শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১০:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম

ডেঙ্গি বিরোধী অভিযান, মসজিদে মসজিদে মাইকিং

  • আপডেট সময় শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১
  • ১১
ডেঙ্গি বিরোধী অভিযান, মসজিদে মসজিদে মাইকিং

প্রকাশিত: ১২:১৫ পূর্বাহ্ণ, ৩১ জুলাই ২০২১

ছবি: সংগৃহীত

করোনার সংক্রমণ প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে তার সাথে সাথে বাড়ছে মৃত্যুও। আক্রান্ত হচ্ছে হাজার হাজার মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে দেশে হানা দিয়েছে এডিস মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গি। দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে নতুন করে আরও ১৭০ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) বিকেলে সারাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গু বিষয়ক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ডেঙ্গিতে আক্রান্তদের অধিকাংশই রাজধানী ও ঢাকা বিভাগের।

এ অবস্থায় ছুটির দিনেও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ডেঙ্গি বিরোধী অভিযান পরিচালনা করেছে। এছাড়াও ডেঙ্গি মশার প্রজননস্থল সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করতে ওয়ার্ডে-ওয়ার্ডে মাইকিং করা হয়েছে এবং মসজিদে-মসজিদে ইমামরা জনসচেতনতা সৃষ্টি ও মশার লার্ভা ধ্বংসে মুসল্লিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এদিন দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ডেঙ্গি মশার নিয়ন্ত্রণে ১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছে।

এছাড়াও করপোরেশনের অঞ্চল ২, ৩ ও ৫ এর সব ওয়ার্ডসহ অন্যান্য অঞ্চলের প্রায় সব ওয়ার্ডে ডেঙ্গি মশার লার্ভা ধ্বংসে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে মাইকিং করা হয়েছে। পাশাপাশি করপোরেশনের আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও কাউন্সিলরদের অনুরোধের প্রেক্ষিতে মসজিদে-মসজিদে জুমার নামাজের সময় মসজিদের ইমামরা ডেঙ্গি মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করতে এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে মুসল্লিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানজিলা কবির ত্রপার নেতৃত্বে এডিস মশা নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে আজ অঞ্চল ৪ এর আওতাধীন ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে ৩৫টি ভবন পরিদর্শন করা হয়। এ সময় দেবি দাস ঘাট লেনের ৩২/বি এ ‘মীম ফুড এর জাহান টোস্ট স্পেশাল বিস্কুট ফ্যাক্টরিতে মশার লার্ভা পাওয়ায় ১টি মামলা দায়ের ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

অভিযান প্রসঙ্গে তানজিলা কবির ত্রপা বলেন, সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে আজকের অভিযান এ আমরা জাহান টোস্টের স্পেশাল বিস্কুট ফ্যাক্টরিতে অভিযান পরিচালনা করেছি এবং সেখানে মশার লার্ভা পাওয়ায় ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড আরোপ করেছি।

অঞ্চল-৩ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা বাবর আলী মীর বলেন, জনসচেতনতামূলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মাইকিং করা ও ইমামদের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে। তিনি বলেন, এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করতে বহুমুখী কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আমরা আমাদের কাউন্সিলরদের নেতৃত্বে এবং তদারকিতে ইতোমধ্যে অঞ্চলের সব ওয়ার্ডে মাইকিং করেছি এবং তা অব্যাহত রয়েছে। এছাড়াও আমরা মসজিদের ইমামদেরকে এ বিষয়ে জনগণকে সচেতন করতে আহ্বান জানিয়েছিলাম।

তিনি আরও বলেন, আমাদের আহ্বানের প্রেক্ষিতে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় ইমামরা মসজিদের মুসল্লিদের সে বিষয়ে সচেতন করেছেন এবং অনেক মসজিদের ইমামরা স্বপ্রণোদিত হয়ে এডিস মশার লার্ভা ধ্বংসে বারবার মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়েছেন।

এ বছর এখন পর্যন্ত (গত ১ জানুয়ারি থেকে আজ ২৯ জুলাই) হাসপাতালে সর্বমোট রোগী ভর্তি হয়েছেন ২ হাজার ৪৬২ জন। একই সময়ে তাদের মধ্য থেকে হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ হাজার ৭৪৯ জন রোগী।

এ বছর এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে কারও মৃত্যুর তথ্য জানায়নি স্বাস্থ্য অধিদফতর। তবে ৪ জনের মৃত্যুর তথ্য পর্যালোচনার জন্য (ডেঙ্গুতে মৃত্যু হয়েছে কি না তা জানতে) আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে অধিদফতর।

নাঈম/সাএ




Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি
সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০২১
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102