সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:২৩ অপরাহ্ন

সারা খুলনা অঞ্চলের খবরা খবর

  • আপডেট সময় বুধবার, ৭ জুলাই, ২০২১
  • ৫৩
সারা খুলনা অঞ্চলের খবরা খবর

খুলনা বিভাগে একদিনে শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৪০

স্টাফ রিপোর্টার

খুলনায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঊর্ধ্বমূখী। করোনায় রেকর্ড প্রাণহানির ভাঙার পর এবার বিভাগে শনাক্তের রেকর্ডও ভেঙেছে। বিভাগে এই প্রথম একদিনে শনাক্ত হয়েছে সর্বোচ্চ হাজার ৮৬৫ জনের। একই সময়ে মৃত্যু হয়েছে ৪০ জনের। এনিয়ে বিভাগে প্রাণহানি হাজার ৩০০ ছাড়াল। এরআগে সোমবার (০৫ জুলাই) খুলনা বিভাগে সর্বোচ্চ ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছিল। আর একইদিন সর্বোচ্চ হাজার ৪৭০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। মঙ্গলবার (০৬ জুলাই) বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক রাশেদা সুলতানা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের দফতর সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে খুলনায়। কুষ্টিয়ায় ১৩ জন, যশোরে ছয়জন, মেহেরপুরে তিনজন, ঝিনাইদহ, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা চুয়াডাঙ্গায় একজন করে মারা গেছেন। খুলনা বিভাগের মধ্যে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় চুয়াডাঙ্গায় গত বছরের ১৯ মার্চ। করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিভাগের ১০ জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ৬৩ হাজার ৮৯৯ জন। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন হাজার ৩০৫ জন। সময় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪১ হাজার ৪৭ জন। বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের জেলাভিত্তিক করোনা সংক্রান্ত তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩৪৯ জনের। পর্যন্ত জেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৬ হাজার ৯৭৫ জনের। সময় মারা গেছেন ৩২৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১১ হাজার ৭০২ জন।

বাগেরহাটে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১২৭ জনের। নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে হাজার ২১ জনের। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৯২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন হাজার ৭১৯ জন।

সাতক্ষীরায় ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ১১৩ জন। নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে হাজার ৮৫৩ জন এবং মারা গেছেন ৭৫ জন। সময় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন হাজার ৭৭২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় যশোরে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ২৭৯ জন। নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৩ হাজার ৮০০ জন। মোট মারা গেছেন ১৮১ জন এবং সুস্থ হয়েছেন হাজার ৪৭০ জন।

২৪ ঘণ্টায় নড়াইলে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৭৩ জন। নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে হাজার ১০৬ জন। মোট মারা গেছেন ৫০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন হাজার ২১৪ জন।

মাগুরায় ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৪৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে হাজার ৭৮১ জন। মোট মারা গেছেন ৩০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন হাজার ৩৩৯ জন।

ঝিনাইদহে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ২৩০ জন। নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে হাজার ২০ জন। মোট মারা গেছেন ১০৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন হাজার ৯৯ জন।

২৪ ঘণ্টায় কুষ্টিয়ায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৪৩১ জন। নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে হাজার ১৯৭ জন। মোট মারা গেছেন ২৭৫ জন এবং সুস্থ হয়েছেন হাজার ১৮ জন।

চুয়াডাঙ্গায় ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ১৪০ জন। নিয়ে জেলায় মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে হাজার ৯৪৫ জন। মোট মারা গেছেন ১০১ জন এবং সুস্থ হয়েছেন হাজার ৩৪৬ জন।

মেহেরপুরে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৭৫ জন। নিয়ে জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে হাজার ২০১জন। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৫ জন এবং সুস্থ হয়েছেন হাজার ৩৮৮ জন।

নগর শিক্ষা নিয়ে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনেস্কোর গবেষণা প্রকল্পের কাজ

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় সম্প্রতি ইউনেস্কো আন্তর্জাতিক শিক্ষা পরিকল্পনা ইনস্টিটিউট (আইআইইপি-ইউনেস্কো) এর ‘লোকাল চ্যালেঞ্জেস, গ্লোবাল ইমপেরেটিভস: সিটিস এ্যাট দ্যা ফোরফ্রন্ট টু এ্যাচিভ এডুকেশন’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রোগ্রামে কাজ করার লক্ষ্যে চুক্তি বদ্ধ হয়েছে। যুক্তরাজ্যের ইউকেআরআই এর গবেষণা তহবিল জিসিআরএফ এর অর্থায়নে পরিচালিত আন্তর্জাতিক কনসোর্টিয়াম, টেকসই, স্বাস্থ্যকর শিক্ষাবান্ধব নগর মহল্লা (এসএইচএলসি), এর সক্ষমতা বৃদ্ধি তহবিল (সিডিএএফ) এর আওতায় বাংলাদেশে প্রোগ্রামটি পরিচালিত হবে।

ইউনেস্কো আন্তর্জাতিক শিক্ষা পরিকল্পনা ইনস্টিটিউটের সহযোগিতায় প্রোগ্রামটি এসএইচএলসি এর অংশীদার দেশ বাংলাদেশ, ফিলিপিন এবং রুয়ান্ডা সহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে শিক্ষা পরিকল্পনা এবং পরিচালনায় শহরের ভূমিকা পর্যালোচনা করবে। গবেষণার মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সমস্যা সনাক্ত করে কার্যকর শিক্ষা পরিকল্পনা এবং পরিচালনার ফলপ্রসূ কৌশল প্রণয়ন করা যাবে। প্রোগ্রামটি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শিক্ষা সংক্রান্ত নীতিমালা পরিকল্পনা এবং শিক্ষাবান্ধব শহর তৈরিতে গুরুত্ব¡পূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ইউনেস্কো আন্তর্জাতিক শিক্ষা পরিকল্পনা ইনস্টিটিউটের ক্যান্ডি লুগাজ এবং ক্লো চিমিয়ার এর পরিচালনায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর গ্রামীণ পরিকল্পনা ডিসিপ্লিনের সহযোগী অধ্যাপক ড. শিল্পি রায় বাংলাদেশে এই গবেষণার নেতৃত্ব দেবেন। বাংলাদেশের ঢাকা খুলনা দুটি শহরের উপর এই গবেষণাটি পরিচালনা করা হবে।

রূপসায় শোকাহত আওয়ামী পরিবারের পাশে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা জামাল।

খবর বিজ্ঞপ্তিঃ

রূপসা উপজেলার প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মরহুম খালেক মাতোব্বর এর স্ত্রী এবং খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. খন্দকার মুজিবর রহমানের শাশুড়ি করিমুন নেছা (৮০) গতকাল সকাল ৮.০০ টায় মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না ইলাহি ….. রাজিউন)তার মৃত্যুর খবর শুনে রূপসার আইচগাতিস্থ বাসভবনে শোকাহত পরিবারের পাশে ছুটে যান  এবং মুরহুমার নামাজে জানাযায় অংশগ্রহণ করেন খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক খুলনা জেলা যুবলীগ সভাপতি মোঃ কামরুজ্জামান জামাল। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা কৃষকলীগের সভাপতি অধ্যাঃ আশরাফুজ্জামান বাবুল, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোঃ জামিল খান, রূপসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার আবুল কাসেম ডাবলু, খুলনা মহানগর যুবলীগের আহবায়ক শফিকুর রহমান পলাশ, শেখ মনিরুজ্জামান মনি, বিধান চন্দ্র রায়, শামীম হাসান তুহিন, জহির রায়হান, আল মোমিন লিটন, হাফিজুর রহমান হাফিজ, তাপস জোয়ার্দার, তানভীর রহমান আকাশ, চিশতি নাজমুল বাসার স¤্রাট, আবু আহাদ বাবু, ইমন, হৃদয় প্রমুখ।

শরণখোলায় এ্যাড. আমিরুল আলম মিলন অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্বোধন

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

শরণখোলায় এ্যাড. আমিরুল আলম মিলন অক্সিজেন ব্যাংকের আত্মকাশ করেছেন। গতকাল বিকালে শরণখোলা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে উপজেলা পরিষদ চেয়াম্যান রায়হান উদ্দিন শান্ত প্রধান অতিথি হিসাবে অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

শরণখোলায় এ্যা.আমিরুল আলম মিলন অক্সিজেন ব্যাংকের সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন খোকনের সভাপতিত্বে জিয়াউল হাচান তেনজিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ফরিদা ইয়াসমিন, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আজমল হোসেন মুক্তা, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান মিলন, আওয়ামীলীগ নেতা এম.রশিদ খান আকন, একরামুল কবির কিচলু, শরণখোলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইসমাইল হোসেন লিটন, সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম, সাংবাদিক নজরুল ইসলাম,  যুবলীগ নেতা আজিজুল ইসলাম সবুজ, ইমরান হোসেন রাজীব, শ্রমিক লীগ নেতা তাইজুল ইসলাম মিরাজ প্রমুখ। পরে নেতৃবৃন্দ অক্সিজেনের ৩টি সিলিন্ডার উপজেলা কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট সমিতির নিকট হস্তান্তর করেন।

ডুমুরিয়ায় সাংবাদিক জাহাঙ্গীর এর দিনব্যাপী গনসংযোগ অব্যাহত

ডুমুুরিয়া প্রতিনিধি

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ডুমুরিয়া সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ণ প্রত্যাশী উপজেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাহাঙ্গীর আলম গতকাল মঙ্গলবার দিনব্যাপী নানা কর্মসূচীতে অংশ গ্রহন করেন। খলশী গ্রামের মোড়লপাড়া গোলদারপাড়া শতাধিক পরিবার দীর্ঘদিন পানিবন্দি। গতকাল মঙ্গলবার সকালে এলাকাবাসী সেচ্ছাশ্রমে ৩/৪’ফুট ড্রেন তৈরি করে পাইপ বসিয়ে পানিবন্দির হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। এলাকাবাসীর সাথে সাংবাদিক জাহাঙ্গীরও সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সেচ্ছাশ্রমে তাদের সাথে কাজ করেন আর্থিকভাবে সামান্য সহযোগিতা করেন। পরে তিনি খলশী গ্রামে আহত বাবর আলী শেখকে দেখতে তার বাড়িতে যান। বিকেলে পূর্ব ডুমুরিয়ায় হাফিজ গাজীর ছেলে অসুস্থ শাহিন গাজীর চিকিৎসার খোজঁ নিতে তাদের বাড়িতে যান। এছাড়া সন্ধ্যায় গোলনায় সকল শ্রেনী পেশার মানুষের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।  এসময়ে উপস্থিত ছিলেন, রফিকুল ইসলাম শেখ, জাহিদ শেখ, বিল্লাল শেখ, ব্যাপারি আইয়ুব আলী, নওশের সরদার, আজমত শেখ, আব্দুল হালিম ঢালী, শওকত ঢালী, রিজাউল শেখ,  আতিয়ার শেখ, সুমন শেখ, কবির মোড়ল, ইনামুল হালদার, পলাশ রায়, বাধঁন মন্ডল, সুব্রত বিশ্বাস, হারুনুর রশীদ বাবু, এস কে বাপ্পি, প্রমুখ।

ফকিরহাটে ভ্রাম্যমান আদালতে ১জনের জেল, দোকানে জরিমানা

ফকিরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের ফকিরহাটে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউন অমান্য করে দোকানপাট খুলে কেনাবেচা করা অকারনে ঘুরাঘুরি করার অপরাধে প্রদ্বিপ কুমার দাশ নামের একজনকে তিনদিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড ৫টি ফলের দোকানে মোট ২২হাজার টাকা জরিমান প্রদান করে তা আদায় করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার কাটাখালী বাসস্ট্যান্ডে এই ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সানজিদা বেগম। এসময় পুলিশ প্রশাসন সহ অন্যান্যরা আদালতকে সহযোগীতা করেন (পিকেএ)

ফকিরহাটে করোনায় ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুজনের মৃত্যু

ফকিরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের ফকিরহাটে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নতুন করে আরও দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মানসা এলাকার সুব্রত পাল সুখ (৫৩) আড়–য়াডাঙ্গা গ্রামের সরদার শরিফুল ইসলাম (৫২) করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এছাড়া করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে এক নারী সহ দুই জন। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. অসিম কুমার সমাদ্দার জানান, ফকিরহাটে করোনা আক্রান্ত হয়ে পর্যন্ত ২৫জনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বলেন মঙ্গলবার নমূনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৪০শতাংশ। এদিকে কঠোর লকডাউনের ৬ষ্ঠ দিনে ফকিরহাট সদর এলাকার প্রধান বাজারের চারপাশে বাঁশ দিয়ে প্রবেশ পথ বন্দ করে রেখেছে। যাতে বাজারের ভিতর কোন যানবাহন চলাচল করতে না পারে। ফকিরহাটে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে তৎপর রয়েছে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট, সেনাবাহিনী সহ পুলিশ প্রশাসন। করোনা প্রতিরোধে বিভিন্ন এলাকায় টহল দিচ্ছে আইন শৃংখলা বাহিনী। বিধি নিষেধ অমান্য করলে তাকে জরিমানা করছে ভ্রাম্যমান আদালত। তবে অত্র অঞ্চলে করোনা সংক্রমণ মৃত্যু বেড়ে গেলেও কেউ মানছেন না স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি। আইনশৃংখলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন অজুহাতে মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছেন(পিকেএ)

সার্বিক লকডাউনের পাঁচ দিনে বাগেরহাটে ৪৭০ মামলা, সোয়া দুই লক্ষ টাকা জরিমানা

স্টাফ রিপোটার,বাগেরহাট

সরকার ঘোষিত সার্বিক লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে বাগেরহাটের প্রশাসন। স্থানীয় প্রশাসনের পাশাপাশি পুলিশ, সেনা বাহিনী বিজিবি সদস্যরা কাজ করছে মাঠে। সার্বিক লকডাউনের প্রথম পাঁচ দিনে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বাগেরহাটে ৪৭০ মামলা, লক্ষ ১৭ হাজার ৬৩৫ টাকা জরিমানা ১১ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।১লা জুলাই থেকে জুলাই রাত পর্যন্ত বাগেরহাট জেলা প্রশাসণের নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট এবং বিভিন্ন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তারা এই অভিযান চালিয়ে এই জরিমানা দন্ডাদেশ দেয়। লকডাউন বাস্তবায়ন, স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনায় পুলিশের পাশাপাশি, বিজিবি সেনাবাহিনীর সদস্যরা সহযোগিতা করছেন।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ আজিজুর রহমান বলেন, প্রথম দিন থেকেই জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সরকার ঘোষিত লকডাউন বাস্তবায়নে কাজ করা হচ্ছে। মাইকিং, মাস্ক বিতরণ জনগণকে সচেতন করতে নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এসবের পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতও পরিচালনা করা হচ্ছে। গেল পাঁচ দিনে ৪৭০ মামলা করা হয়েছে। এই সময়ে ৪৮৯ জনকে লক্ষ ১৭ হাজার ৬৩৫ টাকা জরিমানা এবং ১১জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। এসব কাজে পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি সেনা সদস্যরা আমাদেরকে সহযোগিতা করছে।

বটিয়াঘাটার গঙ্গারামপুর ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য উপহার সামগ্রী বিতরণ

বটিয়াঘাটা  প্রতিনিধি

বটিয়াঘাটার গঙ্গারামপুর ইউনিয়নে  গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১ টায় স্থানীয় পরিষদ চত্বরে মহামারী করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় কঠোর লকডাউনে কর্মহীন বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের মাঝে বিনামূল্যে প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলামের উপস্থিতিতে সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে উক্ত উপহার সামগ্রী  বিতরণ করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রুখতে স্বাস্থ্য বিধি মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ৬০ টি পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, তেল,আলু ইত্যাদি সামগ্রী বিতরণ করা হয়। উপহার সামগ্রীতে উপজেলার  ৭টি ইউনিয়নে ইউনিয়ন প্রতি লক্ষ ৫০ হাজার টাকা করে শত ৫০ জনের মাঝে জন প্রতি হাজার টাকার  খাদ্য সামগ্রী বিতরণ চলমান থাকবে বলে  উপজেলা প্রশাসন জানায়। উপহার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা কালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান শেখ হাদি উজ-জ্জামান হাদী, ইউপি সচিব পংকজ সরকার, ইউপি সদস্য যথাক্রমে তুলসী দাস বিশ্বাস, শেখ মোশারফ হোসেন, মোঃ মনিরুল ইসলাম, স্বপন কুমার রায়, দিপ্তী রানী মল্লিক, সমাজ সেবক দুলাল মহালদার সহ সুফলভোগী বৃন্দ। অপরদিকে   বেলা সাড়ে বারোটায় স্থানীয় সুরখালী ইউনিয়নেও করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় কঠোর লকডাউনে কর্মহীন মানুষের মাঝে বিনামূল্যে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা উপহার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয় এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এল এ) মোঃ মারুফ হোসেন, নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান সরদার আব্দুল হাদী , ইউপি সদস্যবৃন্দ সুফলভোগীবৃন্দ অন্যদিকে সহকারী কমিশনার ( ভূমি) এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্টেট মোঃ আব্দুল হাই সিদ্দিকী   বেলা ১১ টায় উপজেলার বাজার সদরে  সাপ্তাহিক হাটের দিনে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে কিনা সে বিষয়ে  এক  এক ভ্রাম্যমান  আাদালত পরিচালনা  বিনামূল্যে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা উপহার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, মাস্ক বিতরণ করা হয়। সময় তিনি স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলায় ১৪ টি মামলায় হাজার শত টাকা জরিমানা আদায় করেন। আদালত পরিচালনাকালে উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রতাপ ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রজিৎ টিকাদার সহ আইন-শৃংঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যবৃন্দ উপস্হিত ছিলেন।

চুয়াডাঙ্গায় করোনায় কর্মহীনদের মাঝে খাদ্যসহায়তা বিতরণ

তথ্য বিবরণী

খুলনা বিভাগের চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নে মঙ্গলবার করোনায় কর্মহীন চারশত জনের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা বিতরণ করা হয়। জনপ্রতি ১০ কেজি চাল, এক কেজি মুসরির ডাল, এক কেজি চিনি, এক কেজি পেঁয়াজ, এক কেজি আলু মাস্ক প্রদান করা হয়।

খুলনায় আরও করোনা ভ্যাকসিন নিয়েছেন একশত ২৪ জন

তথ্য বিবরণী

মঙ্গলবার খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৬৩ জন এবং জেনারেল হাসপাতালে ৬১ জন করোনা ভ্যাকসিন প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। এর মধ্যে পুরুষ ৭৩ জন এবং ৫১ জন মহিলা। মোট তিন হাজার আটশত ৬০ জন ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন। পর্যন্ত এক লাখ ৭৯ হাজার আটশত ১৭ জন করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। যার মধ্যে সাইনোফার্মার টিকা নিয়েছেন তিন হাজার আটশত ৬০ জন। খুলনা সিভিল সার্জন দপ্তর থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসকল তথ্য জানানো হয়েছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারি-বিধি-নিষেধ প্রতিপালনে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসনের কঠোর অবস্থান

তথ্য বিবরণী

ঝিনাইদহে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জেলার সকল স্তরের জনপ্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় সভা মঙ্গলবার জুম অ্যাপসের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মোঃ মজিবর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় পুলিশ সুপার, জেলার সকল পৌরসভার মেয়র, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক, জেলা তথ্য অফিসার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সংযুক্ত ছিলেন। সভার জেলা প্রশাসক মজিবর রহমান বলেন, আমরা বীরের জাতি, আমরা হারতে জানিনা। ১৯৭১ সালে প্রশিক্ষিত পাক সেনাবাহিনীর সাথে যুদ্ধ করে আমরা স্বাধীনতার সূর্যকে ছিনিয়ে এনেছি। বর্তমানে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ফলে যে সংকট চলছে সেটিও আমরা সম্মিলিতভাবে প্রতিরোধ করতে সক্ষম হবো। জনপ্রতিনিধিগণ তাদের বক্তব্যে নিজ নিজ অধিক্ষেত্রের করোনা ভাইরাস সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে জেলা প্রশাসককে অবহিত করেন এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি সরকারি বিধি-নিষেধ লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। জেলার সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধকল্পে জেলা প্রশাসক স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, ইমাম, পুরোহিত, শিক্ষক, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, যুবসমাজ সকলের সমন্বয়ে ইউনিয়ন, ওয়ার্ড গ্রামভিত্তিক করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি গঠন করার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণকে নির্দেশ প্রদান করেন। গ্রাম-গঞ্জ, পাড়া-মহল্লার চা কিংবা মুদি দোকানের প্রতি সর্বদা নজর রাখার জন্য গ্রাম পুলিশদেরকে নির্দেশ দেন এবং সকল দোকানপাটে সরকারি বিধি-নিষেধ লঙ্ঘন করলে তা সাথে সাথে জেলা প্রশাসকের মোবাইলে ফোন করে জানানোর জন্য অনুরোধ করেন। তিনি বলেন, সরকারি বিধি-নিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসন অত্যন্ত কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণে করবে। এছাড়া গ্রামের মসজিদের মাইকে প্রতি ওয়াক্তের আযানের পূর্বে যাতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করে সেটি নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট এলাকার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সদস্যদেরকে অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, জেলাতে ত্রাণের কোন সংকট নেই, প্রয়োজন হলেই ত্রাণ বিতরণ করা হবে। কোন মানুষ যাতে খাবারের কষ্ট না পায় সেদিকে খেয়াল রাখার জন্য তিনি নির্দেশ দেন। করোনাকালীন সময়ে স্বল্প আয়ের মানুষদের খাদ্য সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে প্রকৃত হতদরিদ্র বা স্বল্প আয়ের মানুষের তালিকা প্রস্তুত করার জন্যও তিনি জনপ্রতিনিধিদের নির্দেশনা প্রদান করেন। সভায় অন্যান্যের মধ্যে পুলিশ সুপার মুসতাসিরুল ইসলাম, ঝিনাইদহ পৌরসভার মেয়র সাইদুল করিম মিন্টু, সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা: হারুন-উর-রশিদ, জেলা তথ্য অফিসার আবুবকর সিদ্দীক বক্তব্য রাখেন।

অভয়নগরে ৮২ নমুনায় করোনা পজিটিভ ৫১জনের; মৃত্যু ২জন

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি

অভয়নগরে ৮২ জনের নমুনায় করোনা পজিটিভ হয়েছে ৫১ জনের, মারা গেছেন ২জন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, সোমবার ৮২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল আজ জুলাই(মঙ্গলবার) এই রিপোর্ট হাতে এসেছে। এতে ৮২টি নমুনার মধ্যে ৫১ জনের করোনা পজিটিভ হয়েছে, এবং জন মারা গেছেন। এরা হলেন নওয়াপাড়া পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মাহমুদুর রহমান মোল্যা (৫৫) নং ওয়ার্ডের হাসিনা বেগম(৭০) এর মধ্যে মাহমুদুর রহমান আজ মঙ্গলবার সকালে হাসিনা বেগম সোমবার মারা যান। আজ সুস্থ্য হয়েছেন ৪৭ জন। উপজেলায় পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ৩৫জন। এছাড়াও করোনা আক্রান্ত হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছে ৩৭জন, উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা রেফার্ড করা হয়েছে ১৫ জন, বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছে ৩৬১ জন। পর্যন্ত সুস্থ্য হয়েছে ৮৭০ জন। পর্যন্ত মোট ৪৩৫০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে যার মধ্যে ১৩২০ জনের করোনা ধরা পড়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় উপজেলায় শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ৩৪ শতাংশ এবং মৃত্যু হার দশমিক শতাংশ।

রূপসায় একদিনে ১৩জন করোনা আক্রান্ত এবং ২৪ ঘন্টায় জনের মৃত্যু

রূপসা প্রতিনিধি  :

চলতি লকডাউনে একদিনে গত জুলাই উপজেলার ৩টি ইউনিয়নে ১৩জন করোনা পজেটিভ রোগীর নাম পাওয়া গেছে। বিভিন্ন এলাকার ২৯ জন নমুনা পরীক্ষায় ১৩জন পজেটিভ রিপোর্ট আসে এবং ২৪ ঘন্টায় একজনের মৃত্যু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তথ্য জানা যায়। ২নং শ্রীফলতলা ইউনিয়ন নন্দনপুর গ্রামের অলিউল্লাহ খন্দকারের মেয়ে সনিয়া খাতুন (২৬) পজেটিভ। ৩নং নৈহাটী ইউনিয়ন রামনগর গ্রামের শেখ হায়দার আলীর স্ত্রী নাদিরা আক্তার নদী (২৬), নেহালপুর গ্রামের সমির রায়ের ছেলে সৈয়কত রায় (২২), সামন্তসেনা গ্রামের মৃত মহিউদ্দিন ইসলামের ছেলে মো. রেজোয়ান (৫১) একই গ্রামের এমএ মালেক এর মেয়ে মেহেজাবিন অপি (২০) মো. বাকির হোসেনেরে ছেলে নুরুল হুদা চন্দন (৩২) পজেটিভ। গত ২৪ ঘন্টায় সামন্তসেনা গ্রামের নেছার উদ্দিন শেখের ছেলে শাহাবুদ্দিন শেখ (৬০) করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

৪নং টিএসবি ইউনিয়ন খাজাডাঙ্গা গ্রামের সিরাজুলের স্ত্রী শারমিন (২১), তিলক গ্রামের মো. বাবর আলীর ছেলে হুসাইন মোহাম্মদ (৩৫) একই গ্রামের মৃত বেলায়েত হোসেনের ছেলে বাদশাহ (৪০), কাজদিয়া গ্রামের আ: সত্তার সিকারীর ছেলে আইয়ুব আলী (৩০), স্বল্পবাহিরদিয়া গ্রামের জাকির মাহমুদের স্ত্রী রেকসনা (৪৭) পজেটিভ।

সিটি মেয়রের ডিজিটাল মামলায় সাংবাদিক সবুর রানার জামিন

মেহেদী হাসান (রামপাল) প্রতিনিধি

বাগেরহাটের রামপাল প্রেসক্লাবের সভাপতি যশোর থেকে প্রকাশিত দৈনিক লোকসমাজ পত্রিকার রামপাল প্রতিনিধি সাংবাদিক এম সবুর রানাকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ৩রা জুন থেকে তিনি খুলনা কারাগারে আছেন। মঙ্গলবার (জুলাই) বিচারপতি জে বি এম হাসানের নেতৃত্বাধীন একক ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এই আদেশ দেন। আদালতে সবুর রানার পক্ষে শুনানিতে অংশগ্রহণ করেন ব্যারিস্টার শেখ মো: জাকির হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

ফেসবুক স্ট্যটাসের মাধ্যমে খুলনা সিটি মেয়রকে সামাজিকভাবে হেয় করা হয়েছে-এমন অভিযোগে ২০ এপ্রিল মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক খুলনা সদর থানায় এনটিভির খুলনা প্রতিনিধি আবু তৈয়ব মুন্সি এবং রামপাল প্রেসক্লাবের সভাপতি সবুর রানার নাম উল্লেখ করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন। ওই রাতেই এনটিভির খুলনা প্রতিনিধি আবু তৈয়ব মুন্সিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তিনি ২১ দিন কারাভোগের পর জামিনে মুক্ত হন। অপর আসামি সাংবাদিক এম সবুর রানা রা জুন জামিনের জন্য আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত তার জামিন  আবেদন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পরবর্তীতে তিনি হাইকোর্টে জামিন আবেদন করলে মঙ্গলবার হাইকোর্ট তাকে জামিন দেন।

ভয়ঙ্কর অনলাইন প্রতারক সাতক্ষীরার তালার প্রদীপ ঘোষ গ্রেফতার

ইলিয়াস হোসেন,তালা(সাতক্ষীরা)::

ফেসবুকে ফেইক আইডির মাধ্যমে ভয়ঙ্কর প্রতারনার ফাঁদ পেতে মোটা অঙ্কের টাকা আতœসাতের ঘটনায় প্রদীপ ঘোষকে(৫১) গ্রেফতার করেছে যশোর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ সোমবার (জুলাই)ভোর রাতে তালার ঘোষনগরস্থ নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় এসময় তার কাছ থেকে আতœসাৎকৃত নগদ ১০ লাখ ৯৭ হাজার টাকা বিভিন্ন ডকুমেন্টস উদ্ধার করা হয়েছে।সে সাতক্ষীরা তালা উপজেলার খলিলনগর ইউনিয়নের ঘোষনগর গ্রামের সুবোধ ঘোষের ছেলে পাশর্^বর্তী উপজেলা পাইকগাছার কপিলমুনি বাজারের চা বিক্রেতা।

যশোর জেলা পুলিশের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রদীপ ঘোষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজেকে সৌমদীপ ঘোষ(সুসান্ত ঘোষ) নাম পরিচয়দিয়ে একটি ফেইক আইডি খুলে। এসময় সে নিজেকে জার্মান প্রবাসী পরিচয় দিয়ে জমি ক্রয়ের কথা বলে প্রতারনার মাধ্যমে প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা রীতা রাণী দাস এর নিকট থেকে গত জুন মাসে বিভিন্ন তারিখ সময়ে নগদ,বিকাশ চেকের মাধ্যমে মোট ২০ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা গ্রহন করে।এসময় প্রদীপ ঘোষ শিক্ষিকার কাছ থেকে জমির দলিল তৈরীর নামে এনআইডি কার্ডের ফটোকপি, পাসপোর্ট সাইেজের কপি ছবি, স্বাক্ষরযুক্ত নন জুডিশিয়াল ব্লাঙ্ক স্ট্যাম্প, স্বাক্ষরযুক্ত ৩টি চেক গ্রহন করে। এরপর শিক্ষিকা প্রতারিত হয়েছেন বুঝতে পেরে আতœসাৎকৃত টাকাসহ অন্যান্য উপকরণগুলি উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে যশোর কোতযালী মডেল থানায় একটি মামলা করেন। যার নং-৮। তারিখ-০৩/০৭/২০২১। ধারা: ৪০৬/৪১৭/৪২০/৪৬৮/৫০৬ দ:বি:।যশোর পুলিশ সুপার মামলাটির তদন্তভার জেলা গোয়েন্দা শাখায় অর্পন করলে গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ মামলাটির তদন্তার এসআই(নি:) শামীম হোসেনের উপর অর্পন করেন।

পুলিশ সুপারের সার্বিক দিক-নির্দেশনায় জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ সোমেন দাস এর তত্ত্বাবধানে এসআই মোঃ শামীম হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সসহ গোয়েন্দা শাখার একটি চৌকস টিম প্রদীপের অবস্থান শানাক্ত করে ঘটনার মূল নায়ক প্রদীপ কুমার ঘোষ ওরফে সঞ্জিত ওরফে সৌম্মদীপ ঘোষ সোমবার (জুলাই) তালার ঘোষনগরস্থ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেন।

এসময় পুলিশ তার কাছ থেকে নগদ ১০ লাখ ৯৭ হাজার টাকা, বাদীর স্বাক্ষর সম্বলিত ব্লাঙ্ক চেক, বাদীর স্বাক্ষরিত ব্লাঙ্ক নন-জুডিশিয়াল ষ্ট্যাম্প-৩টি, বাদীর এনআইডি কার্ডের ছায়ালিপি ২টি, কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, বিভিন্ন দলিলের ছায়ালিপি, ৩টি মোবাইল সেট (ফেসবুক আইডি ব্যবহৃত বিকাশ নাম্বার) সম্বলিত, প্রদীপের ১টি পাসপোর্ট, সাড়ে ভরি স্বর্ণালংকার যার আনুমানিক মূল্য লক্ষ ৮৬ হাজার টাকা উদ্ধার করে।

প্রসঙ্গত, প্রদীপ ঘোষ দীর্ঘ দিন যাবৎ পাশ^বর্তী পাইকগাছা উপজেলার কপিলমুনিতে প্রথমত চায়ের দোকান পরে ফার্স্ট ফুডের ব্যবসা করতো। সময় কপিলমুনি সদরের পালপাড়ার জনৈক অনিমেশ মন্ডলের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসাবে বসবাস করতো। সম্প্রতি সে কপিলমুনির বাজারের এক ওষুধ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে প্রায় শতক জমি ক্রয় করে বাড়ি তৈরি করে সেখানে বসবাস করেন।

তালায় নতুন করেনা আক্রান্ত ৮জন,মোট আক্রান্ত ৫৯৯

ইলিয়াস হোসেন, তালা (সাতক্ষীরা)::

সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনের ৬ষ্ঠ দিনেও সাতক্ষীরার তালায় বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে একযোগে মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী, বিজিবি, ম্যাজিষ্ট্রেট, জনপ্রতিনিধি পুলিশসহ আইনশৃখংলা বাহিনীর সদস্যরা। উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নে টহল দিচ্ছে সেনাবাহিনী। এদিকে উপজেলায় মঙ্গলবার (জুলাই) ২৫ জনের র‌্যাপিড এন্টিজেন টেস্ট করে নতুন করে জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। নিয়ে মোট করোনা পজেটিভ ৫৯৯ জন এবং মৃতঃ হয়েছে ৯  জনের।

তালা উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রাজীব সরদার বলেন, মঙ্গলাবার ২৫টি নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাস পজিটিভ এসেছে জনের। তিনি বলেন পর্যন্ত উপজেলায় সর্বমোট স্যাম্পল কালেকশন করা হয়েছে ১৪৫৯ জনের। এরমধ্যে মোট করোনা পজেটিভ ৫৯৯ জন এবং মৃতঃ হয়েছে ৯  জনের।

শেখ তন্ময়ের ‘বাগেরহাট অক্সিজেন ব্যাংক’মোংলা শাখার যাত্রা শুরু

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবায় বাগেরহাট-০২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ সারহান নাসের তন্ময় প্রতিষ্ঠিত ‘বাগেরহাট অক্সিজেন ব্যাংক’মোংলা শাখার যাত্রা শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে ‘বাগেরহাট অক্সিজেন ব্যাংক’মোংলা শাখার উদ্বোধন করা হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ শিকদার ইয়াসিন আরাফাত। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এবং উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইকবাল হোসেন। সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী মোয়াজ্জেম হোসেন রানা, সাধারণ সম্পাদক শেখ শাহরুখ বাপী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সজীব খান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল হোসেন করোনা আক্রান্ত রোগীদের অক্সিজেন ব্যাংক’মাধ্যমে সহায়তা প্রদাণের জন্য শেখ সারহান নাসের তন্ময় এমপি’প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। শুরুতেই ৫টি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে শাখার যাত্রা শুরু হয়েছে। মোংলা শাখার নির্দিষ্ট ফোন নম্বরে কল করলেই অক্সিজেন সিলিন্ডার রোগীর কাছে ফ্রি পৌঁছে দিবেন স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা।

সাতক্ষীরার দেবহাটায় ছয় মাসে ২৬ মামলায় ৩৮ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার : মাদকদ্রব্য উদ্ধার

কে এম রেজাউল করিম দেবহাটা

সাতক্ষীরার দেবহাটায় মাদকদ্রব্যের জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে রয়েছে পুলিশ। প্রতিনিয়ত উপজেলা জুড়ে চলছে পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযান। চলমান অভিযানে আইনের আওতায় আসছে মাদক কারবারীরা, কমেছে বিকিকিনি মাদকদ্রব্যের চোরাচালান। ফলে মাদক রোধে পুলিশের প্রতি আস্থা ফিরেছে সর্বসাধারণের। সোমবার (৫জুন) রাতেও অভিযান চালিয়ে আব্দুর রহিম গাজী (৪৫) নামের এক চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীকে ৫০ বোতল ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আব্দুর রহিম গাজী উপজেলার নাংলা গ্রামের মৃত রমজান গাজীর ছেলে।

দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব সাহার নেতৃত্বে সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এসআই নয়ন চৌধূরী এসআই আসিফ মাহমুদসহ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যরা অভিযান চালিয়ে জগন্নাথপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেন। পরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা (নং-০৩) দায়ের শেষে মঙ্গলবার সকালে গ্রেফতারকৃত আব্দুর রহিম গাজীকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

এছাড়া অব্যাহত মাদক বিরোধী অভিযানে গত ছয় মাসে দেবহাটা থানায় রূজুকৃত ২৬টি মাদকের মামলায় ৩৮ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পাশাপাশি এসব অভিযানে প্রায় কেজি গাঁজা, ২৮৩ বোতল ফেন্সিডিল, ৫৬৯ পিচ ইয়াবা তিন লিটার চোলাই মদও উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি বিপ্লব সাহা বলেন, দেবহাটা থানা এলাকায় মাদকের বিকিকিনি চোরাচালান রোধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে পুলিশ। মাদকের কুফল জনসম্মুখে তুলে ধরে প্রত্যেক এলাকায় জনসচেতনতা সৃষ্টিতে নিয়মিত সভা, সেমিনারের মাধ্যমে পুলিশকে সহায়তার জন্য জনসাধারণকে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

একইসাথে নিয়মিত অভিযানের মাধ্যমে মাদক কারবারীদের আইনের আওতায় আনা হচ্ছে। সময় থাকতে মাদক ব্যবসায়ীদের অবৈধ ব্যবসা ছেড়ে সুস্থ্য স্বাভাবিক জীবনে ফেরার আহ্বান জানিয়ে ওসি বলেন, যারা মাদক ব্যবসা পরিহার করে ভালো হয়ে যাবে তাদেরকে সাদরে গ্রহন করা হবে, অন্যথায় কঠোর হস্তে এসব মাদক ব্যবসায়ীদের দমন করা হবে বলেও হুশিয়ারী করেন তিনি।

মোড়েলগঞ্জে হতদরিদ্রদের খাদ্য সহায়তা পৌছে দিচ্ছেন সেনাবাহিনী

 মোড়েলগঞ্জ প্রতিনিধি :

করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে চলমান কঠোর লকডাউনে কর্মহীন হতদরিদ্র পরিবারগুলোকে খুজে খাদ্য সহায়তা পৌছে দিচ্ছেন সেনাবাহিনীর সদস্যরা। পদাদিক ডিভিশনের ২৮ পদাতিক ব্রিগেডের ৪৩ বীর এর একটি টহল দল মঙ্গলবার বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে কুঠিবাড়ি এলাকায় ৫টি পরিবারে খাদ্য সহায়তা পৌছে দেন।

বিষয়ে টহলদলের প্রধান লেফটেন্যান্ট মো. আব্দুল্লাহ্ বলেন, সেনা সদস্যরা তাদের রেশন থেকে একটি অংশ সঞ্চয় করে কর্মহীন হতদরিদ্রদের ঘরে ঘরে পৌছে দিচ্ছে। কঠোর লকডাউন চলাকালীন সেনাবাহিনীর এমন মানবিক সহায়তার বিষটি অব্যাহত থাকবে বলেও কর্মকর্তা জানান।

খুলনায় বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার জনগোষ্ঠীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা বিতরণ

তথ্য বিবরণী

খুলনায় করোনায় কর্মহীন একশত দর্জি, দুইশত থ্রি-হুইলার চালক, ৪৩ রেল শ্রমিক, ৪৫ মাঝি  এবং ৫০ জন মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা বিতরণ করা হয়। খাদ্যসহায়তার মধ্যে ছিলো ১০ কেজি চাল, দুই কেজি আলু, ৫০০ গ্রাম ডাল, তৈল ৫০০ গ্রাম একটি সাবান। সোমবার দুপুরে খুলনা রেলস্টেশন চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত এই খাদ্যসাহায়তা বিতরণে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার বিভাগীয় কমিশনার মোঃ ইসমাইল হোসেন। খাদ্যসামগ্রী বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিভাগীয় কমিশনার বলেন, আমরা এখন ক্রান্তিকাল পার করছি। মেয়র, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সরকারি কর্মকর্তাদের নিয়ে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। করোনা প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা সকলের মানতে হবে। করোনাভাইরাস সহনীয় পর্যায়ে না আসা পর্যন্ত ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত থাকবে। এই দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে তিনি সক্ষম ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার আহবান জানান। তিনি আরও বলেন, করোনায় যারা ঘর থেকে বের হতে পারছেন না তাদের ঘরে ঘরে গিয়ে খাদ্যসহায়তা পৌঁছে দেওয়া হবে। এছাড়া ৩৩৩ কল এর মাধ্যমে পরিবারকে খাদ্যসহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। এজন্য প্রতিটি পরিবারের পরিচয় গোপন রাখা হবে। দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্যসামগ্রী মজুদ রয়েছে। ত্রাণসামগ্রী স্বচ্ছতার সাথে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি প্রশাসনের সমন্বয়ে বিতরণ করা হচ্ছে। বিভাগীয় কমিশনার সকলকে অযথা বাইরে বের না হওয়ার অনুরোধ করেন। খুলনার জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে খাদ্যসহায়তা বিতরণে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ ইউসুপ আলী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা আইসিটি) মোঃ সাদিকুর রহমান খান, খুলনা শ্রম দপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক মোঃ মিজানুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আলমগীর কবির, খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম জাহিদ হোসেন, সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, মহানগর শ্রমিক লীগের (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি মোঃ মোতালেব মিয়া, সাধারণ সম্পাদক রণজিৎ কুমার ঘোষ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।  খুলনা জেলা প্রশাসন এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

খুলনা-আসনের সংসদ সদস্যের শোক সমবেদনা

খবর বিজ্ঞপ্তি

রূপসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মরহুম আব্দুল খালেক মাতবরের স্ত্রী করিমুন্নেসার (৮২) মৃত্যুতে, সাবেক ছাত্রনেতা, স্পেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রিজভী আলমের বড় বোন রাজিয়া খাতুনের মৃত্যুতে পাইকগাছার সোলাদানা নিবাসী, বাংলাদেশ পুলিশে কর্মরত বাবলার রহমানের পিতা মজিবর ফকিরের (৬০) মৃত্যুতে এবং খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য মোঃ রাসেল ভুলুর মা রহিমা পারভীনের (৫৭) মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ শোক সন্তপ্ত উভয় পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা এবং বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন খুলনা-৬ (কয়রা-পাইকগাছা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু।

যশোর কার্পেটিংয়ে চুরির প্রচেষ্টা, নাগরিক পরিষদ নেতা প্রহারের তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ

খবর বিজ্ঞপ্তি

গত জুলাই সোমবার দুপুর আনুমানিক সোয়া ১টার দিকে যশোর কার্পেটিং জুট মিলের কিছু অসাধু কর্মচারী স্থানীয় চিহ্নিত সিন্ডিকেট যশোর কার্পেটিং জুট মিলের অভ্যন্তরে কাঁঠাল গাছের মূল্যবান লগ যন্ত্রাংশ অবৈধভাবে মিল থেকে বের করার সময় মিলের নিরাপত্তা কর্মীসহ স্থানীয় শ্রমিক তাদের বাঁধা প্রদান করে। লগ যন্ত্রাংশ মিলের বাইরে নেওয়ার কোন অনুমতিপত্র আছে কিনা নিরাপত্তাকর্মীরা জিজ্ঞাসা করলে তারা অনুমতিপত্র দেখাতে ব্যর্থ হয়। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে তারা মিলের ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মোঃ নাসির উদ্দিনকে মোবাইল করলে তিনি নিরাপত্তাকর্মীদের ছেড়ে দিতে নির্দেশ দেন। তখন নিরাপত্তাকর্মী তাকে জানান, একমাত্র নিরাপত্তা কর্মকর্তার নির্দেশ ছাড়া অনুমতিবিহীন লগ যন্ত্রাংশ মিলের বাইরে যেতে দেয়া যাবে না। পরবর্তীতে শ্রমিক দারোয়ানদের সম্মিলিত বাঁধার মুখে চক্র মালামাল মিলের বাইরে বের করতে ব্যর্থ হয়ে শ্রমিক দারোয়ানদের হুমকি প্রদান করে চলে যায়। চুরির ঘটনাটি জানাজানি হলে, জুলাই মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে পাটকল রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদের আঞ্চলিক নেতা শামস শারফিন শ্যামনসহ কয়েকজন ঘটনাস্থলে যেয়ে ঘটনার খোঁজ-খবর নিতে গেলে উক্ত সংঘবদ্ধ দলটি মিলে কর্মরত কর্মচারী নিশানের নেতৃত্বে আক্রোশবশত তাকে নিরাপত্তাকর্মীদের প্রহার করে। শ্যামনকে প্রহার করায় উপস্থিত সাধারণ শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পাটকল রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদ রাজঘাট আঞ্চলিক কমিটির আহবায়ক শামসেদ আলম শমসের, শিল্প পুলিশ স্থানীয় ফাঁড়ির পুলিশ অকুস্থলে পৌঁছায়। শ্রমিকদের ওপর আক্রমণসহ চুরির প্রচেষ্টার ঘটনায় স্থানীয় থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। উল্লেখ্য, গত দু’মাস আগে জেজেআই মিলের কয়েক কোটি টাকার জিনিসপত্র নদীপথ দিয়ে চুরির ঘটনা ঘটেছে। শ্রমিকদের ওপর আক্রমণসহ চুরির প্রচেষ্টা আঞ্চলিক নেতা শ্যামনকে প্রহার করার ঘটনার সাথে যুক্ত দোষী ব্যক্তিদের অবিলম্বে গ্রেফতার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি এবং পাটকল বন্ধের সুযোগে মিলের সম্পদ চুরির হাত থেকে রক্ষার জন্য প্রশাসনের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে পাটকল রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদ রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ আজ এক যুক্ত বিবৃতি প্রদান করেন। বিবৃতিদাতারা হলেনÑসংগঠনের আহবায়ক এ্যাড. কুদরত-ই-খুদা, সদস্য সচিব এস রশীদ, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মহসীন, যুগ্ম আহবায়ক যথাক্রমে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পাটি (মার্কসবাদী) খুলনা জেলা সভাপতি মোজাম্মেল হক খান, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল বাসদ খুলনা জেলা সমন্বয়ক জনার্দন দত্ত নান্টু, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) খুলনা মহানগর সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মোঃ বাবুল হাওলাদার, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ খুলনা জেলা সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য আনিসুর রহমান মিঠু এবং সিপিবি খুলনা জেলা সভাপতি ডাঃ মনোজ দাশ, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. এম এম রুহুল আমিন, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ খুলনা জেলা সম্পাদক ডাঃ সমরেশ রায়, গণসংহতি আন্দোলন খুলনা জেলা সমন্বয়ক মুনীর চৌধুরী সোহেল, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পাটি (মার্কসবাদী) খুলনা জেলা সাধারণ সম্পাদক গাজী নওশের আলী, নাগরিকনেতা আফজাল হোসেন রাজু প্রমুখ।

কর্মহীনদের অন্নযোগান রেশনিং ব্যবস্থার দাবি নগর ওয়ার্কার্স পার্টির

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনাসহ সারাদেশে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় জনসচেতনায় কাজ করবে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির নগর কমিটি গঠিত ‘ওয়ার্কার্স পার্টি নগর করোনা বিগ্রেড’দলটির নেতারা বলেছেন, করোনা প্রাদুর্ভাবে গবীর, মধ্যবিত্ত, নি¤œবিত্ত মানুষ সবচেয়ে সংকটে পড়েছে। লাখ লাখ মানুষ কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। অবস্থায় কর্মহীনদের অন্নযোগান রেশনিং ব্যবস্থার বিকল্প নেই। তারা কর্মহীনদের খাবার নিশ্চিত রেশনিং ব্যবস্থার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান।

মঙ্গলবার (০৬ জুলাই) বেলা ৩টায় পার্টির নগর বিগ্রেড কমিটির জুম ভার্চুয়াল সভায় এসব দাবি জানানো হয়। দলের নগর সভাপতি শেখ মফিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় পলিটব্যুরোর সদস্য ড. সুশান্ত কুমার দাস। বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় সদস্য দীপংকর সাহা দিপু, নগর সাধারণ সম্পাদক ফারুক-উল-ইসলাম, নগর নেতা মো. খলিলুর রহমান, আমিনুল ইসলাম, কৌশিক দে বাপী, আরিফুর রহমান বিপ্লব, অজয় কুমার দে, মো. মনির হোসেন, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম জোয়াদ্দার প্রমুখ।

সভায় বাড়ি থেকে করোনা স্যাম্পল গ্রহণ, সরকারি হাসপাতালগুলো অক্সিজেন সংকট নিরসন সুচিকিৎসা প্রদান, সর্বস্তরে করোনা ভ্যাকসিন নিশ্চিতের দাবি জানানো হয়।

খুলনায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ র‌্যাবের হাতে দুই ভাই গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার

খুলনায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ মোঃ হেলাল শিকদার (২৩) জেল্লাল (১৯) নামে দুই ভাইকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৬। গ্রেফতার দু’জন সোনাডাঙ্গা ময়লাপোতা এলাকার মোঃ খলিল শিকদার কেসিসি’১৮নং ওয়ার্ডের ঝাড়–দার (মাস্টাররোল) মোছাঃ হালিমা বেগম এর ছেলে। সোমবার রাতে তাদের গ্রেফতার হয় বলে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

র‌্যাব-জানায়, সোমবার রাতে র‌্যাব-৬ (সদর কোম্পানী) খুলনার একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে, সোনাডাঙ্গা আবু বক্কর খান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে কতিপয় ব্যক্তি ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণ করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি ঘটনার সত্যতা যাচাই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্দেশ্যে উক্ত স্থানে অভিযান পরিচালনা করলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে কৌশলে পালানোর চেষ্টাকালে মোঃ হেলাল শিকদার জেল্লালকে গ্রেফতার করা হয়। সময় উপস্থিত সাক্ষীদের সামনে গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের দখল হতে ৩টি দেশীয় তৈরী হাসুয়া উদ্ধার পূর্বক জব্দ করে। ঘটনায় গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানায় পেনাল কোডের ১৮৬০ সালের ৩৯৯ ধারায় মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন।

খুলনায় কিশোরীকে গণধর্ষণ মামলায় দু’জনের স্বীকারোক্তি, আটক আরও

স্টাফ রিপোর্টার

খুলনা মহানগরীর হরিণটানা থানা এলাকায় এক কিশোরীকে গণধর্ষণ মামলায় তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার পাইকগাছা ফুলতলা থেকে দুইজনকে এবং মঙ্গলবার ফরিদপুর থেকে এক আসামীকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে দুই আসামী আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- নগরীর হরিণটানা ইসলাম নগর এলাকার আজমিরার বাড়ীর ভাড়াটিয়া মৃত রাজআলীর ছেলে আবেদিন (১৯), একই এলাকার মালার বাড়ীর ভাড়াটিয়া রায়হান গাজীর ছেলে রাইসুল (১৮) এবং একই এলাকার রনি মিয়ার বাড়ীর ভাড়াটিয়া মৃত মুকুল গাজীর ছেলে মোঃ মেহেদী হাসান ওরফে ফয়সাল (১৮)

পুলিশ জানায়, গত রবিবার হরিণটানা থানায় দায়ের হওয়া গণধর্ষণ মামলায় (যার নং-১, ধারা-নারী শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ সংশোধিত ২০০৩ এর ৯-৩) বাদী জাকির ঘরামি উল্লেখ করেন, তার নিজ মেয়েকে (১৪) আসামী হাসিব মেহেদীসহ অজ্ঞাতনামা আরও জন হরিণটানা থানা এলাকায় গণধর্ষণ করেন। তারই প্রেক্ষিতে হরিণটানা থানার একটি চৌকস টিম আধুনিক পেশাগত দক্ষতা, প্রযুক্তি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দিক নির্দেশনাকে কাজে লাগিয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনামুল হকের নেতৃত্বে  জুলাই আসামী আবেদিন (১৯) কে পাইকগাছা থানা এলাকা থেকে এবং রাইসুল (১৮) কে ফুলতলা থেকে গ্রেফতার করা হয়। আসামীদ্বয় ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ তরিকুল ইসলামের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করেছে। এরপর গতকাল মঙ্গলবার ফরিদপুর নগরকান্দা থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামী মোঃ মেহেদী হাসান ওরফে ফয়সাল (১৮) কে গ্রেফতার করা হয়। ফয়সালও ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

বিনা চিকিৎসায় করোনা আক্রান্ত রোগির মৃত্যুর দায় সরকারের: মঞ্জু

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা বিভাগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বিনা চিকিৎসায় কারো মৃত্যু হলে সে দায় সরকার কোনভাবেই এড়াতে পারেন না। দেশে করোনা সংক্রমণের প্রায় দেড়বছরে সরকার জনগণের স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে কথামালার রাজনীতি করেছে। করোনা সংক্রামণের তৃতীয় ঢেউ যখন সর্বোচ্চ পর্যায়ে তখনও সরকার অতিকথন জনগণের সাথে প্রতারণা ছাড়া অন্য কিছু নয় বলেছেন খুলনা মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু। মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা মহানগর বিএনপির কল সেন্টারে বিশিষ্ট সমাজ সেবক যুবদল নেতা হাসান আল মাসুম বাপ্পী দু’টি অক্সিজেন সিলিন্ডার অক্সোমিটার, নাম প্রকাশে অনিচ্ছিুক খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং মৌলভীপাড়ার বাসিন্দা ফরিদা ইয়াসমিনের নগদ টাকা গ্রহনকালে মঞ্জু এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন হাসপাতালে শয্যা, আইসিইউ, অক্সিজেনের চরম সংকট দেখা দিয়েছে। ডাক্তার- নার্স সংকটে প্রতিনিয়ত বাড়ছে মৃত্যু সংক্রামণের হার। যখন কোনভাবেই থামছে না আকুতি-স্বজনদের কান্না; তখনও ব্যর্থ সরকার, ব্যর্থ স্বাস্থ্য মন্ত্রাণলয়ের পক্ষে সাফাই গাচ্ছেন। তিনি প্রশ্ন রাখেন বিগত দেড়বছরে কেন মেডিক্যাল কলেজ জেলা হাসপাতাল গুলোতে আইসিইউ শয্যা বাড়ানো হলো না? কেন হলো না সেন্ট্রাল অক্সিজেন সিসটেম? জনগণের ট্যাক্স করের টাকা থাকতেও কেন তা ব্যর্থ হল? দুর্ণীতি অপচয় লুটপাট কেন বন্ধ করা গেল না? সকল ব্যর্থতার জন্য সরকারকে অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে। জনগণের জীবন নিয়ে অবহেলা কখনই দেশের জনগণ মেনে নেবে না উল্লেখ করে বিএনপি নেতা মঞ্জু জনগণের স্বাস্থ্য সেবাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে শহরের পাড়ায় মহল্লায় আক্রান্তদের সেবায় স্বেচ্ছাসেবক সংগঠন গড়ে তোলার জন্য ছাত্র যুব সমাজের প্রতি আহবান জানান। একই সাথে সমাজের বিত্তবান রাজনৈতিক কর্মিদের জনগণের স্বাস্থ্য সেবা কর্মহীন মানুষের খাদ্য সহয়তা প্রদানের জন্য এগিয়ে আসার আহবান জানান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মনি, জাফরউল¬াহ খান সাচ্চু, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, শাহ জালাল বাবলু, আরিফুজ্জামান অপু, আসাদুজ্জামান মুরাদ, হাসানুর রশিদ মিরাজ, মিজানুর রহমান আরজু, সিরাজুল ইসলাম লিটন, জামাল উদ্দিন মোড়ল, শামীম আশরাফ, আল আমিন তালুকদার প্রিন্স প্রমুখ।

নগর আ’লীগ নেতার শাশুড়ির মৃত্যুতে নেতৃবৃন্দের শোক

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. খন্দকার মজিবর রহমানের শাশুড়ি করিমন নেছা (৮২) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজেউন)তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে গতকাল সকাল ৮টায় বাসায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তিনি ছেলে মেয়ে নাতি নাতনি, আত্মীয় স্বজন অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। মরহুমার নামাজে জানাযা বাদ আসর আইচগাতি দারুল উলুম মাদ্রাসা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা শেষে মরহুমাকে ইউনিয়ন পরিষদের কবরস্থানে দাফন করা হয়। সকল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ নেতা কামরুজ্জামান জামাল, আইচগাতি ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যা. আশরাফুজ্জামান বাবুল, জামিল খান, আবুল কাশেম মো. ডাবলু, মো. সফিকুর রহমান পলাশ, মনিরুজ্জামান মনিসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ এলাকার বিশিষ্ট গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

এদিকে খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. খন্দকার মজিবর রহমানের শাশুড়ি করিমন নেছার মৃত্যুতে গভীর শোক, শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা মরহুমার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ নেত্রী, শ্রম কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক, খুলনা-আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ হারুনুর রশীদ, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত কুমার অধিকারী।

১৪নং ওয়ার্ড আ’লীগ সদস্যের মৃত্যুতে আ’লীগের শোক

খবর বিজ্ঞপ্তি

১৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সদস্য বিশিষ্ট ব্যাংকার মোসাঃ হালিমা (৬৫) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজেউন)তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে গতকাল বেলা সাড়ে ১১টায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। মরহুমার নামাজে জানাযা বাদ আসর রায়ের মহল প্রাইমারী স্কুল মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা শেষে মরহুমাকে গোয়ালখালি কবরস্থানে দাফন করা হয়। সকল অনুষ্ঠানে কাজী এনায়েত আলী আলো, মো. শাহজাহান জমাদ্দারসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ এবং এলাকার বিশিষ্ট গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে ১৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সদস্য বিশিষ্ট ব্যাংকার মোসাঃ হালিমার মৃত্যুতে গভীর শোক, শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা মরহুমার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ নেত্রী, শ্রম কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক, খুলনা-আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ হারুনুর রশীদ, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত কুমার অধিকারী।

সেফ দ্যা ফিউচার  ফাউন্ডেশন খালিশপুর থানা শাখার শোক

খবর বিজ্ঞপ্তি

সেফ দ্যা ফিউচার  ফাউন্ডেশন খালিশপুর থানা শাখার সহ সভাপতি খালিশপুর থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: আতিকুর রহমান সোহাগ এর পিতা মকিম হোসেন মৃধা সোমবার সন্ধ্যায় নগরীর একটি বে-সরকারী হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি……রাজিউন)।  তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন সেফ দ্যা ফিউচার  ফাউন্ডেশন খালিশপুর থানা শাখার সভাপতি এস এম নূর হাসান জনি, সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন ব্যাপারী, সিনিয়র সহ সভাপতি হাসানুর রহমান তানজির, সহ সভাপতি রামিজ রেজা, যুগ্ম সম্পাদক এম এম মাসুদুর রহমান, আলমগীর হোসেন অভি, নজিফাতুননেছা বিউটি, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম রাজিব, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রায়হান উদ্দিন রাফি, দপ্তর সম্পাদক বেল্লাল হোসেন সজল, সহ-দপ্তর সম্পাদক মোঃ তাওহিদুল ইসলাম, আলো সম্পাদক রবিউল হোসেন খান, সহ-আলো সম্পাদক মোহনা আক্তার, শিক্ষা সম্পাদক আমজাদ হোসেন, প্রচার সম্পাদক মোঃ আরিফুল ইসলাম টুটুল, অর্থ সম্পাদক মোঃ রেজাউল ইসলাম, আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. আবু জাফর সিদ্দিক রানা, ক্রীড়া সাংস্কৃতিক সম্পাদক মোঃ রেজওয়ানুল কবির শিবলু, তথ্য গবেষনা সম্পাদক হুমায়ুন কবীর বাদল, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আবু সুফিয়ান, পরিবেশ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান সাজিদ, বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রান্ত বিশ্বাস নির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ মিলন, মোঃ পারভেজ মল্লিক জনি, শোভন দত্ত, সামিউল ইসলাম, নারগিন পারভীন, মোঃ ফেরদৌস খান রিপন, মোঃ রানা তালুকদার, নীলা আক্তার প্রমূখ।

রামপালে লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

করোনা প্রতিরোধে চলমান লকডাউনে কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবনযাপনকারী বাগেরহাটের রামপালের হত দরিদ্র ১শ ৩০টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মঙ্গলবার বিকেলে সদরের শ্রীফল তলা খামখেয়ালির মোড় এলাকায় স্বাস্থ্য বিধি সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। সময় উপজেলা চেয়ারম্যান সেখ মোয়াজ্জেম হোসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কবির হোসেন চায়ের দোকানী, নরসুন্দরসহ অসহায় দুস্থ ১৩০টি পরিবারের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন। সহায়তার খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে প্রত্যেকজনকে দেয়া হয়েছে কেজি চাল, কেজি আলু, লিটার তেল, কেজি লবণ কেজি আম।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কবীর হোসেন বলেন, লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন শ্রেণী পেশার অসহায় হত-দরিদ্রদের মধ্য থেকে প্রথম পর্যায়ে ১৩০টি পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পর্যায়ক্রমে ক্ষতিগ্রস্ত উপজেলার সকলকেই খাদ্য সহায়তা প্রদাণ করা হবে বলেও জানান তিনি। #

খুলনাবাসীর সেবা দিতে আমরা সবসময় প্রস্তুত: শেখ সোহেল

খবর বিজ্ঞপ্তি

করোনা ভাইরাসের ডেল্টা ভেরিয়েন্ট প্রাদুর্ভাবে বাংলাদেশের অন্যান্য শহরের মত খুলনা শহরেও করোনা আক্রান্তে হার বৃদ্ধি পেয়েছে। যেখানে হাসপাতাল অক্সিজেন ব্যাংক গুলো করোনা আক্রান্ত রুগীদের অক্সিজেন সেবা দিতে হিমসিম খাচ্ছে। সেখানে এরই মধ্যে খুলনাবাসীর পাশে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা প্রদান করে মানুষের আস্থা ভালবাসার স্থান করে নিয়েছে “শেখ আবু নাসের অক্সিজেন ব্যাংক”, “শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক”অপর দিকে খুলনা-আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দীন জুয়েল এর সহযোগিতায় অসহায় গরীব রুগীদের রাত দিন ২৪ ঘন্টা বিনামূল্যে অ্যাম্বেুলেন্স সেবা প্রদান করে যাচ্ছে “সেখ সালাহউদ্দীন জুয়েল ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস”। “শেখ আবু নাসের অক্সিজেন ব্যাংক”, “শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক” রাত দিনও প্রতিকূল আবহাওয়ায় মধ্যে ২৪ ঘন্টা খুলনাবাসীকে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা প্রদান করে আসছে। করোনা প্রাদুর্ভাব শুরু হলে গত বছরের ২১ শে জুলাই যাত্রা শুরুর পর থেকে শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক নগরীতে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা পৌছিয়ে দিচ্ছে করোনা আক্রান্তের মানুষের দ্বারে দ্বারে। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার বিসিবির পরিচালক শেখ সোহেল এর পৃষ্ঠপোষকতায় সার্বিক সহযোগিতায় খুলনা মহানগর যুবলীগের তত্বাবধানে খুলনা রেড ক্রিসেন্ট এর পরিচলনায় গত ২৯ জুন ২০২১ শেখ  আবু নাসের অক্সিজেন ব্যাংক এর যাত্রা শুরু করে। ইতোমধ্যে এই বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা অ্যাম্বুলেন্স সেবা নগরীতে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। নগরীর শেরেবাংলা রোডস্থ শহীদ শেখ আবু নাসের এর নিজস্ব বাড়িতে কন্টোল রুমের মাধ্যমে একদল পরিশ্রমী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে স্বেচ্ছাসেবক টিমের মাধ্যমে সেবা প্রদান করা হচ্ছে।

 “শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক” ফোন করে ১৫ মিনিটের মধ্যে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা পেয়ে নগরীর মোহাম্মদনগর এলাকার এক রুগীর কন্যা কান্নাজড়িত কন্ঠে তার প্রতিক্রিয়ায় জানান “শেখ সোহেল অক্সিজেন ব্যাংক থেকে ফ্রি অক্সিজেন সেবা পেয়ে আমাদের কৃতজ্ঞতা জানানো ভাষা নাই, আল্লাহ শেখ সোহেলকে যেন মানুষের আরও সেবা করার তৌফিক দেয়, তিনি যেন জনগণের পাশে  থাকতে পারে”বিষয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার, বিসিবির পরিচালক বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত শেখ সোহেল বলেন “আমার পরিবার সারাজীবন সাধারণ মানুষের কল্যানে কাজ করে আসছে, মানুষের বিপদে আপদে আমরা মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছি। তিনি আরও বলেন খুলনার সাথে আমার নাড়ীর সম্পর্ক্য, এই নগরীর সাথে আমার সুখ দুঃখ জড়িত। এই মহামারীর সময়ের খুলনাবাসীর বিপদে আমি এবং আমার পরিবার সর্বাত্মক সহযোগিতা করে যাচ্ছি। করোনা শুরু থেকে আমি আমার পরিবারের পক্ষ থেকে খুলনাবাসীর ঘরে ঘরে ত্রাণ সমাগ্রী পৌছিয়ে দিয়েছি। এই মহামারীতে করোনায় আক্রান্তদের অক্সিজেন অ্যাম্বুলেন্স সেবার কোন সংকট হবে না। যা যা করা প্রয়োজন আমরা সেগুলো করবো। খুলনাবাসীর সেবা দিতে আমরা সবসময় প্রস্তুত। ইনশাআল্লাহ আগামীতে এই ধারা অব্যাহত থাকবে এবং আগামী দিনগুলিতে যে কোন সংকট মোকাবেলায় আমি আমার পরিবার খুলনাবাসীর পাশে থাকবো। তিনি আরও বলেন আপনারা স্বাস্থ্যবিধি সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন, মাক্স মাক্স পরিধান করুন এবং সরকারী বিধি নিষেধ মেনে চলুন।”

এই অক্সিজেন সেবা অ্যাম্বুলেন্স সেবা সার্বিকভাবে তত্বাবধায়ন মনিটরিং করে যাচ্ছেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, খুলনা মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সফিকুর রহমান পলাশ, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান চৌধুরী মোঃ রায়হান ফরিদ, সাবেক ছাত্রনেতা শেখ মোঃ আবু হানিফ, খুলনা মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন, ২৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়েজুল ইসলাম টিটো, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রাসেল, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইমরান হোসেন, মহানগর যুবলীগের সদস্য আব্দুল কাদের শেখ, কাজী কামাল হোসেন, শওকত হোসেন, মহিদুল ইসলাম মিলন, মশিউর রহমান সুমন সহ বিভিন্œ নেতৃবৃন্দ।

কেএমপির অভিযানে মাদকসহ গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার

গত ২৪ ঘন্টায় খুলনা মহানগর পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে ৫০০ গ্রাম গাঁজা ২০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন নগরীর নতুন বাজার ওয়াপদা রোডস্থ খ্রিস্টান গলির জাফর খান লিটনের ছেলে মেহেদী খান সাগর (১৯), খালিশপুর হাউজিং এস্ট্রেট ১নং বিহারী ক্যাম্পের শাহ মোহাম্মদ এর ছেলে মো. জনি (২৪) মালেক ব্যাপারীর ছেলে মোঃ সেলিম হাসান ব্যাপারী (২৯) এবং আড়ংঘাটা গাইকুড় ঝাউতলার  মো. সরোয়ার গাজীর ছেলে মো. শোভন গাজী (৩০)

কেএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. শাহ্ জাহান শেখ জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নগরীর বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। এসময় ৫০০ গ্রাম গাঁজা ২০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৪টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নগরীতে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতে জনকে জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার

নগরীর খুলনা সদর থানাধীন বিভিন্ন এলাকায় করোনা ভাইরাসের সচেতনতা উপেক্ষা করে জনসমাগম করার অপরাধে ৬জনকে হাজার ৬শ’ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার (জুলাই) বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত সহকারী কমিশনার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়।

র‌্যাব-জানায়, মঙ্গলবার (জুলাই) বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত খুলনা সদর থানাধীন বিভিন্ন এলাকায় করোনা ভাইরাসের সচেতনতা উপেক্ষা করে জনসমাগম করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে র‌্যাব-৬। এসময় ১৮৬০ সালের দন্ডবিধি আইনের ১৮৮ ২৬৯ ধারা মোতাবেক জনকে সর্বমোট হাজার ৬শ’ টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযুক্তরা জরিমানার অর্থ তাৎক্ষণিকভাবে স্বেচ্ছায় পরিশোধ করেছেন। আদায়কৃত টাকা সরকারি কোষাগারে জমা করা হয়েছে।

উদীয়মান অক্সিজেন ব্যাংকে অক্সিজেন সিলিন্ডার পালস্ অক্সিমিটার প্রদান

খবর বিজ্ঞপ্তি

মহামারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবায় খালিশপুরে স্বেচ্ছাসেবামূলক সংগঠন উদীয়মান অক্সিজেন ব্যাংকের নিকট অক্সিজেন সিলিন্ডার পালস্ অক্সিমিটার প্রদান করা হয়। এনিয়ে উদীয়মান অক্সিজেন ব্যাংকে অক্সিজেন সিলিন্ডারের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৬টি।

জুলাই ২০২১ইং মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উদীয়মান অক্সিজেন ব্যাংক-দুইটি অক্সিজেন সিলিন্ডার একটি পালস্ অক্সিমিটার স্বেচ্ছাসেবামূলক সংগঠন উদীয়মান যুব সমাজের সভাপতি মোঃ রবিউল গাজী উজ্জল-এর নিকট তুলে দেন ডাঃ গাজী হাবিবুর রহমান। সময় উপস্থিত ছিলেন উদীয়মান যুব সমাজের উপদেষ্টা মোঃ সামসুল আলম লিপন, সহ-সভাপতি মোঃ দেলোয়ার হোসেন, মোঃ শুকুর গাজী, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আশিক খান রাজা, কোষাধক্ষ আহমেদ গাজী রনি, সাংগঠনিক সম্পাদক ইমতিয়াজ ইসলাম রকি, সদস্য মোঃ নাহিন গাজী উৎস প্রমুখ।

সেপটিক ট্যাংকে নেমে দুই শ্রমিকের মৃত্যু

খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় নির্মাণাধীন একটি বাড়ির সেপটিক ট্যাংকে কাজ করতে নেমে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (জুলাই) সকালে উপজেলার চেঁচরিরামপুর ইউনিয়নের মহিষকান্দি গ্রামে ঘটনা ঘটে।

তারা হলেন- পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার গৌড়িপুর গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে রাজমিস্ত্রি আসাদুল (৩০) চেঁচরিরামপুর ইউনিয়নের মহিষকান্দি গ্রামের শাহাদাৎ মিয়ার ছেলে মজনু মিয়া (২৩)

জানা যায়, চেঁচরিরামপুর ইউনিয়নের মহিষকান্দি গ্রামের স্পেন প্রবাসী মিরাজ খানের বাড়িতে গত রমজান মাসে একটি নতুন সেপটিক ট্যাংক নির্মাণ করা হয়। মঙ্গলবার সকালে ট্যাংকের ভেতরে ঢুকে সেন্টারিং খোলার কাজ করছিলেন মজলু মিয়া আসাদুল হক। কাজের একপর্যায়ে ট্যাংকের ভেতরে দমবন্ধ হয়ে তারা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের উদ্ধার করতে গিয়ে শুভ নামের এক যুবকও অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাদের তিনজনকে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী জেলা পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন। কাঁঠালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পুলক চন্দ্র রায় জানান, সেপটিক ট্যাংকের কাজ করতে গিয়ে দমবন্ধ হয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে। বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করে দেখছে।

কেশবপুরে ন্যাশনাল প্রেস সোসাইটি (ঘচঝ) এর মাক্স হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ

আলমগীর হোসেন, কেশবপুর প্রতিনিধিঃ

মহামারী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন মঙ্গলবার দুপুরে ন্যাশনাল প্রেস সোসাইটি গণমাধ্যম মানবাধিকার সংস্থা, কেশবপুর উপজেলা শাখার সভাপতি সাংবাদিক শামীম আখতার মুকুলের হাতে মাক্স জীবানুনাশক হ্যান্ড স্যানিটাইজার তুলে দেন। পরবর্তীতে সভাপতি সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের সাথে নিয়ে পৌর শহরের বিভিন্ন এলাকায় শিশু পথচারীদের মাঝে মাক্স জাবানুনাশক হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণের পাশাপাশি জনসচেতনামূলক প্রচার-প্রচারণা চালান।

সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি অধ্যপক মশিউর রহমান, শিক্ষক মতিয়ার রহমান, মঞ্জুরুল হোসেন ডাবলু, সাধারণ সম্পাদক সুষ্ময় হাওলাদার বিকাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসাইন, সহ-সাংগঠনিক উজ্জ্বল অধিকারী, দপ্তর সম্পাদক রাকিবুল হাসান সুমন, সহ-দপ্তর সম্পাদক রবিন দাস, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মৃদুল সরকার, তথ্য গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক তুষার সাহা, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক অলিয়ার রহমান, সহ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আলমগীর হোসেন, শিশু নারী বিষয়ক সম্পাদিকা সাবিনা ইয়াসমিন, সহ- প্রচার সম্পাদক আব্দুর রহমান, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক শিক্ষক আক্তারুজ্জামান, ক্রিড়া বিষয়ক সম্পাদক সাকিব আল হাসান, কার্যনির্বাহী সদস্য আব্দুল কাদের প্রমুখ।

করোনাকালীন সময়ে সালাম মূর্শেদী সেবা সংঘ অসহায় মানুষের মাঝে সেবা করে যাচ্ছে:শেখ হারুন

মো. মোস্তাফিজুররহমা, রূপসা প্রতিনিধি :

খুলনা জেলা আ’লীগের সভাপতি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শেখ হারুনুর রশিদ বলেছেন, লকডাউন চলাকালীন সময়ে সমাজের বিত্তবানদের অসহায় ব্যক্তিদের পাশে দাঁড়াতে হবে। করোনাকালীন সময়ে সালাম মূর্শেদী সেবা সংঘ’মাধ্যমে অসহায় মানুষের মাঝে বিভিন্ন সেবা প্রদান করা হচ্ছে, যা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। সালাম মুর্শেদী সেবা সেবা সংঘের ব্যবস্থাপনায় টিম  ফার্মাসিটিক্যাল লিমিটেডের সহযোগিতায় আজ মঙ্গলবার  দুপুরে সালাম মূর্শেদী এমপির নগরীর দলীয় কার্যালয়ে  সার্জিকেল বেড প্রদান অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

 খুলনা-আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি বলেন, যতোদিন লকডাউন থাকবে ততোদিন সালাম মূর্শেদী সেবা সংঘের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, শারমিন সালাম অক্সিজেন ব্যাংকের কার্যক্রমসহ স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে। খুলনার হাসপাতালগুলোতে  বেডের স্বল্পতা রয়েছে। বিষয়টি বিবেচনা করে অসুস্থ রোগিদের জন্য খুলনায় সার্জিকেল বেড প্রদানের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সমাজের বিত্তবানদের করোনাকালীন সময়ে পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে সালাম মূর্শেদী ড়সবা সংঘের উদ্যোগে ৪০ হাজার পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি এড. কাজী বাদশা মিয়া যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু। জেলা আ’লীগের সদস্য অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম’পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন  জেলা কৃষক লীগের সভাপতি অধ্যাপক আশরাফুজ্জামান বাবুল, রূপসা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান  কামালউদ্দীন বাদশা, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত ক্রীড়াবিদ আজাদ আবুল কালাম, তেরখাদা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো:শহিদুল ইসলাম,  উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান এফ এম অহিদুজামান, দিঘলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোল্লা আকরাম হোসেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম  আহবায়ক মোঃ মোতালেব হোসেন, রূপসা উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ  মোরশেদুল আলম বাবু, খাঁন শাহাজান কবির প্যারিস, রূপসা উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা আফরোজ মনা, তেরখাদা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা খান, তেরখাদা উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান শারাফাত হোসেন মুক্তি, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ কামাল হোসেন বুলবুল, ইসহাক সরদার, দ্বীন ইসলাম, আ’লীগ নেতা আক্তার ফারুক, বাছিতুল হাবিব প্রিন্স, জাহাঙ্গির, জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম কামরুজ্জামান,  জেলা মহিলালীগের নেত্রী রিনা পারভীন,সাবিনা ইয়াসমিন, তেরখাদা উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মফিজুর রহমান,যুবলীগ নেতা নোমান ওসমানী রিচি, আ’লীগ নেতা মোল্লা ওয়াহিদুজ্জামান মিজান, বাদশা মল্লিক, শেখ আসাদুজ্জামান, রাজিব দাস, যুবমহিলালীগের সভাপতি আকলিমা খাতুন তুলি, সাধারণ সম্পাদক শারমিন সুলতানা রুনা, সালাম মূশের্দী সেবা সংঘের টিম লিডার সামসুল আলম বাবু, যুবলীগ নেতা হাবিবুর রহমান তারেক,সৈয়দ জামিল মোরশেদ,  নুর ইসলাম সরদার,আজমল ফকির, সুব্রত বাগচী, নাজির শেখ, আ:মজিদ শেখ, বাদশা মিয়া প্রমুখ

দেবহাটার চন্ডীপুরে মিলন চৌধুরীর স্ত্রী শাহানাজ’মৃত্যু, বিভিন্ন মহলের শোক

কে এম রেজাউল করিম দেবহাটা :

মহামারী করোনা ভাইরাসের থাবা থেমে নেই। একের পর এক প্রাণ ঝরে যেতেই আছে। নেই কোনো বয়সের সিরিয়াল।

তাই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ৮/১০ দিন যাবৎ ৩য় তলার একই মহিলা ওয়ার্ডে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করতে থাকেন আপন তিন বোন। অর্থাৎ সাতক্ষীরা জেলার দেবহাটার নওয়াপাড়া গ্রামের শেখ আব্দুল গফুরের বড় মেয়ে নলতার ঘোড়াপোতা এলাকার আজহারুল হক সরদারের স্ত্রী মমতাজ পারভীন, সেজ মেয়ে নওয়াপাড়া গ্রামের মুকুল মোল্লার স্ত্রী রিনা পারভীন সখিপুর  ইউপির নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, চন্ডীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি মাসুদ আনোয়ার চৌধুরী মিলন’স্ত্রী শাহানাজ পারভীন (৩২)

একই ওয়ার্ডের মধ্যে সেজ বোন প্রবেশ পথের দিকে একটি বেডে থাকলেও ২৪ নং বেডে বড় বোন মমতাজ এবং ২৬ নং বেডে ছোট বোন শাহানাজ চিকিৎসা গ্রহণ করেন। এর মধ্যে জুলাই মঙ্গলবার সকাল টায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সকলকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন বোনের অর্থাৎ সকল ভাই-বোনের সবচেয়ে ছোট বোন  শাহানাজ পারভীন (৩২)ইন্নানিল্লাহি..  রাজিউন।

পারুলিয়া এস এস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক আবু জাফর বাবুল’আপন ছোট বোন, নাংলা ঘোনাপাড়া গ্রামের আব্দুস সালামের ছোট শালিকা অত্যন্ত মিশুক, সদালাপী, পরোপকারী, সাদা মনের মানুষ শাহানাজ পারভীন মৃত্যুকালে স্বামী মিলন চৌধুরী, ৭ম ৯ম শ্রেণি পড়ুয়া পুত্র, পিতা, ভাই বাবুল, খোকন সবুজ, বোন, চাচা, চাচী সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী, আত্মীয়-স্বজন বা শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন।  মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় নামাজে জানাজা শেষে মরহুমাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। তার অকাল মৃত্যুতে সকল মহলে শোকের ছাঁয়া নেমে এসেছে। উল্লেখ্য, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উক্ত রোগীর সহ অন্যান্য রোগীর জন্য অনেক চিকিৎসক আন্তরিকতার সাথে চিকিৎসা সেবা প্রদান করলেও রাতে চিকিৎসকদের রাউন্ডের পর থেকে প্রতিটি ফ্লোরের জন্য ২/দিন করে ইন্টার্ন চিকিৎসক এবং একজন করে সিনিয়র চিকিৎসক থাকেন বলে জানতে পারি।

মহেশপুরে করোনায় আক্রান্তদের সেবায় ১০টি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন এম,পি চঞ্চল

মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ

এলাকার অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে মহামারী করোনায় আক্রান্ত রোগীদের সেবার জন্য ১০টি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়েছেন ঝিনাইদহ-আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শফিকুল আজম খান চঞ্চল। এমনি ভাবে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ময়জদ্দীন হামিদ ৩টি পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খান ২টি অক্সিজেন তৈরীর মেসিন করোনায় আক্রান্ত অসহায় রোগীদের সেবার জন্য দিয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার সকালে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্তরে কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডাঃ হাসিবুর সাত্তারের কাছে হস্থান্তর করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ময়জদ্দীন হামিদ,সহকারী কমিশনার (ভূমি) আনিছুল ইসলাম, পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খান,নাটিমা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম মাষ্টার,জেলা পরিষদ সদস্য এম আসাদ,পৌর কাউন্সিলর আবুল হাসেম পাঠান,আব্দুস সালাম,প্রভাষক ওমরফারুক,ছাত্রলীগ নেতা বাবু প্রমুখ।

মহেশপুরে করোনায় তিন নারীর মৃত্যু আক্রান্ত আরো জন

মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহের মহেশপুরে গতকাল মঙ্গলবার ভোররাতে সকালে মহামারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তিন নারীর করুন মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে আরো জন। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত তিন নারী হলেন মহেশপুর পৌর ঐরাকার বৌচিতলা গ্রামের খলিলুর রহমানের স্ত্রী রিজিয়া বেগম (৭০) এসবিকে ইউনিয়নের বজরাপুর গ্রামের বহর খার মেয়ে নিহারী বেগম (৪৫) একই গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের স্ত্রী সালমা বেগম (৫৫)

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে জনের শরীরে করোনা পজেটিভে আক্রান্ত হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডাঃ হাসিবুর সাত্তার জানান,করোনার ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে বজরাপুর গ্রামের নিহারী বেগম, সালমা বেগম পৌর এলাকার বৌচিতলা গ্রামের  রিজিয়া বেগমের মৃত্যু হয়েছে। তাছাড়া মঙ্গলবার মহেশপুরে জনের শরীরে করোনা পজেটিভ হয়েছে।

এদিকে টানা ৬ষ্ঠ দিনের মতো চলছে কঠোর ভাবে অলডাউন। সকাল থেকেই একেবারেই জনশুন্য মহেশপুর শহর। মোড়ে মোড়ে রয়েছে পুলিশের চেকপোষ্ট।     

কেশবপুরে দোকানপাট খোলা রাখায় জনকে জরিমানা

কেশবপুর প্রতিনিধিঃ

কেশবপুরে দোকানপাট খোলা রাখায় পৃথক ভ্রাম্যমাণ আদালতে ব্যবসায়ীকে হাজার ৫শ’ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এম এম আরাফাত হোসেন এবং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইরুফা সুলতানা ওই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, লকডাউনের বিধিনিষেধ না মেনে দোকান খোলা রাখায় উপজেলার রাজনগর বাকাবর্শী গ্রামের শাহজাহান আলী মোড়লকে ৫শ’ টাকা জরিমানা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এম এম আরাফাত হোসেন। এছাড়া একই অপরাধে উপজেলার পাঁজিয়া বাজারের ব্যবসায়ী রিয়াজ লিটনকে হাজার, আনছার আলী ৫শ’, কেশবপুর শহরের আমিনুর রহমানকে ৫শ’ নাহিদ হাসানকে হাজার টাকা জরিমানা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইরুফা সুলতানা। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কেশবপুর থানা পুলিশ সহযোগিতা করেন।

কেশবপুরে গরুর জন্য ঘাস কাটতে গিয়ে সাপের কামড়ে কৃষকের মৃত্যু

 কেশবপুর প্রতিনিধি

যশোরের কেশবপুরে গরুর জন্য ঘাস কাটতে গিয়ে সাপের কামড়ে জাকির হোসেন (৪০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা কোমরপোল গ্রামে। সে ওই গ্রামের আব্দুল্লাহ মোড়লের ছেলে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কোমরপোল গ্রামের আব্দুল্লাহ মোড়লের ছেলে জাকির হোসেন (৪০) মঙ্গলবার সকালে গ্রামের বিলে গরুর জন্য ঘাস কাটতে মাঠে যায়। ওই সময় বিষধর সাপ তার পায়ে কামড় দেয়। বিষক্রিয়া শুরু হলে গ্রাম্য ওঝা দিয়ে ঝাড়ফুঁক করানো হয়। ঝাড়ফুঁকের ভেতর তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আলমগীর হোসেন বলেন, মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

তালয় যুবলীগের মাস্ক বিতরণ প্রচারণা

ইলিয়াস হোসেন, তালা (সাতক্ষীরা) ::

সাতক্ষীরার তালা উপজেলা যুবলীগের আয়োজনে মহামারি করোনার সুরক্ষায় খলিলনগর ইউনিয়নে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে সোমবার (জুলাই) বিকালে খলিলনগর বাজারে যুবলীগের মাস্ক বিতরণ উনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তালা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি তালা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার জাকির হোসেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক এবং তালা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রভাষক প্রণব ঘোষ বাবলু। সময় আরো উপস্থিত ছিলেন খলিলনগর ক্যাম্প ইনচার্জ  এস আই লুৎফর রহমান, উপজেলা যুবলীগের সাংঘঠনিক সম্পাদক খাঁন সিরাজুল ইসলাম, খলিলনগর ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক মোড়ল মিজানুর রহমান, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী সালাউদ্দিন প্রমুখ।


Post Views:
1



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি
সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102