বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া যতন সাহা হত্যাকাণ্ড ভিডিওটি মিথ্যা ও গুজব : পুলিশ এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাইয়ের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী বৃহস্পতিবার আপডেট পেলো স্যামসাং ফটো এডিটর অ্যাপ রহমতের নবী (সঃ) এর জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাল এসি মিলান – স্পোর্টস প্রতিদিন ডিম, মুরগি ও বাচ্চার আজকের (১৯ অক্টোবর) বাজারদর | Adhunik Krishi Khamar পায়ুপথে বেরিয়ে এলো ২০০০ ইয়াবা! সাকিব, মুশফিক, মাহমুদুল্লাহকে সাদা জার্সি পরে নামার অনুরোধ করলো সমর্থকরা বাংলাদেশ বিমান বাহিনী অফিসার্স ক্লাব এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন দুদ‌কের মামলায় খুমেক হাসপাতালের সাবেক হিসাব রক্ষকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ‌ লক্ষ্মী পূঁজা উপলক্ষে গোপালগঞ্জে প্রতিমার হাট

চুয়াডাঙ্গায় রোগীর সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যু, একদিনে আরও ১০ প্রাণহানি

  • আপডেট সময় শনিবার, ১৭ জুলাই, ২০২১
  • ১৭
চুয়াডাঙ্গায় রোগীর সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যু, একদিনে আরও ১০ প্রাণহানি

 চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গায় কোভিড রোগীর সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যু। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে একজনসহ উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও ১০ জন।

বুধবার ভোর থেকে বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত তাদের মৃত্যু হয়।

অপরদিকে বৃহস্পতিবার চুয়াডাঙ্গায় আরও ১১০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

জেলায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা হাজার ১০৭ জন। এর মধ্যে বাড়িতে এক হাজার ৯৮০ জন হাসপাতালে ১২৭ জন।

চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগ বৃহস্পতিবার ৪৩৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে। এদিন ৪৬৩ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ১১০ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে।

শনাক্তকৃতদের মধ্যে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ৬০ জন, আলমডাঙ্গার ২৫, দামুড়হুদার ১৬ জীবননগর উপজেলার জন।

চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, চুয়াডাঙ্গায় বৃহস্পতিবার করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন একজন। নিয়ে জেলায় মৃতের সংখ্যা ১৪৮ জনে দাঁড়াল। এর মধ্যে চুয়াডাঙ্গাতেই মারা গেছেন ১৩২ জন।

চুয়াডাঙ্গার বাইরে মারা গেছেন ১৬ জন। বৃহস্পতিবার নতুন ৪৩৮ জনের নমুনা নেওয়া হয়েছে। নিয়ে মোট নমুনা নেওয়া হলো ১৮ হাজার ৯৮১ জনের।

বৃহস্পতিবার ৪৬৩ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া গেছে। নিয়ে মোট রিপোর্ট পাওয়া গেছে ১৮ হাজার ৬৫৩ জনের। নতুন ১১০ জন শনাক্ত হয়েছেন। নিয়ে জেলায় মোট শনাক্তকৃত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে হাজার ১৬৫ জন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. এএসএম ফাতেহ আকরাম বলেন, ‘হাসপাতালে রোগীর চাপ বেড়েছে। স্বাস্থ্যকর্মীরা চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে প্রতিদিন দেড় হাজার থেকে দুই হাজার লিটার অক্সিজেন লাগছে। তবে অক্সিজেনের কোনো ঘাটতি নেই।’


Post Views:
23



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০২১
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102