রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:৫১ পূর্বাহ্ন

সিদ্ধার্থর মৃত্যুর পর এই প্রথম মুখ খুললেন তাঁর মা

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২২
সিদ্ধার্থর মৃত্যুর পর এই প্রথম মুখ খুললেন তাঁর মা

বিনোদন ডেস্ক: হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেছেন বলিউড অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লা। মাত্র ৪০ বছর বয়সী ছেলেকে হারিয়ে ভেঙে পড়েন মা রীতা শুক্লা। সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) ছিল সিদ্ধার্থর স্মরণ সভা।

তার জন্য প্রার্থনার আয়োজন করেছিলেন পরিবারের সদস্যরা। ভার্চুয়াল ওই সভায় অংশ নিয়েছিলেন সিদ্ধার্থর মা রীতা শুক্লা। ছেলেকে স্মরণ করে রীতা বলেন, ‘আমার শুধু একটাই সংকল্প। ও যেখানেই আছে, ভালো থাকুক।’

স্মরণ সভা শেষে সিদ্ধার্থর পরিবারের পক্ষ থেকে তার ভক্তদের উদ্দেশ্যে একটি বার্তা দেওয়া হয়েছে। সেখানে লেখা হয়, ‘সিদ্ধার্থের এই যাত্রা পথে যে বা যারা তার সঙ্গে ছিলেন এবং সবসময় ভালোবাসা দিয়ে এসেছেন তাদের সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ। এই যাত্রা শেষ হয়নি। কারণ, ও এখন আমাদের হৃদয়ে বাস করছে।’

এদিকে, প্রয়াত অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল চলতি বছরের ডিসেম্বরে। প্রেমিকা শেহনাজ গিলকেই ঘরে তোলার কথা ছিল তার। মুম্বাইয়ের একটি দামি হোটেলের সঙ্গে কথাবার্তাও হয়েছিল। কিন্তু সব পরিকল্পনা ভেস্তে গেল।

শেহনাজ থেকে অনেক অনেক দূরে চলে গেছেন সিদ্ধার্থ। তিনি আর ফিরবেন না। এ শোক বইয়ে বেড়াচ্ছেন শেহনাজ। প্রেমিকের মৃত্যুশোকে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন শেহনাজ। তার ফোন বন্ধ করে রেখেছেন। যোগাযোগ করা যাচ্ছে না তার সঙ্গে। এমনটাই জানিয়েছেন শেহনাজের এক বান্ধবী।

নিজের মধ্যে প্রস্তুতি সারছিলেন সিদ্ধার্থ-শেহনাজ। প্রস্তুতির কথা গোপন রেখেছিলেন তারা। মুম্বাইয়ের একটি দামি হোটেলে তিনদিনের অনুষ্ঠান করার ইচ্ছা ছিল তাদের।

‘বিগ বস’ প্রতিযোগিতার ১৩তম আসরের প্রতিযোগী ছিলেন সিদ্ধার্থ-শেহনাজ। তাদের সঙ্গে ছিলেন সংগীত পরিচালক অনু মালিকের ভাই আবু মালিক। আবু মালিকের ওপর দায়িত্ব ছিল বিয়েতে সিদ্ধার্থকে রাজি করানোর। সে অর্পণ করেছিলেন শেহনাজ নিজেই।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে আবু মালিক বলেন, ‘আমার যত দূর মনে পড়ে, গত বছর ২২ মার্চ শেহনাজ আমাকে এই কথাগুলো বলেছিল। সম্ভবত প্রথম লকডাউনের এক দিন আগে।’

এদিকে, অভিনেতার মৃত্যুর পর এবার ভাইরাল হয়েছে তার পুরনো টুইট। গত ২৪ জানুয়ারি টুইটটি করেছিলেন সিদ্ধার্থ। লিখেছিলেন, ‘জীবনটা ছোট। অন্যরা তোমার সম্পর্কে কী বলছে, তা নিয়ে ভাবার সময় নেই। জীবনে আনন্দ কর। লোকজন যেন তোমাকে নিয়ে চর্চা করে, সে রকম পরিস্থিতি তৈরি কর।’

পুরনো টুইট ভাইরাল হতেই আবেগী হয়ে উঠেছেন অনেক সিদ্ধার্থ ভক্ত। তারা মনে করছেন অভিনেতার মনোভাব সত্যি মিলে গেছে। তবে এটি মেনে নিতে পারছেন না তার ভক্তরা।



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি
সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০২১
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102