শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৫:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ছাগলের বিভিন্ন পুষ্টি উপাদানের চাহিদা | Adhunik Krishi Khamar নথির খোঁজে ট্রাম্পের বাসায় এফবিআইয়ের তল্লাশি চার বন্দরে ৩ নম্বর সংকেত বহাল, প্লাবিত হতে পারে নিম্নাঞ্চল বেনজামাকে পেছনে ফেলে এবার লা লিগার শীর্ষ গোলদাতা হবে লেভানদস্কি – স্পোর্টস প্রতিদিন খুলনায় চিং‌ড়ি‌তে অপদ্রব‌্যপুশের অপরা‌ধে ৭জ‌নের জেল রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে চুরি হওয়া মূল্যবান মালামালসহ ৪ চোরকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব শিল্প-কারখানায় এলাকাভিত্তিক আলাদা সাপ্তাহিক ছুটি ইঞ্জিনিয়ার ২ মিনিটের কাজের বিল চাইলেন ২ লাখ টাকা স্মার্ট সোসাইটি প্রকল্প বিষয়ে মতবিনিময় সভা – টেক শহর মা পাঠাতেন ভিসা, ছেলে পাঠাতেন নারী

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ফসলের খেত, লোকসানে দিশেহারা চাষিরা | Adhunik Krishi Khamar

  • আপডেট সময় বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ফসলের খেত, লোকসানে দিশেহারা চাষিরা | Adhunik Krishi Khamar




গত বছরের ন্যায় চলতি বছরেও পাহাড়ী ঢল ও অতিবৃষ্টির কারণে যমুনায় সৃষ্ট বন্যায় সিরাজগঞ্জ জেলার কাজিপুরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ফসলের খেত।  চলতি বছর বন্যায় বিশ কোটি টাকারও অধিক ক্ষতি হয়েছে। এতে করে লোকসানে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন জেলার প্রান্তিক চাষিরা।

উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্যমতে, যমুনার চরাঞ্চলে অবস্থিত ছয়টি ইউনিয়নসহ ১২ ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার ৫০ হাজার কৃষক এবার মোট ১১ হাজার ৪৬৫ হেক্টর জমিতে রোপা আমনের চাষ করেছিলেন। কিন্তু সাম্প্রতিক বন্যায় এই ফসলের অনেকটাই নষ্ট হয়ে গেছে। এতে রোপা আমন বীজতলা ক্ষতি হয়েছে ৩০ হেক্টর, রোপা আমন ২ হাজার ৫২০ হেক্টর, শাকসব্জি ১৫ হেক্টর, এবং কলার ক্ষেত ৩ হেক্টর।  ক্ষতির শিকার হয়েছেন মোট ১৩ হাজার ৩৭১ জন কৃষক।

উপজেলার সোনামুখী ইউনিয়নের চাষি মনসুর বলেন, চলতি বছর বেগুন চাষ করেছিলাম। গাছের বৃদ্ধিও ভাল ছিল আর কিছুদিন বাদে ফল ধরা শুরু হত। কিন্তু বন্যার পানিতে পুরো খেত পানির নিচে ডুবে থাকায় গাছের গোড়া পচে সব গাছ মরে যাচ্ছে। এতে করে তার অনেক টাকা লোকসান হয়েছে।

চরগিরিশ ইউনিয়নের চাষি হাসেম আলী বলেন, বন্যায়  আধাপাকা ধান পানির নিচে ডুবে থাকার ফলে নষ্ট হয়ে গেছে। পানি সরে গেলেও সেই খেত থেকে কোন ফসল পাওয়া যাবেনা।  সরকারি কোন সহায়তা পেলে লোকসান কাটিয়ে পুনরায় কৃষি কাজে মননিবেশ করা যেতে বলেও তিনি জানান।

এ প্রসঙ্গে কাজিপুর উপজেলা কৃষি অফিসার রেজাউল করিম জানান, প্রকৃতির উপর কারো হাত নেই। তবে আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করছি। কৃষকের পাশে রয়েছি। তাদের জন্যে সরকারি সহায়তাও আসছে। সামনে মাসকলাই, সরিষা চাষের জন্যে কৃষকদের পরামর্শসহ প্রয়োজনীয় সহায়তা দিচ্ছি।









Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102