বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ১১:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
গ্লোবাল অ্যাকসেসিবিলিটি অ্যাওয়ারনেস ডে উদযাপিত এবং সম্মাননা প্রদান – টেক শহর মোরেলগঞ্জ ফেরিঘাটে ৫০০পিচ ইয়াবাসহ এক নারী আটক ঝড়ে নৌকাডুুবি, নিজের জীবন দিয়ে ছেলেকে বাঁচালেন বাবা! অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে গিয়ে বিপাকে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ শরণখোলায় শ্রমিক দলের কমিটি বিলুপ্ত! শরণখোলায় জলাবদ্ধতা নিরসন, নদী ও বেড়িবাঁধ ভাঙনরোধে আগাম পরিকল্পনা গ্রহন! সাঁতার শেখা শুরু করেছেন খালেদা জিয়া ও ড. মুহাম্মদ ইউনূস স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নামে ছাত্রলীগ সহসভাপতির চাঁদাবাজি! পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক নিয়োগ ২০২২-ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্য ব্যাংকে ১২৬ পদে চাকরি ⋆ KFPlanet র‍্যাবের করা সিলগালা হাসপাতালেই অপচিকিৎসায় শিশু আতিকার মৃত্যু

শরণখোলায় কোরবানীর পশু নিয়ে বিপাকে খামারীরা!

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৬ জুলাই, ২০২১

সুন্দরবন ডেক্স: দেশ জুড়ে চলমান লকডাউনে বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার সকল হাট-বাজার বন্ধ থাকায় আসন্ন কোরবানীর পশু বিক্রি নিয়ে বিপাকে পড়েছেন ক্রেতা, খামারি ও ইজারাদার।

এছাড়া লাখ লাখ টাকায় পশুর হাটের ইজারা নিয়ে বিপাকে পড়েছেন উপজেলার একাধিক ইজারাদার। কারন কোরবানির পশুর হাটই তাদের আয়ের একটা বড় উৎস। করোনা প্রকোপ বৃদ্ধির কারনে চলতি বছর উপজেলায় পশুর হাট না বসার কারনে লোকসানের আশঙ্কায় রয়েছেন সংশ্লিষ্ট ইজারাদারা।

তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে পশুর হাট বসানোর দাবি তাদের। উপজেলার আমড়াগাছিয়া বাজারের পশুর হাটটি শরনখোলা উপজেলার মধ্যে অন্যমত। সপ্তাহে দুই দিন হাট বসে এখানে। কোরবানির আগে থেকেই জমে ওঠে এই হাট।

প্রতি হাটে ৬০০ থেকে ৭০০ গরু-ছাগল কেনা-বেচা হয় এখানে কিন্তু করোনার কারনে ওই হাট সহ উপজেলার সকল পশুর হাট বন্ধ রয়েছে। যার কারনে হতাশ পড়েছেন ব্যাবসায়ী সহ ইজারাদার সংশ্লিষ্টরা।

উপজেলার কয়েক জন ব্যবসায়ী জানান, কোরবানির আগ মুহুর্তে পশু বেচা-কেনা করে তারা বছরে অনেক টাকা আয় করতেন। কিন্তু করোনার কারনে এ বছর তা করতে পারছেন না। তাছাড়া চলচে কঠোর লকডাউন।যে কারনে হতাশা গ্রস্থ হয়ে পড়েছেন তারা।

উপজেলার খেজুর বাড়িয়া এলাকার এক খামারী বলেন, বেশ কয়েক বছর ধরে তিনি কোরবানির বাজার ধরতে গরু পালন করে আসছেন। বর্তমানে তার খামারে বিক্রির মতো ৯টি গরু আছে। হাট না বসার কারনে তিনি পশু বিক্রি নিয়ে দুশ্চিন্তার মধ্যে আছেন।

আমড়া গাছিয়া পশুর হাটের ইজারাদার গ্রæপের সদস্য একজন মো. রুবেল মিয়া ও মো. মাসুদ মুন্সী বলেন, প্রায় ৫০ লাখ টাকায় তারা আমড়াগাছিয়া বাজারের হাট এ বছর ইজারা নিয়েছেন। কোরবানির হাটই তাদের আয়ের মুল উৎস। কিন্তু শুরু থেকে লকডাউন থাকায় তারা চরম লোকসানের মধ্যে রয়েছেন।

তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে পশু হাট খুলে না দিলে আমাদের (ইজারাদারদের) পথে বসতে হবে । তাই পশুর হাট খুলে দেওয়ার জন্য তারা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছেন।
উপজেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. তোফাজ্জেল হোসেন জানান, ছোট-বড় মিলিয়ে শরনখোলায় শতাধিক ক্ষুদ্র খামার রয়েছে।

ওই সব খামারিরা কোরবানির হাটে তাদের পশু বিক্রি করার চিন্তায় আছেন। কিন্তু হাট চালু না হলে তারা লোকসানের মুখে পড়বে। উপজেলা নবাগত নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খাতুনে জান্নাত বলেন, করোনা পরিস্থিতি বৃদ্ধির কারনে পশুর হাট গুলো বন্ধ রয়েছে। উর্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি পেলে হাট গুলো সীমিত আকারে খুলে দেওয়া হতে পারে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102