শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:৩০ অপরাহ্ন

শরণখোলায় আশ্রয়ন প্রকল্প সহ ভারী বর্ষনে পানিবন্দি এলাকা পরিদর্শন করেন ডিসি

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই, ২০২১

সুন্দরবন ডেক্স: শরণখোলা উপজেলায় টানা ৩ দিনের অবিরাম বর্ষণে গ্রামাঞ্চলের ফসিলী জমি, মাছের ঘের ডুবে গিয়ে বাড়ীঘর সহ পানিতে থৈ থৈ করছে। থমকে গেছে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। বৃহস্পতিবার বিকেলে বাগেরহাট জেলা প্রশাসক মোঃ আজিজুর রহমান শরণখোলা উপজেলার অবিরাম বৃষ্টিতে প্লাবিত নলবুনিয়া, রাজৈর, কদমতলা, খাদা, উত্তর তাফালবাড়ী সহ গোলবুনিয়া গ্রামে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শণ করেন এবং দ্রুত পানি নিষ্কাশনের আশ্বাস দেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসকারী পরিবার সহ পানী বন্ধী পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার ও চাল বিতরণ করেন। এ সময় শরণখোলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রায়হান উদ্দিন শান্ত, উপজেলা নির্বাহী অফিসার খাতুনে জান্নাত ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমল হোসেন মুক্তা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে শরণখোলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রায়হান উদ্দিন আকন (শান্ত) ও উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা খাতুনে জান্নাত প্রতিদিনের ন্যায় আজও তাদের মানবিক কার্যক্রম চালিয়েছেন। এ সময় তারা পানিবন্দি বিপদগ্রস্থ মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিজ হাতে শুকনো খাবার বিতরণ করেন।

গোলবুনিয়া গ্রামের সবুর বয়াতি বলেন:- কয়েকদিন যাবৎ দেওইর পানিতে মোগো ঘরদুয়ার তলাইয়া গেছে তাই, মোগো ঘরে রান্নাবান্না হয় না, গুরাগারা লইয়া না খাইয়া আছি, মোগো এই বিপদের দিনে ডিসি স্যারে ওদ্দুরদা আইয়া মোহো খাবার দেছে মোরা খুসি। বান্দাঘাটা এলাকার মনির হোসেন জানান:- আমরা যে থেকে পানি পানি বন্দি হইছি তার পর থেকে মানবিক উপজেলা চেয়ারম্যান আমাগো শান্ত ভাই প্রতিদিন খোঁজ-খবর নেন এবং বৃষ্টিতে ভিজে বুক সমান পানির মধ্যে হেটে আমাদের এলাকার প্রতি ঘরে ঘরে শুকনো খাবার দিয়েছেন, আল্লাহ তার মঙ্গল করুক।

মৌরাশি এলাকার লাখি বেগম বলেন:- শেখ হাসিনা মোগো ঘর দেছে, এই বৃষ্টিতে ঘর ডুইবা গেছে, ছেলে মেয়ে নিয়ে মানুষের বাসায় রাইতে থাহি, ঘরে খাবার নাই, মোগো নতুন টিওনো নৌকায় বৃষ্টিতে ভিজ্জা পুইরা আইয়া মোগো খাবার দেছে মোরা খুসি হ্যার জন্য দোয়া করি।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Recent Posts

© 2022 sundarbon24.com|| All rights reserved.
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102