সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:১১ পূর্বাহ্ন

মহাকাশে ওয়েডিং ফটোশুটের সেবা নিয়ে আসছে স্পেসএক্স

  • Update Time : শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১

এবার স্পেসএক্সের প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্ক eআরকিকে জানালেন অভূতপূর্ব এক তথ্য। সারা বিশ্বে এর আগে কখনোই এমনটা ঘটেনি। সম্ভবত আগামী মাস থেকেই চালু হচ্ছে মহাকাশে ওয়েডিং ফটোশ্যুটের ব্যবস্থা, আগ্রহীরা এখন থেকেই বুকিং দিতে পারবেন— এমনটাই জানালেন ইলন মাস্ক।

হঠাৎ এমন সিদ্ধান্তের কারণ কী, এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, ‘বাংলাদেশ আমার চোখ খুলে দিয়েছে। সেদিন প্লেনের ভেতর ফটোশ্যুট দেখে আমার শুভবুদ্ধি জাগ্রত হয়। প্লেনের মধ্যে ফটোশ্যুট করতে পারলে, রকেটে সমস্যা কী? সেটা তো আরও গর্জিয়াস হবে। আর সেখান থেকেই মহাকাশের ভাবনা!’

ইতোমধ্যে মহাকাশে ছবি তোলার জন্য নির্দিষ্ট কিছু সাইট ঘোষণা করা হয়েছে। যেমন, ট্রপোমন্ডল, স্ট্রাটোমন্ডল, মেসোমন্ডল, এবং তাপমন্ডল— প্রত্যেকটি স্ফিয়ারেই আছে আলাদা আলাদা ছবি তোলার ব্যবস্থা। কেউ চাইলে প্রতিটি গ্রহ,-উপগ্রহের সাথে সিঙ্গেল ছবি তুলতে পারবেন। গ্রহের সারফেসে রঙিন প্ল্যাকার্ডে তাদের নাম লিখে টানানোর ব্যবস্থা থাকবে। ছবি তোলা যাবে শনির বলয়ে শুয়ে শুয়ে কিংবা মহাকাশে ভাসমান অবস্থায়। তবে কম আয়োজনের সারতে চাইলে (হুট করে বিয়ের ক্ষেত্রে) বাইরে না বেরিয়ে শুধু রকেটের মধ্যেও ফটোসেশন করা যাবে।

এদিকে এই সঙবাদে আলোড়ন পড়ে গেছে সারা দেশে। একজন আরেকজনকে পেছনে ফেলে মহাকাশে ওয়েডিং শ্যুট করতে চাইছেন। ঢাকার আজমল (৫৫) ও রুনা (৫০) নামের এক দম্পতি ওয়েডিং শ্যুটের জন্য বুক দিয়েছেন। তাদের ছেলের ঘরের একটি মেয়ে থাকার পরেও এই বয়সে ফটোশ্যুটের দরকার কি জানতে চাইলে রুনা আক্তার বলেন, ‘আমাদের যখন বিয়েশাদী হয়, তখন এইসব ছিলো না। অনেক স্বপ্ন দেখতাম। এখনকার ভিডিও আর ফটোশুট দেখে বিয়ে করতে মন চায়। কিন্তু চাঁদ তারার সাথে ওয়েডিং ফটোশ্যুট, অহ মাই গড! এর জন্য দরকার হলে আমি দশজনকে দশবার বিয়ে করবো…’

এ বক্তব্যে রুনার হার্ট পেশেন্ট স্বামী আজমল বুকে কিঞ্চিত ব্যথা অনুভব করেন। তিনি বর্তমানে গ্রিন লাইফ হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

জানা গেছে, সারাজীবন বিয়ে করবেন না বলে ঠিক করা অনেক তরুণ-তরুণীই এই খবরে দ্রুত বিয়ে করতে উৎসাহী হয়ে পড়েছে। অনেকেই জানতে চাইছেন, মহাকাশে মেক আপ আর্টিস্ট, ফটোগ্রাফার, সিনেমাটোগ্রাফার রেডি আছেন নাকি এখান থেকে নিয়ে যেতে হবে। এ ব্যাপারে ইলন মাস্কের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি গুনগুন করে ‘দুলহে কা সেহরা সুহানা লাগতা হ্যায়’ গানটা গেয়ে লাজুক হেসে বলেন, ‘দেখেন না সামনে আরও কত্ত কী হয়। দরকার পড়লে এলিয়েন ফটোগ্রাফার রাখবো।’




Source by [সুন্দরবন]]

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Recent Posts

© 2022 sundarbon24.com|| All rights reserved.
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102