মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৬:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
বাংলাদেশ বিমান বাহিনী অফিসার্স ক্লাব এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন দুদ‌কের মামলায় খুমেক হাসপাতালের সাবেক হিসাব রক্ষকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ‌ লক্ষ্মী পূঁজা উপলক্ষে গোপালগঞ্জে প্রতিমার হাট রামপালে ছাত্রলীগের উদ্যেগে শেখ রাসেল’র জন্মদিন উদযাপন বিশ্বে প্রথম সাগরে বিলাসবহুল পর্যটন স্পট বানাচ্ছে সৌদি আরব কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ চাকরির বিজ্ঞপ্তি coxda job circular 2021 তিন তারকার ব্যাটিং তান্ডবে ইংল্যান্ডকে হারাল ভারত – স্পোর্টস প্রতিদিন ইভ্যালি পরিচালনায় সাবেক বিচারপতিকে প্রধান করে পর্ষদ সাম্প্রদায়িক সহিংসতা: এ পর্যন্ত ৭১ মামলায় আটক ৪৫০ ভিভো কাস্টমার কেয়ারে গেমিং অ্যাক্টিভিটি

ভয়াবহ বন্যা পরবর্তী সংকটে শোকাবহ জার্মানি

  • আপডেট সময় সোমবার, ১৯ জুলাই, ২০২১
  • ১১
ভয়াবহ বন্যা পরবর্তী সংকটে শোকাবহ জার্মানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভয়াবহ বন্যা ও ভূমিধসে এরই মধ্যে ১৫০ জনের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন৷ এখনও উদ্ধারকাজ চলছে, অনেকে নিখোঁজ৷ বন্যার পানি নেমে গেলেও যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা কবে কাটিয়ে ওঠা যাবে এ নিয়ে রয়েছে শঙ্কা৷ খবর ডয়চে ভেলের।

কেবল রাইনল্যান্ড-প্যালাটিনেট রাজ্যেই শতাধিক মানুষ মারা গেছেন৷ ৭৫০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন৷ বন্য়ার পানি নেমে যাওয়ার পর রাস্তা, ব্রিজের ক্ষয়ক্ষতি আরো স্পষ্ট হয়ে উঠছে৷

আল্টেনআর শহরের মেয়র কর্নেলিয়া ভাইগান্ড আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন, সুপেয় পানির অভাবে দীর্ঘদিন ধরে ভুগতে হতে পারে বাসিন্দাদের৷ জার্মানির বিল্ড পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ‘‘অবকাঠামো এত বাজেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যে, কোনো কোনো এলাকায় কয়েক সপ্তাহ, এমনকি কয়েক মাসও সুপেয় পানি না থাকতে পারে৷” পরিস্থিতি সামাল দিতে জরুরি জল সরবরাহ ব্যবস্থা টালু করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি৷

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা এরই মধ্য়ে পরিদর্শন করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল৷ পুনর্গঠন এবং জলবায়ু পরিবর্তনের সংকট মোকাবিলায় তার সরকার কাজ করবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি৷ কিন্তু সেপ্টেম্বরে জার্মানিতে নির্বাচন৷ এবার আর ম্যার্কেল নির্বাচনে লড়ছেন না৷

আগামী নির্বাচনে গ্রিন পার্টির চ্যান্সেলর পদপ্রার্থী আনালেনা বায়েরবক৷ এআরডির মরগেনমাগাজিনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন যে, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এমন প্রাকৃতিক দুর্যোগ আরো হতে থাকবে৷ ‘‘আবহাওয়ার এমন প্রতিকূলতা আরো বাড়তে থাকবে৷’’ এই বন্যার ঘটনা জলবায়ু রক্ষায় দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার প্রয়োজনীয়তা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে বলেও মনে করেন তিনি৷ চ্যান্সেলর নির্বাচিত হলে বায়ুবিদ্যুৎ ও অন্যান্য নবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যবহার ব্যাপকভাবে বাড়ানো হবে বলেও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বায়েরবক৷

বাভারিয়া রাজ্যে ম্যার্কেলের দল সিডিইউ-এর সহযোগী দল সিএসইউ -র নেতা এবং বাভারিয়ার মুখ্যমন্ত্রী মার্কুস স্যোডার জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলার লড়াই তীব্র করার আহ্বান জানিয়েছেন৷ এআরডিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এই বন্যাকে ‘সতর্কবার্তা’ বলে উল্লেখ করেন৷

তার রাজ্যে জলবায়ু সংকট নিয়ে একটি নতুন আইন প্রণয়নের কাজ চলছিল৷ বন্যার পর সেটিকে বাস্তবায়ন করার কাজ আরো এগিয়ে আনা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷ বন্যায় মূলত জার্মানির পশ্চিমের কয়েকটি রাজ্য বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হলেও দক্ষিণের বাভারিয়াও আক্রান্ত হয়েছে৷ অস্ট্রিয়া সীমান্তের বের্শটেসগাডেন থেকে বন্যার জল বাড়িতে ঢুকে পড়ায় বাসিন্দাদের সরিয়ে নিতে হয়েছে৷

বন্যার ঘটনায় জার্মানির প্রাকৃতিক দুর্যোগ সতর্কতা ব্যবস্থার বেশ সমালোচনা হয়েছে৷ সঠিক সময়ে সঠিক সতর্কতা জারি করতে না পারায় এত হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেছেন অনেকে৷ কিন্তু এ অভিযোগ মানতে নারাজ ফেডারেল দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা দপ্তর- বিকেকে৷

বিকেকে-র প্রধান আরমিন শুস্টার ডয়েচলান্ডফুংক রেডিওকে এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘‘সতর্কতা অবকাঠামো আমাদের মূল সমস্যা না৷ আমাদের সমস্যা হচ্ছে সতর্কতা দেয়া সত্ত্বেও কর্তৃপক্ষ এবং জনগণ যেভাবে প্রতিক্রিয়া দেখান৷’’ শুস্টার জানান, গত সপ্তাহের বুধবার থেকে শনিবার পর্যন্ত তার সংস্থা ১৫০টি সতর্কতা জারি করেছিল৷



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০২১
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102