শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:৫১ অপরাহ্ন

বেগুনের ডগা ও ফল ছিদ্রকারী পোকা দমনের কৌশল | Adhunik Krishi Khamar

  • Update Time : বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১




ডগা ও ফল ছিদ্রকারী পোকা বেগুনের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। এটি কম বয়সী ডগাকে আক্রমণ করে। আক্রান্ত ডগা তাজা ভাব হারাতে থাকে। আক্রান্ত ডগার আকার নষ্ট হয়ে যায়। এমনকি আক্রান্ত বেগুন রান্না করলে এর স্বাদ হয় তেতো। মারাত্মক আক্রমণের ফলে পুরো গাছটিই মরে যেতে পারে। 

বেগুন  ডগা ও ফল ছিদ্রকারী পোকা নিয়ন্ত্রণের  উপায়


  • আক্রান্ত বেগুন ক্ষেতে খুবই সতর্কতার সাথে নজর রাখুনকোনো ডগা শুকিয়ে যাচ্ছে কিনা।
  • বেগুণ চাষের জন্য  সবসময় মানসম্পন্ন বীজ ব্যবহার করুন।
  •  আক্রান্ত বেগুনের মথ ক্ষেতের ধারে-কাছে  ফেলবেন না। কেননা এতে নতুন মথ জন্ম নিতে পারে।
  • বেগুনের ক্ষেতে এই পোকার আধিক্য দেখা দিলে ডিলারের কাছ থেকে বেগুন গাছের ডগা ও ফল ছিদ্রকারী পোকা মারার ফাঁদ কিনে আনতে পারেন।
  • পোকা দমনে ফেরোমন ফাঁদ ব্যবহার করা যেতে পারে সেক্ষেত্রে ফেরোমন ফাঁদ ১০-১২ মিটার দূরে-দূরে পেতে দিন।
  • বীজ কেনার আগে ভালভাবে পর্যবেক্ষণ করে দেখুন বীজে কোণ ক্ষতিকর জীবাণু আছে কিনা।
  • ক্ষতিকর মথের প্রবেশ ঠেকাতে ক্ষেত্রে চারপাশে জালের বেড়া দেওয়া যেতে পারে।
  • আক্রান্ত বেগুনের ডগা ধারালো ছুরি দিয়ে আলাদা করে কেটে মাটিতে পুঁতে রাখুন।
  • দিনে অন্তত দু’বার ক্ষেত পরিদর্শন করুন। কারণ এটি খুব দ্রুত বদলে যেতে পারে।
  • গাছের নিচের দিকের অপেক্ষাকৃত পুরোনো পাতাগুলো সরিয়ে ফেলুন।
  • ঝরা পাতাগুলো সরিয়ে পুড়িয়ে ফেলুন। যাতে পোকা কোকুন তৈরি করতে না পারে।
  • কোনো আক্রান্ত গাছ আছে কি-না, তা দেখার জন্য নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করুন।ঞ্জাল
  • ব্যবহার করলে অবশ্যই অর্ধ সেমি যুক্ত ৩ মিটার জাল ব্যবহার করতে হবে।
  •  
  • মথকে দূরে রাখতে জালটির ছিদ্র ছোট হতে হবে। মথ ৩ মিটারের উপরে উড়তে পারে না।
  • সাদা নাইলনের জাল ব্যবহার করুন। সাদা জাল ফসলের উপরে ছায়া দেয় না।
  • এতে পাখিরাও বেগুন গাছের ফুল এবং কচি ফল নষ্ট করতে পারে না।
  • সূর্য ওঠার আগে খুব সকালে মথগুলো বেগুন গাছের কচি ডগায় উড়ে-উড়ে ডিম পাড়ে।
  • খুব সকালে উড়ন্ত মথগুলো দেখে ঝাড়ু দিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলুন।
  • ক্ষেতে ফেরোমন ফাঁদ ব্যবহার করতে পারেন। বিভিন্ন পোকার বিভিন্ন গন্ধ বা ফেরোমন থাকে।
  • স্থানীয় কৃষি ডিলারের কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের পোকা ধরার ফাঁদ কিনতে পারেন।
  • নিশ্চিত হয়ে নিন যে, মথ মারার জন্য আপনি ঠিক ফাঁদটিই কিনেছেন।
  • ফাঁদের নিচের দিকে মথেরা ডিটারজেন্ট পানিতে ধরা পড়ে।
  • প্রতিদিন ফেরোমন ফাঁদ পরখ করুন। দরকার হলে ডিটারজেন্ট পানি রিফিল ও পরিবর্তন করুন।
  • স্থাপনের ৪০ দিন পরপর ফেরোমন টোপ বদলান।

আরো পড়ুনঃ টমেটো চাষে লাভবান হচ্ছেন চাষিরা


লেখক: কো-অর্ডিনেটর, কৃষি ও বীজ কর্মসূচি, সিসিডিবি, ঢাকা।


কৃষি প্রতিবেদন / আধুনিক কৃষি খামার









Source by [সুন্দরবন]]

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Recent Posts

© 2022 sundarbon24.com|| All rights reserved.
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102