বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৩:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৩৪ জন চাকরিচ্যুত দক্ষিণ সিটির উপ-কর কর্মকর্তাসহ ৩৪ জন চাকরিচ্যুত মোংলায় ৮টি বোটসহ ১৩৫ ভারতীয় জেলে আটক শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তরের দায়িত্বও রাষ্ট্রকেই নিতে হবে – মোস্তাফা জব্বার – টেক শহর ম্যানসিটির বিপক্ষে রিয়ালের জয়ে কষ্ট পেয়েছেন বার্সার সভাপতি প্রার্থী – স্পোর্টস প্রতিদিন চট্রগ্রাম বন্দরকে পিছনে ফেলে সর্বোচ্চ রেকর্ড গড়লো মোংলা বন্দর শাড়ির কুঁচি ধরা শিখতে ব্যাংকক যেতে চায় নিখিল বাংলা স্বামী সংঘের ৩০০ সদস্য চট্টগ্রামে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১ আগুনে পুড়ল দিনমজুর পরিবারের সব শরণখোলায় ১০ দিনের ব্যাবধানে ২টি অজগর উদ্ধার! ভিডিও সহ।।

ঈদকে সামনে রেখে বাড়ছে আদা ও রসুনের দাম | Adhunik Krishi Khamar

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১
আদা ও রসুন




আসন্ন কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে বাড়ছে আদা ও রসুনের দাম। ঈদ সামনে রেখে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আদা ও রসুনের দাম। তবে ঈদ দোরগোড়ায় চলে আসলেও গরম মসলার দামে কোনো প্রভাব পড়েনি।

পাইকারি ব্যবসায়ীরা জানান,  কোরবানির ঈদের আগের এক মাস তার থেকে ২০-৩০ শতাংশ বেশি বিক্রি হয়। তবে এবার ঈদ কেন্দ্রিক কোনো বিক্রি নেই। এমনকি স্বাভাবিক সময়ে যে মসলা বিক্রি হয়, এখন বিক্রি তার ২০-৩০ শতাংশ মতো আছে। অর্থাৎ স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় বিক্রি ৭০ শতাংশের মতো কমে গেছে।

বিক্রি কমে যাওয়ার কারণ হিসেবে তারা বলছেন, এখন করোনাভাইরাসের প্রকোপ গ্রাম অঞ্চলে বড় আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। যে কারণে দোকান খুব বেশি সময় খোলা রাখা যাচ্ছে না। আবার ঢাকার বাহিরের ক্রেতারা ঢাকায় আসতে পারছেন না। সবমিলিয়ে বিক্রি কমে গেছে। আর বিক্রি কমার কারণে দামও কমেছে।

সপ্তাহের ব্যবধানে চীনা আদার দাম কেজিতে ৬০ টাকা এবং রসুনের দাম ৪০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। খুচরা পর্যায়ে চীনা আদার কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৮০-২০০ টাকা, যা এক সপ্তাহ আগে ছিল ১৩০ থেকে ১৪০ টাকার মধ্যে। আর চীনা রসুন বিক্রি হচ্ছে ১৬০-১৮০ টাকা কেজি। এক সপ্তাহ আগে এই রসুনের দাম ছিল ১৩০-১৪০ টাকার মধ্যে।

কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ী আলী নূর বলেন, দেশি আদা-রসুন বাজারে কম রয়েছে। আবার সামনে ঈদ হওয়ার কারণে সম্প্রতি কিছু ক্রেতা আদা-রসুন বাড়তি পরিমাণে কিনেছেন। এ সবকিছু মিলেই আদা ও রসুনের দাম বেড়েছে।

মালিবাগের ব্যবসায়ী মিরাজ বলেন, এ লকডাউনের কারণে কয়েকদিন আগে মাল কম থাকায় দাম একটু বেড়েছিল। কিন্তু এখন আবার কমে গেছে। পাইকারিতে তুলনামূলক কম দামে গরম মসলা কিনতে পাওয়া যাচ্ছে। যে কারণে আমরাও কম দামে বিক্রি করতে পারছি।


আরও পড়ুনঃ নীলফামারীতে অনাবৃষ্টিতে পাট জাগ ও আমন চাষ সমস্যায় কৃষকরা









Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102