শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৭:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
চালের বস্তায় নিষিদ্ধ পলিব্যাগের ব্যাবহার ভ্রাম্যমাণ আদালতে দুই ব্যবসায়ীকে ৩০হাজার টাকা জরিমানা মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশন পুশ করায় রোগীর শরীরে জ্বালাযন্ত্রনা ফার্মেসী সিলগালা:পলাতক গ্রাম্য চিকিৎসক বাংলাদেশকে জানতে হলে আগে বঙ্গবন্ধুকে জানতে হবে ….এমপি মিলন সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে মোংলায় বিক্ষোভ মিছিল সারা খুলনা অঞ্চলের সব খবরা খবর নদীর পাড়ে শাড়ি পরে দুর্দান্ত ড্যান্স দিলো সুন্দরী যুবতী যুদ্ধের ধ্বংসস্তুপের উপর দাঁড়িয়েও বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি কাঠামো দাঁড় করিয়েছেন – মোস্তাফা জব্বার – টেক শহর বিশ্বকাপে পর্তুগালকে ফেবারিট মানছেন আর্জেন্টাইন তারকা – স্পোর্টস প্রতিদিন বিশ্ববাজারে আবারও কমল জ্বালানি তেলের দাম গর্তে লুকিয়ে থাকা ইঁদুরটি দেখলো চাষী ও তার স্ত্রী দুজনে মিলে

গাউছিয়া মার্কেটে শপিং করতে আসছেন অ্যাম্বার হার্ড

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২
গাউছিয়া মার্কেটে শপিং করতে আসছেন অ্যাম্বার হার্ড

গত ১ জুন সাবেক স্বামী ও হলিউড তারকা জনি ডেপের বিরুদ্ধে ১০০ মিলিয়ন ডলারের মানহানি মামলায় হেরে যান অ্যাম্বার হার্ড। বিলাসবহুল ও আয়েশী জীবনযাপনের জন্য আগে থেকেই এ চলচ্চিত্র তারকা সুপরিচিত থাকলেও বর্তমানে তিনি মুদ্রার ওপিঠও দেখতে শুরু করেছেন।

এক গোপন সূত্র থেকে জানা গেছে, বেশ ক’দিন ধরেই মৌচাক, গাউছিয়া,নূরজাহান কমপ্লেক্সের আশেপাশের সিসি ক্যামেরায় অ্যাম্বার হার্ডের মতো কাউকে দেখা যাচ্ছে।

তবে ব্যবসায়ীরা এখনো বিশ্বাস করতে পারছেন না তিনিই আসল অ্যাম্বার হার্ড! eআরকি’র গাউছিয়া প্রতিবেদক জানান, গাউছিয়া আসার সময় অ্যম্বার হার্ড কালো বোরকা ও নিকাবে নিজেকে মুড়ে রাখেন। চোখে থাকে কালো চশমা। তবে ঢাকা কলেজের উল্টোপাশে ৫ টাকার লেবুর শরবত খাওয়ার সময়ই ব্যাপারটি প্রথম নজরে আসে প্রতিবেদকের। এরপরই অ্যাম্বারকে নিয়মিত ফলো করতে থাকেন তিনি।

এ ব্যাপারে অ্যাম্বার হার্ডের সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি একদমই রাজী হননি। তবে অনুরোধের এক পর্যায়ে তিনি মুখ খোলেন। কাঁপা কাঁপা গলায় বলেন, ‘একদিন জনি ডেপ ছিলো, অনেক সম্পত্তি ছিলো, অনেক ফূর্তি করে সময় কাটিয়েছি। আজ আর কিছুই নেই, সেগুলি কেবলই স্মৃতি..তাই সস্তা দোকান খুঁজতেই বাংলাদেশে এলাম। কয়েকজন আমাকে গাউছিয়ার কথা বললো। ১৫০০ টাকার শপিং করেছি লাস্ট দিন। একটা ফেডেড জিন্স, একটা ক্রপ টপ, আর একটা অফ শোল্ডার টপ…’ এই বলে আলমারি থেকে সেগুলো নামিয়ে দেখান অ্যাম্বার। সেই মুহুর্তেই টপটপ করে চোখের পানি পড়ে নতুন জামার উপর।

তবে ফুটপাতে ‘খালি একশো’ করে চিৎকার করা এক দোকানী চমকপ্রদ করেছেন তার চিকন বুদ্ধি দিয়ে। তার ভাষ্যমতে, অ্যাম্বার হার্ড তার দোকান থেকে একশো টাকার দুটো টপস কিনেছেন। এরপরই তিনি তার ডালার সামনে অ্যাম্বার হার্ডের ছবিসহ ‘এখানে অ্যাম্বার হার্ড শপিং করতে আসেন….’ লিখে একটি প্ল্যাকার্ড টানিয়েছেন। মুহুর্তের ভেতর দোকানে উপচে পড়ে ক্রেতাদের ভীড়। ব্যবসারও উন্নতি হয় ক্রমে।

তবে আজাদ (২৭) নামের এই ব্যবসায়ী বলেন, ‘আফা এমুন গাধা। একশ টাকার জিনিস হের কাছে পাঁচশো টাকা বেঁচছি। হে ভাবছে এডাই সস্তা। মুরুক্ষু কোন জায়গার…




Source by [সুন্দরবন]]

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও সংবাদ এই ক্যাটাগরি

Recent Posts

সুন্দরবন টোয়েন্টিফোর ডট কম, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত - ২০১৯-২০২২
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102