বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১১:০৯ অপরাহ্ন

দেশের কারখানায় কমছে স্মার্টফোনের উৎপাদন, রমরমায় টুজি ফোন – টেক শহর

  • Update Time : শুক্রবার, ৮ জুলাই, ২০২২
দেশের কারখানায় কমছে স্মার্টফোনের উৎপাদন, রমরমায় টুজি ফোন - টেক শহর

ছবি : টেকশহর

আল-আমীন দেওয়ান : দেশের কারখানাগুলোতে স্মার্টফোনের উৎপাদন কমছে। অন্যদিকে বাজার দখলে এগিয়ে চলেছে টুজি বা ফিচার ফোন।

এরমধ্যে একমাসের ব্যবধানে স্মার্টফোনের উৎপাদন অর্ধেকে নেমে এসেছে। উৎপাদিত স্মার্টফোন মূলত ফোরজি ও ফাইভজি, থ্রিজি নেই বললেই চলে।

বিটিআরসির সর্বশেষ পরিসংখ্যান বলছে, দু’মাস ধরে দেশের কারখানায় উৎপাদিত স্মার্টফোনের সংখ্যা কমছে। আর ফিচার ফোনের তুলনায় টানা তিন মাস কমে চলেছে স্মার্টফোনের এই উৎপাদন।

Techshohor Youtube

২০২২ সালের মে মাসে দেশে স্মার্টফোনের উৎপাদন ছিলো ৬ লাখ ৬৪ হাজার। এরমধ্যে থ্রিজি ফোন ৪ হাজার, ফোরজি ৬ লাখ ১৫ হাজার এবং ফাইভজি ফোন ছিলো ৪৫ হাজার ইউনিট।

অন্যদিকে মে মাসে টুজি বা ফিচার ফোনের উৎপাদন হয়েছে, ১৬ লাখ ৭০ হাজার ইউনিট ।

এতে দেখা যাচ্ছে, ৭১ দশমিক ৫৩ শতাংশই ফিচার ফোনের উৎপাদন। যেখানে স্মার্টফোন মাত্র ২৮ দশমিক ৪৭ শতাংশ ।

এপ্রিলে স্মার্টফোনের উৎপাদন ছিলো ১৩ লাখ ১৫ হাজার ইউনিট। এরমধ্যে ১২ লাখ ৬৩ হাজার ফোরজি এবং ৫২ হাজার ফাইভজি ফোন ছিলো।

এ মাসে ফিচার ফোনের উৎপাদন ছিলো ২২ লাখ ৬৬ হাজার ইউনিট।

মাসটিতে ফিচার ফোনের উৎপাদন ৬১ দশমিক ১০ শতাংশ। আর স্মার্টফোন ৩৮ দশমিক ৯০ শতাংশ ।

পরিসংখ্যান বলছে, এপ্রিলের তুলনায় মে মাসে দেশের কারখানাগুলোতে হ্যান্ডসেটের উৎপাদন কমেছে অনেক। যেখানে অর্ধেকেই নেমে গেছে স্মার্টফোনের উৎপাদন।

মার্চ মাসে স্মার্টফোনের উৎপাদন ছিলো ১২ লাখ ৩৫ হাজার। এতে ফোরজি ১২ লাখ ৩ হাজার আর ৩২ হাজার ফাইভজি ফোন।

এ মাসে ফিচার ফোনের উৎপাদন ছিলো ১৮ লাখ ৩৪ হাজার।

যেখানে ফিচার ফোনের উৎপাদন ৫৯ দশমিক ৭৬ শতাংশ। আর স্মার্টফোন ৪০ দশমিক ২৪ শতাংশ ।

দেশে কারখানা করা উল্লেখযোগ্য কোম্পানিগুলো হলো ওয়ালটন, সিম্ফনি, স্যামসাং, আইটেল-ট্র্যানসান ও ফাইভস্টার, লাভা, ওকে মোবাইল, উইনস্টার, ভিভো, অপো, রিয়েলমি, নোকিয়া, শাওমি ।

এদিকে আন্তর্জাতিক ডেটা করপোরেশন (আইডিসি) রিপোর্ট অনুয়ায়ী দেশের স্মার্টফোন বাজারে ২০২২ সালের প্রথম প্রান্তিকে শীর্ষে রয়েছে ভিভো। তাদের বাজার শেয়ার ২০ দশমিক ৭ শতাংশ।

দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ট্রানশান। ট্রানশানের ব্যান্ড আইটেল ও টেকনো। বাজার শেয়ার ১৯ দশমিক ৯ শতাংশ।

তৃতীয় অবস্থানে রিয়েলমি । বাজার শেয়ার ১৬ দশমিক ৮ শতাংশ। চতুর্থ স্যামসাং, বাজার শেয়ার ১২ দশমিক ৩ শতাংশ এবং পঞ্চম অপো। তাদের বাজার শেয়ার ৯ দশমিক ৭ শতাংশ।

২০২১ সালের প্রথম প্রান্তিকের তুলনায় বেশ বিক্রি বেড়েছে ভিভোর। ২০২২ সালের প্রথম প্রান্তিকে ব্যান্ডটি বিক্রি করেছে ৫ লাখ ৯০ হাজার ইউনিট। যা গত বছরের একই প্রান্তিকে ছিলো ৪ লাখ ৬৯ হাজার।

রিয়েলমি ২০২২ সালের প্রথম প্রান্তিকে বিক্রি করেছে ৪ লাখ ৮০ হাজার ইউনিট । ২০২১ সালের একই সময়ে এটি ছিলো ৪ লাখ ৭ হাজার।

স্যামসাং এই বছরের প্রথম প্রান্তিকে বিক্রি করেছে ৩ লাখ ৫১ হাজার ইউনিট । ২০২১ সালের একই সময়ে ৩ লাখ ৮৭ হাজার বিক্রি করেছে তারা।

অপো বিক্রি করতে পেরেছে ২ লাখ ৭৮ হাজার ইউনিট। যেখানে ২০২১ সালের একই প্রান্তিকে ব্র্যান্ডটির বিক্রি ছিলো ৪ লাখ ৪১ হাজার ইউনিট।




Source by [author_name]

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Recent Posts

© 2022 sundarbon24.com|| All rights reserved.
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102