শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১৯ অপরাহ্ন

প্রত্যন্ত অঞ্চলে পৌঁছাতে গ্রামীণফোনের ২০০ জিপিসি

  • Update Time : বুধবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২১
প্রত্যন্ত অঞ্চলে পৌঁছাতে গ্রামীণফোনের ২০০ জিপিসি

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রত্যন্ত অঞ্চলে গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করতে কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে গ্রামীণফোন সেন্টার চালুর মধ্য দিয়ে ২০০তম জিপিসি স্থাপনের মাইলফলক অর্জন করেছে জিপি।সারা দেশে ২০০ টি ফ্ল্যাগশিপ স্টোর গ্রামীণফোন সেন্টার’ (জিপিসি) এর কার্যক্রম শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি।এই উপলক্ষে বুধবার ভার্চুয়াল মাধ্যমে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে গ্রামীণফোন। 

জিপিসি উদ্বোধন করেন বিটিআরসি’র মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাসিম পারভেজ।গ্রামীণফোনের হেড অব কমিউনিকেশনস খায়রুল বাশারের সঞ্চালনায় এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গ্রামীণফোনের চিফ মার্কেটিং অফিসার সাজ্জাদ হাসিব, চিফ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) হোসেন সাদাত ও হেড অব কাস্টমার এক্সপেরিয়েন্স অ্যান্ড সার্ভিস মো. আওলাদ হোসেন। অনুষ্ঠানে গ্রাহক ও জিপিসি কর্মকর্তাদের সাথে গ্রামীণফোনের হেড অব কাস্টমার এক্সপেরিয়েন্স অ্যান্ড সার্ভিস মো. আওলাদ হোসেন কুড়িগ্রামের প্রত্যন্ত এলাকা নাগেশ্বরী থেকে যুক্ত হন এবং জিপিসির কার্যক্রম তুলে ধরেন।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাসিম পারভেজ তার বক্তব্যে বলেন, জনগণের সাথে কানেক্টেড হওয়ার জন্য গ্রামীণফোনের হটলাইন, মাইজিপির মতো সেবা থাকলেও প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের কাছে পেীছানোর জন্য গ্রামীণফোন সেন্টারের প্রয়োজনীয়তা সবসময়ই থাকবে বলে আমি বিশ্বাস করি। সাধারণ মানুষ যারা এখনও পুরোপুরি ডিজিটাল সেবায় অর্ন্তভূক্ত হয়নি , জিপি সেন্টার তাদের জন্য সেবার মানোন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ  অবদান রাখবে।

গ্রামীণফোনের চিফ মার্কেটিং অফিসার সাজ্জাদ হাসিব এই অর্জন নিয়ে আনন্দ প্রকাশ করে বলেন, এই স্টোরগুলো গ্রাহকদের প্রয়োজনীয় সেবা প্রদানে আমাদের প্রতিশ্রুতি পূরণের প্রতিফলন। আমরা বিশ্বাস করি, আমাদের নেটওয়ার্ক ও সেন্টারের এই দেশব্যাপী বিস্তৃতি ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের গতিকে ত্বরাণ্বিত করবে এবং আমাদের গ্রাহকদের জীবনে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি ঘটাবে।

হেড অব গ্রামীণফোন কাস্টমার এক্সপেরিয়েন্স অ্যান্ড সার্ভিস মোহাম্মদ আওলাদ হোসেন বলেন, আমাদের লক্ষ্য খুব সহজ উপায়ে আমাদের গ্রাহকদের সেবা প্রদান করা এবং এই সেবা যাতে মাইজিপি অ্যাপে পাওয়া যায় সে ব্যাপারে কাজ করা। কিন্তু এরপরও যদি কারও ফিজিক্যাল স্টোরে যাওয়ার প্রয়োজন হয়, তারা আমাদের সার্ভিস টাচ পয়েন্ট এবং গ্রামীণফোন সেন্টার থেকে যেকোন সেবা নিতে পারেন।

গ্রামীণফোনের ‌অ্যাক্টিং সিসিএও হোসেন সাদাত গ্রাহক সেবা দেশব্যাপী পৌঁছে দেয়ার দিকনির্দেশনার জন্য বিটিআরসিকে ধন্যবাদ জানান।

২০০ জিপিসি’র পাশাপাশি, গ্রামীণফোন এর বিদ্যমান অন্যান্য ডিজিটাল সেবা চ্যানেল, ১২১ হটলাইন ও মাইজিপি অ্যাপ্লিকেশনের কার্যক্রম অব্যহত থাকবে। জেলা সদরের বাইরে জিপিসি’র বিস্তৃতি ঘটেছে এবং দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে এখন গ্রামীণফোন সেন্টার রয়েছে। অবস্থান অনুসারে ২শ’টির মধ্যে ঢাকায় সর্বোচ্চ ২৪টি, সিলেটে ২৪টি, রাজশাহীতে ২১টি, বরিশালে ১৯টি, বগুড়ায় ১৮টি, খুলনায় ১৭টি, ময়মনসিংহে ১৭টি, কুমিল্লায় ১৬টি, চট্টগ্রামে ১২টি এবং রংপুরে ৭টি জিপিসি রয়েছে। এছাড়াও, গ্রাহকরা সারা দেশের ৪.২ লক্ষ রিটেইল পয়েন্ট থেকেও সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

সুত্র – প্রেস বিজ্ঞপ্তি , ১ ডিসেম্বর / ২০২১




Source by [author_name]

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Recent Posts

© 2022 sundarbon24.com|| All rights reserved.
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102