শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:০২ অপরাহ্ন

অসময়ে তরমুজ চাষে সফল পটুয়াখালীর সমির | Adhunik Krishi Khamar

  • Update Time : শনিবার, ১৭ জুলাই, ২০২১




অসময়ে তরমুজ চাষে সফল পটুয়াখালীর সমির অধিকারী। পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের কিসমত ছৈলাবুনিয়া গ্রামের কৃষক সমির অধিকারী। মাত্র ২৫ শতাংশ জমিতে তরমুজ চাষ করেছেন তিনি। মির্জাগঞ্জে এই প্রথমবার বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেও অফ সিজন তরমুজ চাষ করে সফল হয়েছেন তিনি। তরমুজের বাম্পার ফলন ও লাভজনক হওয়ায় এলাকার অনেকেই তরমুজ চাষে আগ্রহী হয়েছেন।

জানা যায়, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মির্জাগঞ্জে এই প্রথম এসএসিপি প্রকল্পের অর্থায়নে সমির অধিকারীসহ তিনজন দক্ষ কৃষকের মাধ্যমে অত্যন্ত সুস্বাদু উচ্চমূল্যের অফ সিজন তরমুজ উৎপাদন করতে সক্ষম হয়েছে। তারা এ তরমুজ চাষ করে ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়েছেন। ফলে অসময়ে তরমুজ চাষের জনপ্রিয়তা বাড়বে এমটাই আশা কৃষি বিভাগের।

স্থানীয় কৃষক মিঠুন বলেন, ৫০ শতাংশ জমিতে উচ্চমূল্যের অফ সিজন তরমুজ চাষ করেছি কৃষি বিভাগের সহযোগিতায়। রোপণকৃত গাছগুলোতে এখন তরমুজ ধরতে শুরু করছে। আশা করি ১০-১৫ দিনের মাথায় বাজারজাত করতে পারবো। তরমুজ চাষে যে টাকা খরচ হয়েছে, তার চেয়ে দ্বিগুণ লাভ হবে। অল্প সময়ে ভালো ফলন হয়েছে। বর্তমান বাজারে তরমুজের দামও বেশ ভালো পাওয়া যাবে। প্রতি পিস ১০০ থেকে ১৫০ টাকায় বিক্রি করা যাবে। এসব তরমুজ বাজারে তুলতে হয় না। বাগান থেকেই পাইকাররা কিনে নিয়ে যাবে। ফলে বাড়তি খরচও লাগছে না তাদের।

উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা আরাফাত হোসেন জানান, এসব উন্নত জাতের বীজ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে সংগ্রহ করে কৃষকদের অফ সিজন তরমুজ চাষে উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে এবং কৃষকরা চাষ করে সফলও হয়েছেন। তরমুজ একটি অর্থকরী ফসল। তরমুজ ভিটামিন ও খনিজ উপাদান সমৃদ্ধ। অর্থনৈতিক ভাবে বেকার যুবক ও কৃষককে স্বাবলম্বী করে তুলতে তরমুজ চাষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।


আরও পড়ুনঃ হবিগঞ্জে ড্রাগন চাষে আব্দুল্লাহর সাফল্য


কৃষি প্রতিবেদন / আধুনিক কৃষি খামার









Source by [সুন্দরবন]]

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Recent Posts

© 2022 sundarbon24.com|| All rights reserved.
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102