রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৭:৫৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
মোরেলগঞ্জে এক ঘের ব্যবসায়ীর হাত-পা ভেঙে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা পদ্মা সেতুতে প্রথম মূত্র নিঃসরণ করে ইতিহাসে নাম লেখালেন বরিশালের তারেক মানুষের মন পড়তে পারে যে ছবি গাজীপুরের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে অনুসন্ধানে দুদক পদ্মা সেতু উদ্বোধন: মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ’র বর্ণাঢ্য র‍্যালী কারণে-অকারণে অনেকেই সেতু দিয়ে দিচ্ছেন পদ্মা পাড়ি একদিনেই বদলে গেছে শিমুলিয়া-ফেরিঘাট, যাত্রী সংকটে লঞ্চ-ফেরি দ্বিগুন বেতন দাবী সালাহর, বিক্রি করতে চায় লিভারপুল – স্পোর্টস প্রতিদিন খুলনায় পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে কেএমপির বর্ণাঢ্য র‌্যালি পদ্মা সেতুতে বাগেরহাটের পর্যটন বিকাশের সম্ভাবনা

৪৫ ফুটবল মাঠের সমান ‘ভাসমান সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র’ উদ্বোধন সিঙ্গাপুরে

  • আপডেট সময় বুধবার, ১৪ জুলাই, ২০২১
৪৫ ফুটবল মাঠের সমান ‘ভাসমান সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র’ উদ্বোধন সিঙ্গাপুরে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বের অন্যতম বড় ভাসমান সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করেছে সিঙ্গাপুর। দেশটির পশ্চিমাঞ্চলে একটি হৃদের ওপর যে পরিমাণ এলাকা নিয়ে এই বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের প্যানেলের সারিসমূহ সাজানো হয়েছে, তা আকারে ৪৫টি ফুটবল মাঠের সমান। খবর রয়টার্স’র।

দেশটির প্রধান বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রতিষ্ঠান সেম্বকর্প ইন্ডাস্ট্রি এবং সিঙ্গাপুরের জল ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ পিইউবির যৌথ উদ্যোগে স্থাপিত এই বিদ্যুৎকেন্দ্রটি প্রতি বছর ৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে সক্ষম।

এক যৌথ বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠান দু’টির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বিদ্যুৎ কেন্দ্রটির উৎপাদন শুরু হলে প্রতি বছর সিঙ্গাপুরের বাতাসে প্রায় ৩২ কিলোটন কার্বন নিঃসরণ কম ঘটবে। ৭ হাজার জ্বালানী তেলচালিত মোটরগাড়ি যদি টানা একবছর সড়কে সচল থাকে, সেক্ষেত্রে বাতাসে এই পরিমাণ কার্বন নিঃসৃত হয়।

প্রতিষ্ঠান দু’টির বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী সোলার প্যানেলসমূহ পানিতে ভাসমান থাকায় স্থলে বা বহুতল ভবনের ছাদে স্থাপিত সোলার প্যানেলের তুলনায় এর বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিমাণ ৫ থেকে ১৫ বেশি হবে, কারণ- পানির কারণে সোলার প্যানেলগুলো শীতল থাকবে।

আরও বলা হয়, প্যানেলসমূহ এমন নকশায় সাজানো হয়েছে, যে এসবের ফাঁক দিয়ে সহজেই সূর্যালোক ও বায়ুপ্রবাহ হ্রদের পানিতে প্রবেশ করতে পারবে। ফলে, হৃদের বাস্তুসংস্থান ও জীব বৈচিত্রে কোনো ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে না।

সিঙ্গাপুরের প্রশাসনিক কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বাতাসে কার্বন নিঃসরণ কমাতে নবায়নযোগ্য বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রযুক্তির দিকে মনোযোগ দিচ্ছে সিঙ্গাপুরের সরকার। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে দেশে মোট বিদ্যুৎ চাহিদার চারভাগের একভাগের যোগান আসবে সৌর বিদ্যুৎখাত থেকে।

সেই সিদ্ধান্তের অংশ হিসেবেই এই বিদ্যুৎকেন্দ্রটি স্থাপন করা হয়েছে।



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102