রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:১০ পূর্বাহ্ন

বড় অর্জনের জন্য বড় স্বপ্ন দেখুন

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১
  • ২৩
বড় অর্জনের জন্য বড় স্বপ্ন দেখুন

সেই মানুষই জীবনে অনেক বড় হয়, সফলতার মুকুট পড়তে পারে, সফলতা ছিনিয়ে আনতে পারে যিনি বড় স্বপ্ন দেখতে পারে। সফলতা এমন কিছু না যা আমাদের হাতে কেউ তুলে দিবে না।

সফলতার পথে আপনাকেই একা হাঁটতে হবে। আপনি যখন সফল হবেন আপনার শুভাকাঙ্ক্ষীর অভাব নেই, আর যখনই আপনি ব্যর্থ হবেন আপনার স্থান একদম নিন্ম সারিতে।

শুনতে খারাপ লাগতেই পারে, তবে এটাই আমাদের সমাজের বাস্তবতা। এক বন্ধু যখন BMW হাকিয়ে গ্রামের বাড়িতে যায়, তখন তার অন্য বন্ধুরা আসে তার সাথে দেখা করার জন্য। হাতে করে নিয়ে আসে ফুল, মিষ্টি।

কিন্তু তাদের’ই আরেক বন্ধু যখন সাধারন ভাবে আসে, তখন তাকে দেখেও অন্যরা পাত্তা দেয় না।

দেখা যায়, এরা সবাই একই সাথে বড় হয়েছে, একই স্কুলে পড়াশুনা করেছে কিন্তু ক্যারিয়ারে একজন মস্তবড় সফল, আরেক জন কোন রকম খেয়ে পরে বেঁচে আছে।

এদের মধ্যে মূল পার্থক্য করে দিয়েছিল সেইদিন যখন এক বন্ধু আকাশ ছোয়ার স্বপ্ন নিজের মধ্যে লালন করেছিল আর অন্যজন খেয়ে পরে বেঁচে থাকা স্বপ্ন দেখেছিল।

এই দুই বন্ধুর মধ্যে এক জায়গায় কিন্তু মিল আছে।

এই মিল হলো, দুই বন্ধুই স্বপ্ন দেখেছিল, তবে একজনের স্বপ্নের সাথে অন্যজনের স্বপ্নের কোনই মিল নেই।

আমাদেরকে মনে রাখতে হবে, সফল তারাই হয় যারা স্বপ্নবাজ, এই স্বপ্নবাজ মানুষরাই সাফল্যকে তাদের একান্ত নিজের করে নেয়।

একটি মজার বিষয় হচ্ছে, অনেকেই বড় স্বপ্ন ঠিকই দেখে তারপরও তা শুধুমাএ স্বপ্নই থেকে যায়। এর মূল কারন তারা যা জীবনে হতে চেয়েছিল তার প্রতি বিশ্বাসের ঘাটতি ছিল।

বড় অর্জনের জন্য বড় স্বপ্ন দেখুন এটা কোন সহজ বাক্য না। বড় স্বপ্নকে বাস্তবরুপ দিতে হলে আমাদের সেই স্বপ্নকে কল্পনা করতে হবে।

আমি যেখানে যেতে চাই, যেই পজিশনে থাকতে চাই, যেই লাইফস্টাইল নিজের করে নিতে চাই তা কল্পনা করতে হবে।

আমাদের প্রথম কাজ হবে বড় স্বপ্ন দেখা, দ্বিতীয় কাজ হবে সেই স্বপ্নকে খুটিয়ে খুটিয়ে কল্পনা করা। এর পরের ধাপ হবে কল্পনাকে বাস্তবরুপ দেওয়ার জন্য পরিকল্পনা করা।

শেষ ধাপ হবে, পরিকল্পনাকে বাস্তবরুপ দেওয়ার জন্য ছোট ছোট লক্ষ্য ঠিক করা।

এক বারে লাফ দিয়ে ১০০ তলায় উঠতে চাওয়া কোন দিনই উচিত না।

আপনি হয়ত খেয়াল করে দেখবেন সমাজে অনেকেই অবৈধ পথে টাকা কামিয়ে আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ হয়ে যায়, আর যখন ধরা পরে তখন সেই লোক সহ পরিবারের সকল সদস্য এমনকি আত্নীয়স্বজনদের মুখে চুন-কালী পরে যায়।

আমাদের মনে রাখতে হবে, অবৈধ পথে ১ কোটি টাকা ইনকামের চেয়ে বৈধ পথে ১০ টাকার মূল্য অনেক বেশি।

আপনার এই বৈধ ১০ টাকা নিয়েই আপনি সমাজে বুক ফুলিয়ে হাঁটতে পারবেন আর যার কাছে অবৈধ টাকা থাকে সে সেই টাকা লুকানোর জায়গা পায় না, একই সাথে দুনিয়া ও আখিরাত উভয়ই নষ্ট করে।

বিশ্বাস করুন, সৎ পথে থেকেই বিশাল অঙ্কের টাকার মালিক হওয়া যায়, এই পথে সফলতা ধীরে আসলেও অনেক বেশি ঠিকসই হয়। আরো পড়ুন- কাজে লেগে থাকুন না হয় হতাশা আপনার পিছনে লেগে থাকবে

বড় কিছু অর্জন তখনই করা যায় যখন আপনি আসলেই মনে প্রানে চান।

যখন আপনি মনে প্রানে চাইবেন তখন সেই কাজে সফল না হওয়া পর্যন্ত থেমে যাওয়ার সুযোগই থাকে না। সফল আমাদেরকে হতেই হবে, যদি আমরা তা বিশ্বাস করি।

যখন আপনি সফল হবেন তখন, আজকের এই ত্যাগ, পরিশ্রম, কষ্টের দিকে তাকিয়ে এক প্রশান্তির হাসি হাসবেন। আপনি নিজেকে কোথায় দেখতে চান, তার স্বপ্নবীজ আপনাকেই বুনতে হবে।



Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি
সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০২১
Designer: Shimulツ
themesba-lates1749691102