বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৩৪ জন চাকরিচ্যুত দক্ষিণ সিটির উপ-কর কর্মকর্তাসহ ৩৪ জন চাকরিচ্যুত মোংলায় ৮টি বোটসহ ১৩৫ ভারতীয় জেলে আটক শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তরের দায়িত্বও রাষ্ট্রকেই নিতে হবে – মোস্তাফা জব্বার – টেক শহর ম্যানসিটির বিপক্ষে রিয়ালের জয়ে কষ্ট পেয়েছেন বার্সার সভাপতি প্রার্থী – স্পোর্টস প্রতিদিন চট্রগ্রাম বন্দরকে পিছনে ফেলে সর্বোচ্চ রেকর্ড গড়লো মোংলা বন্দর শাড়ির কুঁচি ধরা শিখতে ব্যাংকক যেতে চায় নিখিল বাংলা স্বামী সংঘের ৩০০ সদস্য চট্টগ্রামে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১ আগুনে পুড়ল দিনমজুর পরিবারের সব শরণখোলায় ১০ দিনের ব্যাবধানে ২টি অজগর উদ্ধার! ভিডিও সহ।।

শরণখোলায় মুক্তিযোদ্ধার বিধবা স্ত্রীর বসত ঘর আ.লীগ নেতার দখলে নেয়ার চেষ্টায় মারপিট

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১
শরণখোলায় মুক্তিযোদ্ধার বিধবা স্ত্রীর বসত ঘর আ.লীগ নেতার দখলে নেয়ার চেষ্টায় মারপিট

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

শরণখোলায় বীর মুক্তিযোদ্ধার বিধবা স্ত্রীর বসত ঘর দখলে নেয়ার চেষ্টা করেছে এক আওয়ামীলীগ নেতা। ঘটনাটি ঘটেছে শরণখোলা উপজেলার ছৈলাবুনিয়া গ্রামে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আঃ রব তালুকদারের বিধবা স্ত্রী নুরজাহান বেগম জানান, গত জুলাই রাত অনুমান ৮.৩০মিঃ সময় প্রতিপক্ষ ছৈলাবুনিয়া ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ও  মৃত মকবুল তালুকদারের পুত্র নান্না মিয়া তালুকদার (৬০), মনা তালুকদারের পুত্র সুমন তালুকদার (৩২), আমির তালুকদারের পুত্র শাহিন তালুকদার (২৮), তুহিন তালুকদার (২৫), ওহাব তালুকদারের পুত্র হানিফ তালুকদার (৩৫), বেল্লাল তালুকদার (২০) সহ ১৪/১৫ জন আমার বসত ঘরে হামলা করে। ঘরের বেড়া কুপিয়ে তছনছ করে। ঘটনায় আরিফুল ইসলাম (১১) নামে এক নাতি আহত হলে শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি পরবর্তীতে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এছাড়া ঘরের ট্রাঙ্কে থাকা লক্ষ ৫০ হাজার টাকা, একটি ১০ আনা ওজনের স্বর্ণের চেইন আনা ওজনের কানবালা বিবাদীরা নিয়া যায়। এছাড়া নুরজাহান বেগম কান্নজড়িত কন্ঠে আরো জানান, আমি আমার পুত্রদের নিয়া এলাকা ছাড়িয়া না গেলে ভবিষ্যতে পুত্রদের খুন জখম করমে মর্মে হুমকি দেয়। বিআরএস জরিপে আমাদের জমি আমাদের নামে রেকর্ড হলেও প্রতিপক্ষরা পেশীশক্তির কারণে ভোগদখল করছে এমনকি বসত ঘরটিও ভেঙ্গে ফেরার চেষ্টা করছে। বিষয়ে শরণখোলা থানা পুলিশকে মৌখিকভাবে অবহিত করলে ওই রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শ করেন। তবে আর্থিক সংকটের কারণে বিধবা নুরজাহানা বেগম এখনও মামলা করেননি। তবে, বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মিমাংসার চেষ্টা করা হলেও সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান এখনও বিচার না করে প্রতিপক্ষদের দলিলপত্র সংগ্রহের নামে কালক্ষেপন করছেন। নান্না তালুকদারের চাচাত ভাই দেলোয়ার তালুকদার তার স্ত্রী তাসলিমা বেগম বলেন, বসত ঘরে হামলার সময় প্রতিপক্ষদের বাধা দিয়ে আমরা মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে রক্ষা করেছি।

ব্যাপারে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি প্রতিপক্ষ নান্না তালুকদার বলেন, মুক্তিযোদ্ধার ভাতার টাকা নিয়া ভাই-ভাই দ্বন্দ্বের কারণে তার মায়ের বসত ঘর কুপিয়ে নষ্ট করে আমাকে দোষারোপ করছে। আমার সাথে জমি নিয়া দ্বন্দ্ব থাকলেও তা নিয়ে আদালতে মামলা চলমান এবং আমি মারপিটের ঘটনায় জড়িত নই। আমাকে মিথ্যাভাবে ফাঁসানো চেষ্টা করছে।

ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট খোন্তাকাটা ইউপি চেয়ারম্যান মঈনুল ইসলাম টিপু বলেন, উভয় পক্ষের মধ্যে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি নিয়ে গতকাল সোমবার বৈঠক বসলেও উভয় পক্ষকে কাগজপত্র সংগ্রহ করতে সময় দেয়া হয়েছে। ঈদের পরে মিমাংসা করা হবে।


Post Views:
10



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102