সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০১:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
মহাকাশ থেকে রহস্যময় ভুল তথ্য পাঠাচ্ছে নাসার যান! স্যাটেলাইট ‘অন্ধ’ করে দেয়ার মতো লেজার অস্ত্র আছে রাশিয়ার – টেক শহর এমবাপ্পে চায় জিদানকে, রাজি হচ্ছেনা জিদান – স্পোর্টস প্রতিদিন চিত্রনায়ক রিয়াজের ছবি দিয়ে একক আলোকচিত্র প্রদর্শনের আয়োজন করলো ল্যুভ মিউজিয়াম ‘ভাদাইমাখ্যাত’ কৌতুক অভিনেতা আহসান আলী আর নেই শরণখোলায় ভাইয়ের মারপিটে ভাইয়ের মৃত্যু, মামলা নিচ্ছে না পুলিশ অভিযোগ পরিবারের! পোশাকের জন্য তরুণীকে হেনস্থা, ‘মূল হোতা’ আরেক নারী বাইডেনসহ ৯৬৩ মার্কিন নাগরিকের বিরুদ্ধে রাশিয়ার নিষেধাজ্ঞা বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি BOU Job Circular 2022 খুলনা সহ আট বিভাগে বৃষ্টির পূর্বাভাস

মাছ চাষে লাভবান হতে পুকুর প্রস্তুতিতে করণীয় | Adhunik Krishi Khamar

  • আপডেট সময় সোমবার, ১২ জুলাই, ২০২১
মাছ চাষ

মাছ চাষে লাভবান হতে পুকুর প্রস্তুতিতে করণীয় যেসব কাজ রয়েছে সেগুলো মৎস্য চাষিদের ভালোভাবে জেনে রাখতে হবে। আগের দিনে প্রাকৃতিক উৎসে প্রচুর পরিমাণে মাছ পাওয়া যেত। তবে এখন আর তেমন পাওয়া যায় না। তাই অনেকেই পুকুরে মাছ চাষ করে থাকেন। চলুন আজ তাহলে জানবো মাছ চাষে লাভবান হতে পুকুর প্রস্তুতিতে করণীয় সম্পর্কে-

মাছ চাষে লাভবান হতে পুকুর প্রস্তুতিতে করণীয়ঃ


ঝোপ জঙ্গল পরিষ্কার করাঃ


পুকুরপাড়ে অযাচিত আগাছা থাকলে তা দূর করতে হবে। পাড়ে কোন বড় গাছপালা কাম্য নয়। বড় গাছপালা থাকলে পুকুরে সূর্যালোক পতিত হবে না এবং গাছ পালার পাতা পানিতে পড়ে পচে গিয়ে পানিতে দ্রবীভূত এমোনিয়া বৃদ্ধি করবে। পুকুরে সূর্যালোক প্রবেশের যথেষ্ট সুযোগ ( দৈনিক ৭-৮ ঘন্টা) রাখতে হবে।

পুকুরের পাড় ও তলা মেরামত করাঃ


পুকুরের পাড় ভাঙা, কাঁকড়া বা ইদুরের গর্ত ইত্যাদি থাকলে অবশ্যই পুকুর শুকিয়ে নিয়ে পাড় মেরামত করে নিতে হবে। পাড় যেন তলা থেকে অনেকটা ঢালু থাকে সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে (স্লপ ১:৩ হলে ভালো হয়)। পুকুরের তলা সমান করে নিতে হবে। উল্লেখ্য, পুকুরের চারপাশের তলার চাইতে মাঝখানে একটু ঢালু ভাবে ১-২ ফুট বেশি গভীরতা রাখলে অনেক সুবিধা পাওয়া যায়।

জলজ আগাছা পরিষ্কার করাঃ


পুকুর শুকানোর প্রয়োজন না হলে পুকুরের জলজ আগাছা যেমন কচুরিপান, টোপা পানা, সঞ্চিতা, কলমিলতা ইত্যাদি দমনের ব্যবস্থা করতে হবে।

রাক্ষুসে ও অবাঞ্ছিত মাছ দূর করাঃ


নিম্নোক্ত ভাবে পুকুরের অবাঞ্ছিত মাছ দূর করা যায়-

ক. পুকুর শুকিয়ে

খ. বার বার জাল টেনে

গ. ঔষধ প্রয়োগ করে

চুন প্রয়োগঃ


শুকনো পুকুরের তলায় পানি প্রবেশ করানোর ২-৩ দিন আগে ১ কেজি/শতাংশ হারে চুন প্রয়োগ করতে হবে। তাছাড়া যে পুকুর ভালোভাবে শুকানো সম্ভব হবে না সেই পুকুরে অল্প পানিতে বা সামান্য কাদার উপর ১ কেজি/ শতাংশ হারে চুন প্রয়োগ করে কিছু দিন রেখে দিতে হবে।

চুন প্রয়োগের কারনঃ

ক. পানির পি এইচ ঠিক রাখতে

খ. পানির ঘোলাত্ব দূর করতে

গ. রোগ জীবাণু ধ্বংস করতে

ঘ. মাছের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে

ঙ. বিষাক্ত গ্যাস দূর করতে ইত্যাদি

চুন প্রয়োগের সাবধানতাঃ

ক. চুন কখনো প্লাস্টিকের কিছুতে গলানো যাবে না।

খ. চুন গলানোর ১২-২৪ ঘন্টা পর পুকুরে দিতে হবে।

গ. গলানর সময় এবং দেয়ার সময় খেয়াল রাখতে হবে হবে যেন নাকে মুখে ঢুকে না যায়।

ঘ. চুন ভালভাবে ভেজানোর জন্য পানি নাড়া চাড়া করে দিতে হবে।

লবন প্রয়োগঃ


শতাংশ প্রতি ৫ ফুট পানির জন্য ২০০-২৫০ গ্রাম লবন ব্যবহার করা যায়। লবন পানির স্যালাইনিটি ও মাছের ইলেক্ট্রোলাইট ব্যালেন্স করতে সহায়তা করে।

সার প্রয়োগঃ


  • জৈব সার/প্রাকৃতিক সার – যা কিনা প্রাণী কণা তৈরি করে। জৈবসার হিসেবে খৈল , ও বিশুদ্ধ কম্পোস্ট ব্যবহার করা হয় । পুকুর প্রস্তুতির সময় শতাংশ প্রতি ১ কেজি কম্পোস্ট অথবা ২৫০ গ্রাম খৈল ৭২ ঘন্টা ভিজিয়ে পুকুরে সমান ভাবে প্রয়োগ করতে হবে।
  • রাসায়নিক সার – যা উদ্ভিদ কণা তৈরি করে। যেমন, ইউরিয়া, টি.এস.পি., এমওপি ইত্যাদি।
  • খৈল প্রয়োগের দিনে ইউরিয়া ১০০-২০০ গ্রাম/ শতাংশ ও টিএসপি ৫০-১০০গ্রাম/শতাংশ হারে পানিতে ভালভাবে গুলিয়ে পুকুরে সমানভাবে ছিটিয়ে প্রয়োগ করতে হবে। উল্লেখ্য, টিএসপি এক রাত পানিতে ভিজিয়ে রেখে পরবর্তী দিন সকালে ইউরিয়ার সাথে একসাথে গুলে পানিতে প্রয়োগ করতে হয়।
  • পুকুরে খৈল/কম্পোস্ট ও রাসায়নিক সার প্রয়োগের সপ্তাহ খানেকের ভিতর ফাইটোপ্ল্যাংক্টন ও জুপ্ল্যাংক্টন উৎপন্ন হয়ে যাবে।

আরও পড়ুনঃ পাঙ্গাস মাছ চাষে খাদ্য ব্যবস্থাপনায় যা বিবেচনা…


লেখাঃ ফয়সাল মাহবুব


মৎস্য প্রতিবেদন / আধুনিক কৃষি খামার



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102