সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
রাতের খাবার খেয়ে জ্ঞান হারিয়ে শিশুসহ ৪জন মোরেলগঞ্জ হাসাপাতালে মোরেলগঞ্জে এক ইউপি মেম্বারকে পিটিয়ে জখম সুইডেনে কুরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে মোরেলগঞ্জে বিক্ষোভ তাঁতীলীগের সভাপতির অভিযোগ বিএনপির দুই নেতার ষড়যন্ত্র ও মিথ্যা মামলায় দিশেহারা আওয়ামীলীগ! শরণখোলায় শেরে বাংলা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষিকার যোগদান, জাঁকজমক বরণ! রামপালে কিশোর কিশোরী বান্ধব স্বাস্থ্য সুবিধা বিষয়ক স্থানীয় স্বাস্থ্য সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের সাথে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত শরণখোলায় শেখ কামাল আন্তঃস্কুল-মাদরাসা অ্যাথলেট প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত শরণখোলায় তাফালবাড়ী বাজারের আধিপত্য নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১০ অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শরণখোলায় ১১৯ শিক্ষককে দেওয়া হল বিদায় সংবর্ধনা রামপালে সুইডেনের দূতাবাসে পবিত্র কুরআন পোড়ানোর ঘটনায় প্রতিবাদ সমাবেশ  অনুষ্ঠিত

ক্যারিয়ার হিসেবে নার্সিং

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই, ২০২১

পেশা হিসেবে নার্সিং

নার্সরা বাংলায় মূলত সেবিকা নামে পরিচিত। নার্সরা মেডিক্যাল প্রফেশনাল যাদের দায়িত্ব হল হাসপাতালে ভর্তি রোগীর পরিচর্যা বা সেবা করা এবং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককে চিকিৎসা কাজে সাহায্য করা। সাধারণত নার্সিং সেক্টরে নারীদের প্রাধান্যই বেশি, তবে ইদানিং অনেক পুরুষ পেশা হিসেবে নার্সিং বেঁছে নিচ্ছে। আমাদের দেশে জনসংখ্যার ঘনত্ব অনেক বেশি বিধায় স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা খাতে প্রচুর জনবল প্রয়োজন হয়। তাই চাকরির বাজারে নার্সদের চাহিদা অনেক।

কেন নার্সিং পড়বেন?

  • নার্সিং বহুল অর্থে মেয়েদের পেশা বিধায় ক্যারিয়ার সচেতন মেয়েদের জন্য এটি হতে পারে সঠিক পথ। 
  • স্বাস্থ্যখাতের পেশাদার হবার কারণে নার্সদের চাকরির বাজারে অনেক চাহিদা। 
  • আশেপাশের যেকোনো শহরে নার্সিং নিয়ে পড়াশোনার জন্য বিভিন্ন হেলথ সায়েন্স কলেজ ও ইনিষ্টিটিউট রয়েছে। 
  • পড়াশোনার খরচ তুলনামূলকভাবে অনেক কম বিধায় যে কেউ এটি নিয়ে পড়তে পারে। 
  • পেশাদার হিসেবে নার্সরা অপেক্ষাকৃত কম সময়ে চাকরি ও উপার্জনের সুযোগ পায়। 
  • সেবামূলক পেশা বিধায় মানবসেবার অন্যতম ভালো প্লাটফর্ম। 
  • দেশে-বিদেশে উচ্চশিক্ষার সুযোগ রয়েছে এবং 
  • অন্যান্য পেশার মতো পদোন্নতি, ভালো বেতন ও বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা রয়েছে। 

নার্সদের কাজ

নার্সরা একটি হাসপাতালে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকায় থাকেন। নার্সদের ডিউটির মধ্যে রয়েছে-

  • হাসপাতালের ওয়ার্ডে কিংবা কেবিনে রোগীর সাধারণ পরিচর্যার দায়িত্বে থাকেন একজন নার্স
  • রোগীকে রুটিনমাফিক খাওয়ানো, ওষুধ খাওয়ানো
  • রোগীর ২৪ ঘণ্টার শারীরিক রিপোর্ট ফাইলে লিপিবদ্ধ করা এবং ডাক্তারকে আপডেট দেয়া
  • স্যালাইন পুশ, ইন্ট্রাভেনাস ইনজেকশন পুশ করা
  • নাইট ডিউটি ও রোগীর যেকোনো সমস্যায় সার্বক্ষণিক সাড়া দেয়া
  • অপারেশন থিয়েটারে সার্জনকে সহযোগিতা করা
  • ব্লাড প্রেশার মাপা, ব্লাড সুগার চেক, তাপমাত্রা পরীক্ষা ইত্যাদি সাধারণ পরীক্ষাগুলো নিয়ে আপডেট থাকা
  • ICU এবং CCU তে কাজ করার সময় বিভিন্ন মেডিক্যাল ডিভাইস পরিচালনা করতে জানা

নার্সিং নিয়ে পড়াশোনা

নার্সিং পেশায় আসতে চাইলে সরকার অনুমোদিত কোন প্রতিষ্ঠান থেকে নার্সিং নিয়ে কোন ডিগ্রি অর্জন করতে হবে। বাংলাদেশে নার্সিং পড়ার জন্য দুই ধরনের কোর্স চালু আছে, ডিপ্লোমা এবং বিএসসি।

বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি পাশ করে সরকারি বা বেসরকারি বিভিন্ন ইন্সটিটিউটে  ডিপ্লোমায় ভর্তি হওয়া যায়। বিএসসি ইন নার্সিং পড়তে হলে এসএসসি ও এইচএসসি তে বিজ্ঞান থাকা আবশ্যক।

দুই পরীক্ষায় আলাদাভাবে কমপক্ষে জিপিএ ৩.০০ থাকতে হবে। ডিপ্লোমা নার্সিং করার পরও বিএসসি করা যায়। ডিপ্লোমা নার্সিং এর কোর্সের মেয়াদ ৩ বছর এবং বিএসসির ক্ষেত্রে ৪ বছর। তবে ডিপ্লোমার পর বিএসসি করতে সময়কাল ২-৩ বছর এবং কোর্স শেষে রয়েছে ৬ মাসের ইন্টার্নশিপ।

সরকারি কলেজে বিএসসি নার্সিং ভর্তি পরীক্ষা হয় MCQ পদ্ধতিতে। পরীক্ষার ১০০ নাম্বারের হয়ে থাকে। এর সাথে এসএসসি ও এইচএসসির নাম্বারের যথাক্রমে ২০ ও ৩০ নাম্বার যোগ হয়।

এক ঘণ্টার পরীক্ষা শেষে ৪০ নাম্বারে পাশ মার্ক ধরা হয়। দেশে মতো ১৩ টি সরকারি বিএসসি নার্সিং কলেজ রয়েছে। ডিপ্লোমা নার্সিং ইন্সটিটিউটের সঙ্খা ৪৬ টি। বিএসসির পর বিভিন্ন মাস্টার্স ডিগ্রিতে ভর্তি হওয়ার সুযোগ থাকে। চাইলে এরপরেও আরও উচ্চশিক্ষায় অংশ নেয়া যায়। 

আরোও পড়ুন – পেশা হিসেবে ফিজিওথেরাপি কেমন

নার্সিং পড়তে খরচ

সরকারিভাবে ডিপ্লোমা নার্সিং পড়তে কোন খরচ নেই। সরকারি নার্সিং কলেজ থেকে বিএসসি করতে ১ লাখ থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকার মতো খরচ হতে পারে। বেসরকারিভাবে ডিপ্লোমা করতে খরচ ১ থেকে ১ লাখ ২০ হাজারের মতো।

বিএসসি কোর্সে ২ লাখ ৫০ হাজার থেকে ৩ লাখের মতো খরচ হবে। সবসময় খেয়াল রাখতে হবে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানটি সরকার বা বিএনএমসি অনুমোদিত কিনা।

কাজের ক্ষেত্র

নার্সদের কাজের ক্ষেত্র বেশ প্রশস্ত।

  • সরকারি নার্স হিসেবে যারা নিয়োগ পান তারা বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে দায়িত্বপালন করেন
  • বিভিন্ন বেসরকারি মেডিকেল ও ক্লিনিকে চাকরির সুযোগ
  • উচ্চশিক্ষা শেষ করে শিক্ষকতা করার সুযোগ আছে
  • দক্ষ ও মেধাবী নার্সদের বিভিন্ন দেশে চাকরি নিয়ে মাইগ্রেট হওয়ার সুযোগ মেলে
  • বিভিন্ন চিকিৎসা গবেষণায় কাজ করার সুযোগ আছে
  • বিভিন্ন এনজিওতে চাকরির সুযোগ পাওয়া যায়
  • এছাড়াও সরকারি অধিদপ্তরের বিভিন্ন উচ্চপদে প্রমোশন পাওয়া যায়

ক্যারিয়ার হিসেবে নার্সিং – বেতন, পদবী ও প্রমোশন

নার্সিং পেশার অন্যতম সুবিধা হল বেকারত্বের সুযোগ খুবই কম। পড়াশোনা শেষ করার সাথে সাথেই কাজে ঢোকার সুযোগ বেশি। নার্সরা ভালো বেতন-ভাতা পেয়ে থাকেন। বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে ফ্রেশার হিসেবে ১৪-১৫ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ৪০-৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন পাওয়া যায়।

তবে প্রতিষ্ঠানভেদে বেতন কমবেশি হতে পারে। নার্সরা চাকরি চলাকালীন সহজেই বিভিন্ন প্রমোশন পেয়ে থাকেন। সরকারি নার্সদের ক্ষেত্রে সিনিয়র স্টাফ নার্সরা দ্বিতীয় শ্রেণীর কর্মকর্তা হিসেবে মর্যাদা পান।

সরকারি নার্সরা সরকার নির্ধারিত বেতনভাতা ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা পেয়ে থাকেন। কর্মজীবনে একজন নার্স স্টাফ নার্স হিসেবে চাকরিতে ঢুকে সিনিয়র স্টাফ নার্স, নার্সিং সুপারভাইজার, নার্সিং সুপারিনটেনডেণ্ট, মেট্রন নার্স বা নার্স ম্যানেজার হিসেবে প্রমোশন পেতে পারেন। এছাড়াও শিক্ষকতাকে পেশা হিসেবে নিয়ে বিভিন্ন শিক্ষক পদবী পাওয়ার সুযোগ রয়েছে।

পরিশেষে

একবিংশ শতাব্দিতে স্বাস্থ্যখাত পেশা হিসেবে নেয়ার জন্য অন্যতম সম্ভাবনাময় খাত। নার্সিং পেশা নারীদের জন্য বিশেষায়িত পেশা। তাই স্বাবলম্বী হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করা এবং মানবসেবায় ভূমিকা রাখার জন্য নার্সিং পেশাকে ক্যারিয়ার হিসেবে গ্রহন করা নিঃসন্দেহে সঠিক সিদ্ধান্ত।



Source by [সুন্দরবন]]

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Recent Posts

© 2022 sundarbon24.com|| All rights reserved.
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102