বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া যতন সাহা হত্যাকাণ্ড ভিডিওটি মিথ্যা ও গুজব : পুলিশ এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাইয়ের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী বৃহস্পতিবার আপডেট পেলো স্যামসাং ফটো এডিটর অ্যাপ রহমতের নবী (সঃ) এর জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাল এসি মিলান – স্পোর্টস প্রতিদিন ডিম, মুরগি ও বাচ্চার আজকের (১৯ অক্টোবর) বাজারদর | Adhunik Krishi Khamar পায়ুপথে বেরিয়ে এলো ২০০০ ইয়াবা! সাকিব, মুশফিক, মাহমুদুল্লাহকে সাদা জার্সি পরে নামার অনুরোধ করলো সমর্থকরা বাংলাদেশ বিমান বাহিনী অফিসার্স ক্লাব এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন দুদ‌কের মামলায় খুমেক হাসপাতালের সাবেক হিসাব রক্ষকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ‌ লক্ষ্মী পূঁজা উপলক্ষে গোপালগঞ্জে প্রতিমার হাট

ক্ষমা চাই কুলসুম, এবার তুমি শান্তিতে ঘুমাও: চঞ্চল চৌধুরী

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৬ জুলাই, ২০২১
  • ৬৪
ক্ষমা চাই কুলসুম, এবার তুমি শান্তিতে ঘুমাও: চঞ্চল চৌধুরী

বিনোদন ডেস্ক : অভিনেত্রী শাহনাজ খুশির বাসার কাজের সহযোগী কুলসুম। দীর্ঘ দিন তিনি খুশির বাসায় কাজ করেছেন। অ্যাপেন্ডিসাইটিস এর অপারেশনের জন্য সম্প্রতি কুলসুম হাসপাতালে ভর্তি হন। অপারেশন শেষে আর পৃথিবীর আলো দেখেননি তিনি। না ফেরার দেশে চলে গেছেন সবাইকে ছেড়ে। অভিনেত্রী শাহনাজ খুশি কুলসুমের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন।

কুলসুমের মৃত্যুতে জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীর হৃদয় ভারী হয়ে উঠেছে। সেই দুঃখ কিছুটা প্রকাশ করলেন ফেসবুক স্ট্যাটাসে। চঞ্চল চৌধুরীর সেই স্ট্যাটাসটি হুবহু বিডি২৪লাইভ-এর পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হল- কুলসুম জানতো, আমি গরম গরম পরোটা আর ডিম ভাজি পছন্দ করি, কুলসুম জানতো আমি চায়ে কতটুকু চিনি খাই, কুলসুম জানতো আমার পানির গ্লাসে কতটুকু ঠাণ্ডা পানি মেশাতে হবে…..

কুলসুম আমাকে ভাইয়া ডাকতো….. অসম্ভব মায়া আর ভালোবাসা ছিলো আমার প্রতি। কুলসুম আমার আপন কেউ ছিলো না…কিন্তু সে ছিলো আপনের চেয়ে আপন। কুলসুম,অভিনেত্রী শাহনাজ খুশীর বাসায় দীর্ঘদিন ওর কাজের সাহায্যকারী হিসেবে ছিল। খুশী কুলসুমকে নিজের বোনের মতই আদর করতো…. একটু স্বচ্ছল জীবন যাপনের আশায় কয়েক বছর সৌদি আরবে কাজ করে দুই সপ্তাহ আগেই দেশে ফিরেছিল। যে কয় বছর কুলসুম সৌদিতে ছিল,নিয়মিত খুশীর সাথে যোগাযোগ রাখতো,আমার পরিবারের খোঁজও নিত খুশীর কাছ থেকে।

কতটা দ্বায়িত্বশীল,সহজ সরল ভালো মানুষ হলে, এরকম প্রিয় মানুষ গুলোকে মনে রাখা যায়,কুলসুম তার প্রমাণ। বেশ কয়েক বছর আগে,দেশে থাকতে, কুলসুম অসুস্থতার কারণে খুশীর বাসায় কয়েকদিন আসতে পারেনি। খুশীর সাথে আমিও ওর বাসায় ওকে দেখতে গিয়েছিলাম। কুলসুম তখন বিশ্বাস করতে পারেনি যে,আমি ওকে দেখতে ওর বাসায় যাবো… দেশে ফিরে আসার পরও সে খুশীর বাসায় দেখা করতে এসেছিল সবার সাথে….সামনের মাস থেকে আবার খুশীর বাসায় কাজ শুরু করবে এমনটাই কথা ছিল…. কিন্তু আজ সকালে খুশী আমাকে ফোন করে জানালো, কুলসুম নেই…… আমাদের কাউকে না জানিয়েই একটা ছোট্ট অপারেশনের জন্য হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল কুলসুম।অপারেশনের পর আর জ্ঞান ফেরেনি কুলসুমের… আজ সকালে সে পরপারে চলে গেল।

অনেক আপনজনের মৃত্যুও আমাকে এতটা ব্যথিত করেনি। সংবাদটা শোনার পর শুটিং এর কাজে বের হয়ে পড়ি… গাড়িতে বসে বার বার কুলসুম এর মুখখানা ভেসে উঠছিল চোখের সামনে,কানে বাঁজছিল ওর মুখের ‘ভাইয়া’ ডাক। মনের অজান্তেই বার বার চোখ ভিঁজে যাচ্ছে….. লাইট…ক্যামেরা… এ্যাকশান…কোনো কিছুই আমাকে কুলসুমের মুখটা ভুলতে দিচ্ছে না… কুলসুমের জন্য আমরা কিছুই করতে পারলাম না… খুব গোপনে, ভয়ে কুলসুম আমাদের কাছ থেকে পালিয়ে গেল চিরতরে।



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০২১
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102