম্পাদক নেয়ামুল হোসেন কচি, কোষাধ্যক্ষ অভিজিৎ পাল, প্রচার সাংস্কৃতিক সম্পাদক নূর হাসান জনি, নির্বাহী সদস্য আনোয়ারুল ইসলাম কাজল, আল মাহমুদ প্রিন্স বিমল সাহা।

ভারতে আটকে থাকা যাত্রীরা সপ্তাহে তিনদিন বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন

বেনাপোল প্রতিনিধি

ভারতে আটকে থাকা যাত্রীরা এখন থেকে সপ্তাহে তিনদিন বেনাপোল চেকপোস্্ট দিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন। আজ বিকেলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের এক নির্দেশনা আসে বেনাপোল পুলিশ ইমিগ্রেশনে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আহসান হাবিব। ফলে শনিবার থেকে কোন যাত্রী বাংলাদেশে ফিরতে পারিনি। শুধুমাত্র সপ্তাহের রোববার, মঙ্গলবার বৃহস্পতিবার তিনদিন ভারত থেকে যাত্রীরা দেশে ফিরতে পারবেন। বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান হাবিব জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনায় থেকে একটি আদেশ আমার দপ্তরে এসেছে। আদেশে বলা হয়েছে এখন থেকে সপ্তাহে তিনদিন ভারত থেকে ভারতীয় হোক আর বাংলাদেশি যাত্রী হোক সপ্তাহে রোববার মঙ্গলবার বৃহস্পতিবার এই তিনদিন বাংলাদেশে ফিরতে পারবেন। ফেরত আসা যাত্রীদের অবশ্যই কোভিড সনদ ভারতীয় হাইকমিশনারের এনওসি সাথে আনতে হবে। আদেশ কার্যকর হওয়ায় গতকাল কোন যাত্রী ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি। তবে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার থেকে এনওসি নিয়ে ১১ জন বাংলাদেশি জন ভারতীয় ভারতে গেছে।

অসহায়দের মাঝে খাদ্য বিতরণ উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত রেখেছেন সালাম মূর্শেদী এমপি

স্টাফ রিপোর্টার

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় সারাদেশ ব্যাপি চলছে লকডাউন। এমন পরিস্থিতিতে ঘরবন্দী অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য বিতরণ এবং রূপসা, তেরখাদা দিঘলিয়া উপজেলার উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত রেখেছেন খুলনা-আসনের সংসদ সদস্য বিজিএমইএ’সাবেক সভাপতি আব্দুস সালাম মূর্শেদী। ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনে খুলনার রূপসা, তেরখাদা দিঘলিয়া উপজেলার শ্রীফলতলা ইউনিয়নে গরিব-অসহায় নি¤œ আয়ের শ্রমজীবী মানুষ বিপাকে পড়েছেন। অসহায়দের খাদ্য বিতরণের অংশ হিসেবে খুলনা-আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদী তাদের কথা চিন্তা করে পুরো লকডাউন জুড়ে তার নির্বাচনী এলাকা রূপসা, তেরখাদা দিঘলিয়া উপজেলায় ‘সালাম মূর্শেদী সেবা সংঘে’মাধ্যমে খাদ্য সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন।

শনিবার বিকালে ‘সালাম মূর্শেদী সেবা সংঘ’ আয়োজিত শ্রীফলতলা ইউনিয়নের ৩’গরিব-অসহায় দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেন আব্দুস সালাম মূর্শেদী এমপি।

সময় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে তিনি বলেন, অতিসত্তর বাংলাদেশের সকল মানুষকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হবে। শেখ হাসিনা সরকার এদেশের মানুষের কথা চিন্তা করে বিদেশ থেকে লক্ষ লক্ষ ভ্যাকসিন আমদানি করছেন। এদেশের আপামর জনসাধারণ সরকারকে সহযোগিতা করার স্বার্থে সময়মত রেজিষ্ট্রেশন পূর্বক ভ্যাকসিন গ্রহন করতে হবে।

খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ফ. ম. আঃ সালামের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি আয়ূব মল্লিক বাবু, শ্রীফলতলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ইসহাক সরদার, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোতালেব হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা আফরোজ মনা, শ্রীফলতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি রবিউল ইসলাম বিশ্বাস, জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আজিজুল হক কাজল, সাংগঠনিক সম্পাদক এবিএম কামরুজ্জামান, শ্রীফলতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার মিজানুর রহমান, এমপির প্রধান সমন্বয়ক যুবলীগ নেতা নোমান ওসমান রিচি, আওয়ামী লীগ নেতা শ,জাহাঙ্গীর, এমপি প্রতিনিধি আজমল ফকির, আঃ জব্বার শেখ, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী সাবিনা ইয়াসমিন, যুবলীগ নেতা হিরন আহমেদ হিরু, আঃ মজিদ শেখ, শাহনেওয়াজ কবীর টিংকু, ছাত্রনেতা নাজিম মোড়ল, জাফর সরদার, সালাম মূর্শেদী সেবা সংঘের টিম লিডার শামসুল আলম বাবু, এসএম রিয়াজ, শিমূল হোসেন, শাহরিয়ার ইমন, সাব্বির শেখ, রাসেল শেখ প্রমূখ।

এদিকে সকালে এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ডের অংশ হিসেবে তেরখাদা উপজেলার ‘ধানখালি-গাংনী ব্রিজে’সংযোগস্থল সড়কের কাজের উদ্বোধন করলেন সালাম মূর্শেদী এমপি।

গোপালগঞ্জ মোল্লারহাট তেরখাদাবাসীর হাজার হাজার জনগণের অনেক দিনের দাবি ছিলো ছাগলাদাহ ইউনিয়নে ‘ধানখালি-গাংনী ব্রিজে’সংযোগস্থল সড়কটি সংস্কার করার জন্য। এই রাস্তাটির বেহাল দশার কারণে হাজার হাজার মানুষের চলাফেরায় দুর্ভোগের শেষ ছিলো না। তেরখাদা উপজেলার ছাগলাদাহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এস এম দীন ইসলাম খুলনা-আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মুর্শেদীর কাছে জনগণের এই দুর্ভোগের কথা উল্লেখ করেন। পরে সাংসদ ওই রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ প্রদান করেন।

শনিবার সকাল ১১টায় ছাগলাদাহ ইউনিয়নে ধানখালি-গাংনী ব্রিজের সংযোগ স্থলের ব্যস্ততম সেই সড়কের কাজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন খুলনা-আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদী।

সময় উপস্থিত ছিলেন ছাগলাদাহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এস এম দীন ইসলাম, ছাগলাদাহ ইউপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান খান সেলিম, ইউপি সদস্য লিয়াকত আলী, ইউপি সদস্য আশরাফ শেখ, এমপির প্রতিনিধি বাদশা মীর, ১নং ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক সমীর ঢালী সহ আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা এলাকাবাসী।

গুরুত্বর অসুস্থ খানজাহান (রহ.) দিঘির কুমির মাদ্রাজ

স্টাফ রিপোটার,বাগেরহাট

গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়েছে বাগেরহাটের ঐতিহ্যবাজী খানজাহান (রহ.) এর মাজার সংলগ্ন দিঘির পুরুষ কুমির মাদ্রাজ। গত জুন মাসের ১১ তারিখ থেকে অসুস্থ হয়ে পড়েছে কুমিরটি। স্থানীয়রা বলেন কুমিরটি অসুস্থতার খবর পেয়ে বাগেরহাট জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. লুৎফার রহমান ছুটে গিয়ে পর্যাপ্ত চিকিৎসার আশ^াস দিলেও এখনো পর্যন্ত সু-চিকিৎসা পাননি কুমিরটি।

খানজাহান (রহ.) এর মাজার সংলগ্ন দিঘির পাশের বাসিন্দা বিনা বেগম বলেন, দিঘিতে থাকা দুটি কুমির প্রায়ই আমার ঘাটে আসে। গত জুন মাসের ১১ তারিখে রাতে পুরুষ কুমির “মাদ্রাজ” আমার ঘাটে আসে। সে দিন থেকে কোন খাবাই খাচ্ছে না কুমিরটি। কুমিরটিকে চিকিৎসার জন্য বাগেরহাট পশু হাসপাতালের ডাক্তার তার সহযোগী কুমিরটিকে দেখে বলেছে তার উন্নত চিকিৎসা দরকার। কিন্তু প্রায় মাস অতিবাহিত হলেও কুমিরটি সুস্থ্য করার পর্যাপ্ত কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। তিনি বলেন, বাগেরহাট জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা বলেছিলেন মাদ্রাজকে চিকিৎসা দিতে হলে কুমিরটিকে উপরে উঠাতে হবে আমরা কুমিরটি ধরার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করলেও তারা কোন পদক্ষেপ নেয়নি। তিনি কুমারটির সুচিকিৎসার জন্য জেলা প্রশাসক সহযোগীতা কামনা করেছেন তিনি।

এদিকে একাধিক সূত্রে জানা  যায়, প্রতিনিয়ত সন্ধার পর জাল পেতে দিঘি থেকে মাছ শিকার করা হয়। সময় কুমির ভয়ে আতঙ্কে থাকে। অনেকের ধারনা মাছ ধরার সময় কুমির আঘাত পেতে পারে এবং জালেও ওর পা নখ পেঁচানো থাকতে পারে।

বাগেরহাট জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. লুৎফর রহমান বলেন, জেলা প্রশাসক মহোদয়ের মাধ্যমে  খবর পেয়ে আমি মাজারে গিয়েছিলাম। দিঘির দুটো কুমিরই আমি দেখেছি। পিলপিল নামের কুমিরটি সুস্থ থাকলেও মাদ্রাজ নামের কুমিরটি অসুস্থ। আমি মাজার কর্তৃপক্ষের সহযোগীতায় মাদ্রাজ কুমিরটি আটকিয়ে, কন্ট্রোল করে তার চিকিৎসা শুরু করা হবে। তার রোগ নির্ণয় করে চিকিৎসা করতে পারলে আশাকরি সে সুস্থ হয়ে যাবে।

বাগেরহাটে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২০.৮৩ শতাংশ

স্টাফ রিপোটার,বাগেরহাট

বাগেরহাট জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৭২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো হাজার ৬১৩ জনে। ২৪ ঘণ্টার পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৮৩ শতাংশ। গত শুক্রবার ছুটির দিন থাকায় নমুনা সংগ্রহ পরীক্ষা কম হয়েছে। শনিবার বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কে এম হুমায়ুন কবির তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ডুমুরিয়ায় প্রবর্তন সম্পাদকের অক্সিজেন ব্যাংক চালু

খবর বিজ্ঞপ্তি

করোনায় আক্রান্ত রোগীদের জরুরি প্রয়োজনে সেবা দিতে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলায় অক্সিজেন ব্যাংক চালু করেছেন দৈনিক প্রবর্তনের সম্পাদক মো: মোস্তফা সরোয়ার।

শনিবার দুপুরে গুটুদিয়ার একটি স্থানীয় বাজারে তিনি অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্বোধন করেন। এই সেবা কার্যক্রমের নাম দেওয়া হয়েছে ‘জিকে অক্সিজেন ব্যাংক’ (গুটুদিয়া-কোমলপুর অক্সিজেন ব্যাংক)

প্রাথমিক ভাবে টি সিলিন্ডার দিয়ে এই অক্সিজেন ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রয়োজনের তাগিদে আরও অক্সিজেন সিলিন্ডার বাড়ানোর প্রস্তুতি রয়েছে বলে জানিয়েছে মো: মোস্তফা সরোয়ার।

তিনি বলেন, ‘ মুহূর্তে অক্সিজেন করোনা রোগীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান। সময়মতো অক্সিজেন পৌঁছে দিলে একজন রোগীর যেমন জীবন বাঁচতে পারে, আবার অক্সিজেনের অভাবে একজন রোগীর জীবনহানিও ঘটতে পারে। এই ব্যাংক থেকে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার যেকোন এলাকার মুমূর্ষ রোগীরা অক্সিজেন সাপোর্ট পাবেন।’

এই অক্সিজেন সেবা কার্যক্রমের দায়িত্বে রয়েছেন গুটুদিয়ার দুইজন পল্লী চিকিৎসক। সেবা পেতে তাদের (ডা. এস এম ইকরাম হোসাইন , মোবাইল: ০১৯১৯৮৭৯৫৪৩ ডা. শংকর মহলদার, মোবাইল ০১৭৩০১৭৭৪৭৮) নম্বরে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করেছেন তিনি।

আটরা গিলাতলা ইউনিয়ন  অক্সিজেন ব্যাংকের শুভ  উদ্ভোধন

ফুলবাড়ীগেট(খুলনা)প্রতিনিধি

আটরা গিলাতলা ইউনিয়ন অক্সিজেন ব্যাংক এর শুভ উদ্ভোধন অনুষ্ঠান জুলাই শনিবার সকাল ১১ টায় শিরোমনি ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় খানজাহান আলী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ আবিদ হোসেনের সভাপতিত্বে ফুলতলা উপজেলা পরিষদের ভাইচ চেয়ারম্যান ফারজানা ফেরদৌসি নিশার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক কামরুজ্জামান জামাল বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মোঃ জামিল খান, শিউলি খান,   বক্তব্য রাখেন খানজাহান আলী থানা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সম রেজওয়ান আলী ,  খানজাহান আলী থানা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি বেগ আঃ রাজ্জাক রাজ, শেখ ইকবাল হোসেন, আঃ হামিদ সরদার, খম লিয়াকত আলী, সৈয়দ কিসমত আলী, সাবেক , বীর মুক্তিযোদ্ধা আলেক শেখ, সাবেক ইউপি সদস্য সরদার আলী আহম্মেদ ,   ইউপি সদস্য নবিরুল ইসলাম রাজা,  শিরোমনি তরুন সংঘের সভাপতি শেখ তরিকুল ইসলাম, মোঃ শাহিদুল ইসলাম, মোঃ ইয়াসিন, মোঃ হায়দার, কৃষকলীগ নেতা মোঃ মফিজ প্রমুখ সভায় বক্তার বলেন অক্সিজেন ব্যাংক এর সেবায়   ফ্রি অত্যাধুনিক এম্বুলেস সেবা, ফ্রি অক্সিজেন সেবা, করেনা আক্রান্ত হতদরিদ্র পরিবারের জন্য মাসের নিত্যপ্রয়োজনিয় খাদ্যসামগ্রী প্রদান, করেনার যাবতীয় ঔষধ ,ফ্রি ডাক্তারের ব্যাবস্থা দেওয়ার আশ^াস প্রদান করেন সভা শেষে খুলনা আসনের সংসদ সদস্য সাবেক মৎস প্রাণীসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ্র সহ করোনায় আক্রান্ত সকল মানুষের জন্য বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয় দোয়া পরিচালনা করেন শিরোমনি বাজার জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা আতাউর রহমান

দিঘলিয়ায় লকডাউন এর ১২ দিনেও সংক্রমনের হার উদ্বেগজনক

আসাদ, দিঘলিয়া

খুলনা জেলা প্রশাসক ঘোষিত সর্বাত্বক লকডাউনের ১২ দিন পরেও, দিঘলিয়ায় করোনা সংক্রমনের হার প্রায় একই রকম। জণসাধারণকে ঘরে রাখতে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলতে বাধ্য করতে উপজেলা প্রশাসন হিমসিম খাচ্ছে। আজ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৪১ টি নমুনা র‌্যাপিড এন্টিজেন টেষ্ট করে, এদের মধ্যে ১৩ টি নমুনা করোনা পজেটিভ হয়েছে, সংক্রমনের হার প্রায় ৩২%লকডাউন এর ১২তম দিন পরেও করোনা সংক্রমনের হার যথেষ্ট উদ্বেগজনক।

প্রশাসন কঠোর অবস্থান সত্বেও মোড়ে মোড়ে চলছে আড্ডা, বেড়েই চলেছে সংক্রমনের হার, মানুষের মধ্যে সচেতনার কোন বালাই নেই। যখন সেনাবাহিনী, পুলিশ প্রশাসনের টহল দল আসে তখন সবাই দৌড়ে পালায়, চলে গেলে আবারও চলছে আড্ডা, যেন চোর পুলিশ খেলা। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আলীমুজ্জামান মিলন, গতকাল (শনিবার) রাস্তায় জটলা করে বসে গেমস খেলা, আড্ডা দেওয়ার মাধ্যমে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করায় মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জনকে টি মামলায় ৩২০০ টাকা অর্থদ- প্রদান করেন। এসময় তিনি বলেন, করোনা প্রতিরোধে দয়া করে বাসায় থাকুন। বিনাকারণে চায়ের দোকানে, বাজারে না আসার জন্য অনুরোধ করেন।

এদিকে দিঘলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সুত্রে জানাযায়, গতকাল পর্যন্ত উপজেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৮৬ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২৪৪ জন। মৃত্যুবরণ করেছেন জন। বর্তমানে ১৩২ জন হোম আইশোলেশনে রয়েছেন, ০৩ জন হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহাবুবুল আলম বলেছেন, দয়া করে কয়েকটি দিন ধৈর্য্য ধারণ করে ঘরে থাকুন। প্রশাসন, পুলিশ, আর্মি বিজিবি, আনসার কিছুই যথেষ্ট নয়, শুধু জনগনের সদিচ্ছাই পারে অবস্থার উন্নতি করতে। করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি তার সংস্পর্শে আসা বা পরিবারের সদস্যগন ঘুরে ফিরে বেড়াবেন না। করোনাকালীন বিধিনিষেধে কেউ কর্মহীন হয়ে খাবারের কষ্টে থাকলে ৩৩৩ তে কল করুন, আমরা আপনাকে খাবার পৌঁছে দিব।

যতই দুর্যোগ হোক শেখ হাসিনার আমলে  কেউ না খেয়ে মারা যাবেনা : সুজিত অধিকারী

খবর বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ খুলনা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট সুজিত অধিকারী বলেন, করোনা দেশে প্রকট আকার  ধারণ করেছে। আমাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে এবং সরকারি  সকল নির্দেশনা মেনে চলতে হবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে  বর্তমান সরকার  করোনা শান্তিপূর্ণ ভাবে মোকাবেলা করছে। যতই দুর্যোগ হোক, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলে কেও না খেয়ে মারা যাবে না।

শনিবার  দুপুর একটায় খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির সামনে অসহায় দরিদ্র চায়ের দোকানদার, ঋষি  সম্প্রদায় রিক্সা চালকদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কালে প্রধান অতিথি হিসাবে তিনি  কথা বলেন।

সময় উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা আইনজীবী  সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. কে এম ইকবাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মোজাফফর মোল্লা, উপ-প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ খায়রুল অলম, রুপসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার আবুল কাসেম ডাবলু, এ্যাড. তারিক মাহমুদ তারা, এ্যাড. মনজিরুল রহমান লিটিল, এ্যাড. মোল্লা আবিদ হোসেন, এ্যাড. শফিকুল , এ্যাড. তাপস কুমার দত্ত, এ্যাড. আব্দুল করিম, এ্যাড. সপন কুমার মজুমদার,  ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল খালেক স্বাধীন প্রমুখ। ত্রাণ সামগ্রী হিসেবে  সময় চাল, ডাল, আলু, পিঁয়াজ , সাবান মাক্স বিতরণ করেন।

শ্রীশ্রীসত্যনারায়ণ মন্দির কমিটির অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান

খবর বিজ্ঞপ্তি

স্টেট অব শ্রীশ্রীসত্যনারায়ণ মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, খুলনা মহানগর শাখার অক্সিজেন ব্যাংকে শনিবার বেলা ১২টায় খুলনা বাজার কালীমাতা মন্দির প্রাঙ্গণে দু’টি অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান করেন। ভয়াবহ করোনা মহামারীকালে করোনা আক্রান্ত রোগীদের শ্বাসকষ্ট নিবারণার্থে এই অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদানের জন্য মহানগর পূজা উদ্যাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ স্টেট অব শ্রীশ্রীসত্যনারায়ণ মন্দির কমিটি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। সময়ে উপস্থিত ছিলেনÑবাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, খুলনা মহানগর শাখার সভাপতি শ্যামল হালদার, সাবেক সভাপতি স্টেট অব শ্রীশ্রীসত্যনারায়ণ মন্দির কমিটির নির্বাহী ট্রাস্টি গোপী কিষন মুন্ধড়া, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত কুমার কু-ু, সহ-সভাপতি অধ্যাপক তারক চাঁদ ঢালী, কোষাধ্যক্ষ রতন কুমার নাথ, যুব ঐক্য পরিষদ খুলনা মহানগর সভাপতি বিশ্বজিৎ দে মিঠু, সদর থানা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি বিকাশ কুমার সাহা, স্টেট অব শ্রীশ্রীসত্যনারায়ণ মন্দির কমিটির ট্রাস্টিগণ যথাক্রমে শরৎ কুমার মুন্ধড়া (লালা), মহেশ আগরওয়ালা, সুরেশ আগরওয়ালা, বিশিষ্ট ধর্মানুরাগী, সমাজসেবক পূজা পরিষদ কার্যনির্বাহী সদস্য বাবলু বিশ্বাস, বাসুদেব কর্মকার, তাপস সাহা, শিবু রায়, শিবু ভক্ত, গৌরাঙ্গ সাহা, সঞ্জীব দাস, অঞ্জন দে, অলোক কু-ু, বিদ্যুৎ দাস, প্রশান্ত ব্যানার্জী, সুশান্ত ব্যানার্জী, শ্যামসুন্দর হালদার, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সম্পাদকম-লীর সদস্য সুব্রত হালদার তপা, উজ্জ্বল ব্যানার্জী, ভবেশ সাহা, রূপন দে, মুকেশ রাম, সনৎ বকসী, বাবু শীল, রবিন দাস, অলোক দে, রাজকুমার শীল, দ্বিপ্র দাস প্রমুখ। উল্লেখ্য, এই মহামারী করোনা দুর্যোগে করোনা আক্রান্ত হয়ে শ্বাসকষ্টজনিত রোগীদের বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, খুলনা মহানগর শাখার অক্সিজেন ব্যাংক থেকে নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহ করা হয়। অক্সিজেন সিলিন্ডার পাওয়ার জন্য আক্রান্ত ব্যক্তি/পরিবার সংগঠনের সভাপতি ০১৭১১-৮১৪২১২, সাধারণ সম্পাদক ০১৭১১-২৭৫০৩০ হঠলাইন নম্বর ০১৭১১-০৬০৯১৮ যোগাযোগের জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে। সাথে সাথে কোনো সহৃদয় ব্যক্তি/পরিবার/প্রতিষ্ঠান এই করোনা দুর্যোগে অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান করতে চাইলে কৃতজ্ঞতার সাথে গ্রহণ করা হবে।

হরিণের চামড়া রেখে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেরাই ফেঁসে গেলেন

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

বাগেরহাটের শরণখোলায় প্রতিপক্ষের বাড়িতে হরিণের চামড়া রেখে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেরাই ফেঁসে গেলেন। র‌্যাব-এর অভিযানে মূল রহস্য বেরিয়ে পড়লে সংবাদদাতারাই দুইটি হরিণের চামড়াসহ আটক হয়। শনিবার ভোর রাত টার দিকে উপজেলার সুন্দরবন সংলগ্ন সোনাতলা গ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হচ্ছে, ঔই গ্রামের আমির মল্লিকের পুত্র জাকির মল্লিক (৪৫), জাকির মল্লিকের পুত্র ওমর সানি (১৯), রসুলপুর গ্রামের আমির পাহলানের পুত্র হাফিজুল (৩৫) নুরুল হক ফরাজির পুত্র মাসুম ফরাজি (৩০)এলাকাবাসী জানায়, আটক জাকির মল্লিকের সাথে প্রতিবেশী মোশারেফ ফকিরের বিরোধ চলে আসছে। এমনকি উভয়ের মধ্যে আদালতে মামলা চলমান। অবস্থায় মোশারেফ ফকিরকে ফাঁসাতে তার বাড়িতে দুই হরিণের চামড়া রেখে র‌্যাবকে খবর দেয় জাকির মল্লিক। খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি দল শনিবার ভোররাতে খবরদাতাদের সাথে নিয়ে ওই গ্রামে অভিযান চালিয়ে মোশারেফ ফকিরের বাড়ির সামনে থেকে চামড়া দুটি উদ্ধার করে। এক পর্যায়ে র‌্যাব সদস্যদের সন্দেহ হয় মোশারেফকে ফাঁসাতে হরিণের চামড়া তার বাড়িতে রেখে আসছে প্রতিপক্ষরা। এসময় র‌্যাব ঘটনার সাথে জড়িত ওই চার ব্যক্তিকে আটক করে নিয়ে যায়।

আটক মাসুম ফরাজির স্ত্রী শাফী বেগম বলেন, আমার স্বামী একজন অটোচালক তিনি বিষয় কিছু জানেনা। জাকির মল্লিকের স্ত্রী রহিমন অভিযোগ করে বলেন, আমার পরিবারের সাথে আদালতে মামলা আছে তাই শত্রুতা করে আমার স¦ামীকে ফাঁসানো হয়েছে। অপরদিকে, প্রতিপক্ষ মোশারেফ ফকিরের পুত্র শামিম ফকির বলেন, আমার বাবার সাথে আদালতে মামলা থাকায় আমাদের ফাঁসানোর জন্য হরিনের চামড়া রেখে র‌্যাবকে তথ্য দিয়েছে। বিষয় র‌্যাব-খুলনা এর একটি প্রেস বিঞ্জপ্তিতে জানানো হয় তারা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বন সংলগ্ন সোনাতলা গ্রামের বেড়ি বাঁধের উপর ক্রয়-বিক্রয়ের সময় দুইটি হরিণের চামড়াসহ ওই চারজনকে আটক করা হয়। এব্যপারে শরণখোলা থানায় ১৯২৭ সালের বন আইন (সংশোধিত ২০০০) এবং বণ্যপ্রানি (সংরক্ষন নিরপত্তা) আইন ২০১২ মামলা দেয়া হবে।

খুলনায় শনিবার করোনা ভ্যাকসিন নিয়েছেন চারশত ৪৩ জন

তথ্য বিবরণী

শনিবার খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে দুইশত ৩৫ জন এবং জেনারেল হাসপাতালে দুইশত আটজন করোনা ভ্যাকসিন প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। এর মধ্যে পুরুষ দুইশত ৭৩ জন এবং একশত ৭০ জন মহিলা। মোট তিন হাজার তিনশত ৭২ জন সাইনোফার্ম ভ্যাকসিন প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। পর্যন্ত এক লাখ ৭৯ হাজার তিনশত ২৯ জন করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। যার মধ্যে সাইনোফার্মার টিকা নিয়েছেন তিন হাজার তিনশত ৭২ জন। খুলনা সিভিল সার্জন দপ্তর থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসকল তথ্য জানানো হয়েছে।

কয়রা-পাইকগাছায় চালু হচ্ছে ‘আক্তারুজ্জামান বাবু অক্সিজেন ব্যাংক’

খবর বিজ্ঞাপ্তি

মুমূর্ষ রোগী প্রয়োজনে হাত বাড়ালেই পাবে অক্সিজেন সেবা’ এই স্লোগান নিয়ে খুলনার কয়রা-পাইকগাছায়  সংসদ সদস্যের উদ্যোগে চালু হচ্ছে ‘আক্তারুজ্জামান বাবু অক্সিজেন ব্যাংক’শনিবার (০৩ জুলাই) দুপুরে খুলনা-৬ (কয়রা-পাইকগাছা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু’উদ্যোগে জরুরি সেবা চালু করার প্রস্তুতি হিসেবে ১৬টি অক্সিজেন সিলিন্ডার পাইকগাছায় পৌঁছেছে। মুমূর্ষ রোগীর জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডারের পাশাপাশি ৫০ হাজার মাস্ক হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থাও করেছেন সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবু

সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবু’অর্থায়নে ১৬টি অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে এই সেবা কার্যক্রমে পাইকগাছা কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের সার্বিক তত্বাবধানে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। হটলাইন নম্বরে ফোন করলে ছাত্রলীগের কর্মীরা মুমূর্ষ রোগীর বাড়িতে অক্সিজেন পৌঁছে দিবেন। পর্যায়ক্রমে প্রয়োজনের তাগিদে এই কার্যক্রমে আরও অক্সিজেন সিলিন্ডার যুক্ত হবে বলে জানিয়েছেন সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবু

সাতক্ষীরার তালায় উপজেলা প্রশাসনের সাথে এমপি’মতবিনিময়

ইলিয়াস হোসেন, তালা

শনিবার (জুলাই) সকালে সাতক্ষীরার তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে লকডাউনে চলমান বিধি নিষেধ সংক্রান্ত বিষয়ে উপজেলা প্রশাসনের সাথে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার তারিফ-উল-হাসানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা-১ (তালা-কলারোয়া) আসনের সংসদ সদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ।

সময় তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার, সাতক্ষীরা জেলা দায়িত্বপ্রাপ্ত সেনাবাহিনী কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন শেখ শামস জুবায়ের, তালা শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এনামুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ ওবায়দুল হক, তালা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রণব ঘোষ বাবলু, তালা থানার এসআই চন্দন কুমার মন্ডলসহ সেনাসদস্যবৃন্দ  স্থানীয় সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। পরে সংসদ সদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ তালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকবৃন্দের সাথে করোনা মহামারীর এই সময়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা সংক্রান্ত বিষয়ে মতবিনিময় করেন। তালা উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রাজীব সরদার, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এনামুল ইসলামসহ চিকিৎসক  স্বাস্থ্য কর্মীরা সময় উপস্থিত ছিলেন।

মোংলায় এনটিভির বর্ষপূর্তিতে মাস্ক ফলজ গাছ বিতরণ

মোংলা প্রতিনিধি

দর্শক নন্দিত বেসরকারী জনপ্রিয় টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভি’বর্ষপূর্তিতে মোংলায় মাস্ক ফলজ গাছ বিতরণ করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির ১৯ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে জুলাই শনিবার সকাল ১১টার দিকে পৌর শহরের কমিশনার সফিউল্লাহ সড়কে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার ৫শ মানুষের মাঝে এনটিভির পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। সেই সাথে দুইটি করে আম কাঠাল গাছ রোপণের জন্য দেয়া হয়েছে মোংলা সরকারী কলেজ, পৌর বন্দর কবরস্থান, নেছারিয়া খানকা শরীফ সিদ্দিকিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা, কাইনমারী জামে মসজিদসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে। মাস্ক গাছের চারা বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার, পৌর কোস্টগার্ড কন্টিনজেন্টের চীফ পেটি অফিসার আঃ বারী, মোংলা সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম সরোয়ার, প্রেসক্লাব সভাপতি মনিরুল হায়দার ইকবাল, সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন সাবেক সহ-সভাপতি নিজাম উদ্দিনসহ স্থানীয় সংবাদকর্মীরা।

দাকোপে ৬০০ পরিবারের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরন

দাকোপ (খুলনা) প্রতিনিধি 

খুলনার দাকোপে মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়া স্বল্প আয়ের ৬০০ পরিবারের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে প্রধান মন্ত্রীর দেয়া ত্রান সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার বেলা ১২টায় উপজেলার সুতারখালী কামারখোলা ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে পৃথক ভাবে ত্রান সামগ্রী দেওয়া হয়। ত্রান সামগ্রীর মধ্যে ছিলো চাউল, ডাউল, তেল, লবণ। সুতারখালী ইউপি চেয়ারম্যান মাসুম আলী ফকির কামারখোলা ইউপি চেয়ারম্যান পঞ্চানন মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পৃথক সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মিন্টু বিশ^াস। বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) শেখ আব্দুল কাদের, পরিসংখ্যান কর্মকর্তা গোষ্ট বিহারী দাস। এসময়ে সকল ইউপি সদস্য এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

ফুলতলায় ৪৭ রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার ইসরাফিলের আদালতে স্বীকারোক্তি

স্টাফ রিপোর্টার

খুলনা জেলার ফুলতলা থানাধিন মিমু জুট মিলের পশ্চিম পার্শ্বের নাওদাড়ি সড়ক থেকে ৪৭ রাউন্ড পয়েন্ট টুটু বোরের গুলিসহ গ্রেফতার ইসরাফিল সরদার (১৯) আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন।

শনিবার (জুলাই) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আসামিকে আদালতে হাজির করেন। এসময় ইসরাফিল সরদারের দেয়া ফৌজদারী কার্যবিধির ১৬৪ ধারার জবানবন্দি সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আলিফ রহমান রেকর্ড করেছেন। ইসরাফিল সরদার নাউদাড়ি গ্রামের ইউনুচ আলী সরদারের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওসি তদন্ত মোস্তফা হাবিবুল্লাহ নাউদাড়ি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। এসময় উপজেলার মিমু জুট মিলের পশ্চিমপার্শ্বের নাওদাড়ি সড়ক থেকে ৪৭ রাউন্ড পয়েন্ট টুটু বোরের পিস্তল/রিভলবারের গুলিসহ ইসরাফিল সরদারকে গ্রেফতার করা হয় এবং অস্ত্রসহ অপরব্যক্তি পালিয়ে যায়। ঘটনায় এসআই মধুসূধন পান্ডে বাদী হয়ে ফুলতলা থানায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করেন যার নং-১।

ফ্রি অক্সিজেন সার্ভিস দিচ্ছে খুলনা জিলা স্কুল এলামনাই এসোসিয়েশন

খবর বিজ্ঞপ্তি

মহানগরী এলাকায় করোনায় আক্রান্ত অসহায় মানুষদের ফ্রি অক্সিজেন সার্ভিস দিচ্ছে খুলনা জিলা স্কুল এলামনাই এসোসিয়েশন। জুন শনিবার বিকেলে নগরীর রূপসা এলাকার রইসউদ্দিনকে সিলিন্ডার প্রদানের মাধ্যমে তাদের কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদবোধন হয়েছে। অক্সিজেনের অভাবে একটা তাজা প্রাণ যেন ঝরে না যায়- এই শ্লোগানকে ধারণ করে শুরু হয়েছে তাদের কার্যক্রম। তাদের ঠিকানা নগরীর ইসলামপুর রোড, দোলখোলার হোটেল বিলাসী ভবন। সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে ফ্রেন্ডস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন। অক্সিজেন সেবা প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন রেজাউল কবীর দুলাল, এ্যাড. এম এম সাজ্জাদ আলী, শেখ মাহবুবুর রহমান, মোস্তফা কামাল চৌধুরী, সাজ্জাদুর রহিম পান্থ, আশরাফ হোসেন, শেখ আব্দুস সালাম বাদশা, মানস রায়, আল জামাল ভূঁইয়া, সিরাজুল ইসলাম লিটন প্রমুখ।

১১০ বছরের বৃদ্ধর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

মনিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি :

মনিরামপুরে রতন বিশ্বাস নামে ১১০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হয়েছে। স্বজনদের দাবি বৃদ্ধ নিজ ঘরের বারান্দার চালার সাথে গামছা পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়েছেন। এই ঘটনায় শনিবার দুপুরে থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। বিকেলে পুলিশ বৃদ্ধর লাশ মর্গে পাঠিয়েছে। বৃদ্ধ উপজেলার হরিদাসকাঠি ইউপির ভুলবাড়িয়া গ্রামের বাসুন্দা। তার আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বিপদ ভঞ্জন পাড়ে বলেন, বৃদ্ধর এক ছেলে তিন মেয়ে। ছেলে ভারতে থাকেন। তিন মেয়ে সম্পত্তি বেচে নিয়ে গেছেন। বৃদ্ধর স্ত্রী না থাকায় ভাইপোরা তাঁকে খেতে দিতেন। বৃদ্ধ আলাদাভাবে নিজের ঘরে থাকতেন। শুক্রবার রাতের কোন একসময় তিনি বারান্দার চালার সাথে গামছা জড়িয়ে ফাঁস দিয়েছেন। সকালে বাড়ির লোকজন তার মরদেহ দেখতে পান। চেয়ারম্যান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ এসে লাশ মর্গে নিয়ে গেছে। মনিরামপুর থানার ডিউটি অফিসার এএসআই মিরা খাতুন বলেন, এই ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

তালায় রহস্যজনক প্রাইভেটকার উদ্ধার

তালা প্রতিনিধি

সাতক্ষীরার তালায় রহস্যজনক অবস্থায় পড়ে থাকা একটি সাদা রঙের প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো ক- ০৪-০৫৪৯) উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (জুলাই ) বিকেল ৩টার দিকে তালা উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের চাঁদকাটি বাজার থেকে প্রাইভেটকারটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা সুমন কুমার কর্মকার জানান, কিছুদিন আগে রাতের আধারে কে বা কারা প্রাইভেটকারটি ফেলে যায়। এরপর থেকে সেটি ওই স্থানেই পড়ে ছিল। কিন্তু গাড়িটি কেউ নিতে আসেনি। গাড়ির মালিক কে বা এখানে কীভাবে এলো তাও আমরা জানি না। বিষয়ে সন্দেহ হলে তালা থানায় খবর দেয়া হয়। পরে পুলিশ এসে গাড়িটি নিয়ে গেছে। তালা থানার এসআই পিযুষ কান্তি ঘোষ জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে গাড়িটি উদ্ধার করে থানায় নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রাথমিক তদন্তে গাড়ির ভেতরে কাগজপত্র বা সন্দেহজনক তেমন কিছুই পাওয়া যায়নি। বিষয়ে তদন্ত চলছে।

মাথাভাঙ্গা নদীতে গোসলে নেমে যুবকের মৃত্যু

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গা মাথাভাঙ্গা নদীতে গোসল করতে নেমে মঈনুর রহমান মুন্না (২৭) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। মঈনুর রহমান চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার হাটকালুগঞ্জ আব্দুল মমিনের ছেলে। সে আমেরিকান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের প্রভাষক।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবার (জুলাই) দুপুর ২টার দিকে মঈনুর রহমানসহ একই পাড়ার তার দুই বন্ধু শফিউর রহমানের ছেলে সবুজ (২৫) এবং ইসমাইল হোসেনের ছেলে মমিনুল ইসলাম (৩০) বাড়ির পার্শবর্তী মাথাভাঙ্গা নদীতে গোসল করতে নামে। এসময় ওই তিনজনই সাতার না জানায় নদীর স্রোতে ভেসে যায়। এক পর্যায়ে সবুজ মমিনুল চেষ্টা করে পাড়ে উঠলেও মঈনুর রহমান পানিতে ডুবে যায়। এসময় চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিস খবর দেয় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা তার মরদেহ উদ্ধার করে।

চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক রফিকুজ্জামান জানান, দুপুর ৩টায় খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করতে না পেরে খুলনা ফায়ারসার্ভিসের ডুবুরি দলকে খবর দেয়া হয়। খুলনা ফায়ার সার্ভিসের তিন সদস্যদের একটি ডুবুরি টিম সন্ধ্যা ৬টার মরদেহ উদ্ধার করে।

যশোরে ২৪ ঘণ্টায় করোনা-উপসর্গে ১৪ জনের মৃত্যু

যশোর প্রতিনিধি

যশোরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে করোনায় আটজন উপসর্গ নিয়ে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। একইসময় জেলায় ৭২০ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ২৫০ জনের। এছাড়া যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে বেড়েছে করোনা আক্রান্ত উপসর্গের রোগীর চাপ। হাসপাতালে ১৪০টি শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি রয়েছেন ২০২ জন। শনিবার (জুলাই) যশোর সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য কর্মকর্তা ডা. মো. রেহেনেওয়াজ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার যবিপ্রবির জিনোম সেন্টারে করা ৭১৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৫০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে চারজনের নমুনা পাঠানো হলেও সবগুলোই ফল এসেছে নেগেটিভ। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় জিন এক্সপার্ট র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনে কোনো নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি। শনাক্তের হার ৩৫ শতাংশ।

একইসময় করোনায় আক্রান্ত হয়ে জেলায় আটজনের মৃত্যু হয়েছে। নিয়ে জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৬২ জনে। আর জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৩৭ জন সুস্থ হয়েছেন হাজার ৪৬৯ জন। এদিকে করোনা রোগীর চাপ বেড়েছে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে।

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আরিফ আহমেদ জানান, করোনায় আক্রান্ত হয়ে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আটজন। এছাড়া উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে ছয়জনের। যশোর হাসপাতালে করোনা রোগীদের জন্য নির্ধারিত রেডজোনে ১১৮ শয্যার বিপরীতে এখন ভর্তি রয়েছেন ১৩০ জন। আর উপসর্গ নিয়ে ইয়েলোজোনে ২২ শয্যার বিপরীতে ভর্তি রয়েছেন ৭২ জন। হাসপাতালের রেডজোনে ২৩টি শয্যা বাড়ানোর প্রক্রিয়া চলছে বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।

যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী সায়েমুজ্জামান জানান, যশোরে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে কঠোর বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে প্রশাসনের তৎপর রয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে মাঠে সেনাবাহিনী বিজিবির সদস্যরাও রয়েছেন।

খুলনায় বেড়েছে সবজির দাম, মাছ-মাংস স্থিতিশীল

স্টাফ রিপোর্টার

লকডাউনের অজুহাতে খুলনায় দাম বেড়েছে সবজিসহ নিত্যপণ্যের। কোনো ধরনের ঘাটতি না থাকলেও দুই একদিনের ব্যবধানে সর্বোচ্চ ২০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে কোনো কোনো সবজির দাম। নিয়ে ক্রেতাদের মাঝে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে।

খুলনার কয়েকটি বাজারে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, বাজারে সবচেয়ে দাম বেড়েছে বেগুনের। ২০ টাকার বেগুন এখন ৬০-৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া বরবটি ৫০ টাকা, কাকরোল ৬০ টাকা, উচ্ছে ৬০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, কুশি ৪০ টাকা, ঝিঙে ৪০ টাকা, কুমড়া ৩০ টাকা, পেঁপে ৩০ টাকা কাঁচা কলা ২৫ টাকা হালিতে বিক্রি হচ্ছে। নগরীর জোড়াকল বাজারে বাজারে আসা আসাদুজ্জামান, ইলিয়াস, জাহানারা বলেন, কোনো অজুহাত পেলেই বিক্রেতারা দাম বাড়ানোর পায়তারা করেন। এভাবে দাম বাড়তে থাকলে মানুষকে না খেয়ে থাকতে হবে।

এই বাজারের বিক্রেতা আইউব আলী, রাসেল, রানা, মুজাম হাওলাদার বলেন, দাম না বাড়িয়ে কোনো উপায় নেই। বাজারে নিত্যপণ্যের সরবরাহ খুব কম। পাইকারি বাজারে গিয়ে মালামাল পাওয়া যাচ্ছে না। তার ওপর যানবাহনের ভাড়া অনেক বেড়েছে। তাই কাঁচামালের দামও সামান্য বেড়েছে।

এদিকে সরবরাহ কম থাকলেও স্বাভাবিক রয়েছে মাছ মাংসের দাম। চিংড়ি মাছ কেজি প্রতি ৪০০-৫০০ টাকা, রুই মাছ ৩০০ টাকা, কাতলা মাছ ২৫০ টাকা, টেংরা মাছ ৩৫০-৪০০ টাকা, পারশে মাছ ৪০০ টাকা, পাঙ্গাশ মাছ ১৫০ টাকা তেলাপিয়া ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া ডিমের দাম হালি প্রতি ৩০-৩৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। জেড়াকল বাজারের চাল বিক্রেতা শাহিন, আবু বক্কর, সেলিম মোল্লা বলেন, বাজারে চালের কোনো ঘাটতি নেই, ৪৫ থেকে শুরু করে ৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের চাল।

কুষ্টিয়ার করোনা হাসপাতালে জনের মৃত্যু, শয্যার চেয়ে বেশি রোগী

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় উপসর্গ নিয়ে করোনা হাসপাতালে আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে করোনায় তিনজন উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২২৯টি নমুনা পরীক্ষায় ৯৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪১ দশমিক ৪৮ ভাগ।

শনিবার (জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. এম মোমেন তথ্য নিশ্চিত করেন। এদিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে রেকর্ড সংখ্যক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ২৫০ বেডের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে এখন শয্যার চেয়ে করোনা রোগীর সংখ্যা বেশি। করোনা উপসর্গ নিয়ে শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭৭ জনে। আগের দিন যেখানে রোগীর সংখ্যা ছিল ২৪৩ জন।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. তাপস কুমার সরকার বলেন, ‘শয্যা না থাকায় রোগীদের বারান্দার মেঝেতে রাখতে হচ্ছে। প্রতিদিনই হাসপাতালে রোগী বাড়ছে। চাপ সামাল দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। অবস্থা অব্যাহত থাকলে হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেয়া কঠিন হবে।’

অপরদিকে গোটা জুন মাসজুড়ে কুষ্টিয়া জেলায় করোনা ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। গেল মাসের ৩০ দিনে কুষ্টিয়ায় করোনা শনাক্ত হয়েছে হাজার ৭২ জনের। যেখানে জেলায় এখন পর্যন্ত মোট শনাক্তের সংখ্যা হাজার ১৮৭ জন। আর মাসে করোনায় মারা গেছেন ৯৯ জন। যেখানে জেলায় করোনায় পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২২১ জনের। এদিকে রোগীর চাপ সামাল দিতে জুন ২৫ থেকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালকে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়।

কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডা. এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘জুন মাসে জেলায় করোনা পরিস্থিতি ভয়ংকর হবে এটা আমরা ধারণা করেছিলাম। তবে এত বেশি খারাপ অবস্থা হবে এটি আমাদের ভাবনার বাইরে ছিল। সামাজিক দূরত্ব না মানা মাস্ক পরিধান না করায় জেলায় এখন করোনার কমিউনিটি ট্রেনজেকশন দেখা দিয়েছে। কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ছাড়া থেকে বের হওয়ার কোনো পথ নেই।’

অন্যদিকে, কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ২২৯টি নমুনা পরীক্ষায় ৯৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪১ দশমিক ৪৮ ভাগ। নিয়ে জেলায় করোনায় মোট আক্রান্ত হাজার ২৮২ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন হাজার ৬৮৯ জন। আর করোনায় জেলায় মৃত্যু হয়েছে ২২১ জনের।

নতুন করে শনাক্তদের মধ্যে কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় সর্বাধিক ৭৮ জন, দৌলতপুরে একজন, কুমারখালীতে তিনজন, ভেড়ামারায় দুজন, মিরপুরে পাঁচজন খোকসায় ছয়জন রয়েছেন।

এছাড়া বর্তমানে কুষ্টিয়ায় সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা হাজার ৩৬৮ জন। এদের মধ্যে হাসপাতালে আইসোলেশনে ২৬১ জন হোম আইসোলেশনে রয়েছেন হাজার ১০৭ জন।


Post Views:
3



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি
সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102