বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১২:১৫ পূর্বাহ্ন

সারা খুলনা অঞ্চলের সব খবরা খবর

  • Update Time : মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট, ২০২২
সারা খুলনা অঞ্চলের সব খবরা খবর

কুষ্টিয়ায় প্রেসক্লাবে শোক সভা ও দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের হল রুমে আজ সোমবার বাদ মাগরিব এনটিভির ষ্টাফ রিপোর্টার, ভেড়ামারা তথা কুষ্টিয়ার জনপ্রিয় সাংবাদিক ফারুক আহমেদ পিনু’র ৫ ম মৃত্যু বার্ষিকী পালনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ডাঃ আমিরুল ইসলাম মান্নানের সভাপতিত্বে এক শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শোক সভায় ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বাবলু মোস্তাফিজ বক্তব্য রাখেন। শোক সভা শেষে মাওলানা মোঃ আবুল কাসেম এর পরিচালনায় ফারুক আহমেদ পিনু’র আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।
ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি ফয়জুল ইসলাম মিলন, হেলাল মজুমদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিউল ইসলাম ওলি, সেলিম মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা, কোষাধ্যক্ষ ইয়ামিন হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মনোয়ার হোসেন মারুফ, দপ্তর সম্পাদক জাহিদ হাসান, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মঞ্জুর রাসেল ডলার, শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক এখলাস হোমেন বিকাশ, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মোহন আলী, ক্রিড়া ও ধর্মীয় সম্পাদক রোহানুজ্জামান, নির্বাহী সদস্য ইসমাইল হোসেন বাবু, কমরেড আরিফুল ইসলাম, চমন গাজী, মেহেদী হাসান জ্যাকি, মাহমুদউল্লাহ সোহেল, সাংবাদিক নোমান জহির রাজা, মোঃ আহসান হাবিব, মোঃ নাসিম প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গমাতা পুরস্কার পেলেন সালাম মূর্শেদী ব্লাড ব্যাংকের চেয়ারম্যান সারমিন সালাম
খবর বিজ্ঞপ্তি
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী, মহীয়সী নারী বঙ্গমাতা শহীদ শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সোমবার (৮ আগস্ট) বিকাল ৪ টায় ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে এক আলোচনা সভা ও বঙ্গমাতা পুরস্কার প্রদানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাফুফের সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুস সালাম মূর্শেদী এমপি।
এসময় সমাজ সেবায় বিশেষ অবদান রাখায় এনভয় গ্রুপ ও সালাম মূর্শেদী ব্লাড ব্যাংকের চেয়ারম্যান মিসেস সারমিন সালামকে ‘বঙ্গমাতা পুরস্কার ২০২২’ প্রদান করা হয়।

গাজী জাকির হত্যার আসামীদের বিচার করতেই হবে: কামরুজ্জামান জামাল

খবর বিজ্ঞপ্তিঃ
দিঘলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, বারাকপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, ৩ বারের নির্বাচিত আওয়ামী লীগ সমর্থিত বিজয়ী চেয়ারম্যান গাজী জাকির হোসেন সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়ে অবশেষে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। তার এই হত্যাকান্ডের সঠিক বিচারের দাবীতে এবং হত্যাকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবীতে দিঘলিয়া উপজেলাবাসী ও আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ গতকাল বেলা ১১ টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেন। উক্ত মানববন্ধনে খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও খুলনা জেলা যুবলীগের সভাপতি মোঃ কামরুজ্জামান জামাল তার বক্তবে বলেন, গাজী জাকির আওয়ামী লীগের সম্পদ ছিলেন, তিনি একদিনে তৈরী হননি। দেশে আজ বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন ষড়যন্ত্রের জাল বিস্তার করছে এবং আওয়ামী লীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালাচ্ছে। যার কারণে আজ গাজী জাকিরের মতো নেতাকে প্রাণ দিতে হলো। আমি সোচ্চার কন্ঠে প্রশাসনের উদ্দ্যেশে বলতে চাই, এই হত্যাকান্ডের সাথে যারা জড়িত, তাদের অবিলম্বে গ্রেফতার পূর্বক আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হউক, যাতে সন্ত্রাসীরা ভবিষ্যতে এমন কর্মকান্ডে লিপ্ত হতে ভয় পায়। দিঘলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান খান নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য মোল্যা আকরাম হোসেনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা ফারহানা হালিম, অধ্যাপক আশরাফুজ্জামান বাবু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শেখ মোঃ আবু হানিফ, সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান রাসেল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ পারভেজ হাওলাদার, জেলা যুবলীগ নেতা ইঞ্জিঃ মাহাফুজুর রহমান সোহাগ। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা মকবুল হোসেন, নজরুল মোল্যা, আসাদ খান, শেখ আনছার আলী, সৈয়দ মিজানুর রহমান, গাজী আব্দুর রউফ, খুলনা ৪ আসনের এমপির সমোন্নয়ক যুবলীগ নেতা নোমান ওসমানী রিচি, যুবলীগ নেতা শেখ ইয়াজুল ইসলাম, শেখ আল আমিন, হাবিবুর রহমান তারেক, গাজী প্রিন্স, গাজী ইমরান, মোল্যা মিরাজ, শেখ সাঈদ, ছাত্রলীগ নেতা মোল্যা নাহিদুর রহমান, নিয়ামুল, সাইদুল চৌধুরী, হাসেম, ফরহাদ গাজী প্রমুখ।

বর্তমান সরকারের আমলে নারী অধিকার বাস্তবায়নে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে
খবর বিজ্ঞপ্তি
শোকাবহ আগষ্ট পালন উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচী সফল করার লক্ষে, গত ৬ই আগষ্ট বাদ-মাগরিব দলিয় কার্যালয়ে খুলনা মহানগর মহিলা শ্রমিক লীগের উদ্যেগে এক বর্ধিত-সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মহিলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী রহিমা আক্তার সাথী। বিশেষ অতিথী হিসাবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা মহানগর শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: মোতালেব মিয়া ও সাধারন সম্পাদক রনজিত কুমার ঘোষ। সভার সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি নাছরীন আক্তার। সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মাসুমা আক্তার রানী।
বর্ধিত-সভায় নেতৃবৃন্দ শোক দিবসের সকল কর্মসূচীতে অংশগ্রহন করা সহ শোক দিবসের ব্যানার, ১৫ ই আগষ্ট বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, কালোব্যাজ ধারন সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন সিদ্ধান্ত সহ নারী নেত্রী আইভি রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ২৪ তারিখ আসর-বাদ দলিয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে এবং কেন্দ্রীয় নেত্রী নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনার মাধ্যমে সংগঠন বিরোধী কার্যকলাপের জন্য ও অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় সহ-সভাপতি আকলিমা খাতুন ও সাংগঠনিক সম্পাদক সুমা আক্তার’কে সংগঠন থেকে বহিস্কার করা সহ দলিয় কোন কর্মকান্ডে তাদের সাথে যোগাযোগ না করার নির্দেশ প্রদান করেন। সেইসাথে শোককে শক্তিতে রুপান্তরিত করে, আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মিশন ও ভিশন বাস্তবায়ন করতে সংগঠনকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান।সভায় বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন, নগর শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতি মল্লিক নওশের আলী, মো: আব্দুর রহিম খান, আলমগীর মল্লিক, মো: আজিম উদ্দিন, মহিলা শ্রমিক লীগের নেত্রী জাহানারা বেগম, উম্মে কুলসুম ফাল্গুনী, ঝুমুর বেগম, সীমা রায়, হাসিনা খাতুন, রেশমা বেগম, জেসমিন বেগম, খুরশিদা বেগম, মাজেদা বেগম, নাসরিন বেগম, ফারজানা বেগম, রাজিয়া খাতুন, শিরিন আক্তার, পারভীন আক্তার, কনিকা হালদার, খাদিজা বেগম, বকুলি বেগম, মোমেনা বেগম, বিলকিস বেগম, সামসুর নাহার, নাসিমা সহ বিভিন্ন প্রমূখ নেতৃবৃন্দ ও সদস্যবৃন্দ।

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল আজ
খবর বিজ্ঞপ্তি
জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগর ও জেলার উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) বিকাল ৫ টায় নগরীর ডাকবাংলা মোড় বেবি ষ্টান্ড চত্বরে প্রতিবাদ বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হবে।
আজকের বিক্ষোভ মিছিল সফলে দলমত নির্বিশেষে সকলকে অংশগ্রহণ করার আহ্বান জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগর সভাপতি মুফতি আমানুল্লাহ, জেলা সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল্লাহ ইমরান, নগর সেক্রেটারী শেখ মোঃ নাসির উদ্দিন ও জেলা সেক্রেটারী হাফেজ আসাদুল্লাহ আল গালিব।

তালায় বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন
তালা(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি
তালায় মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে মহীয়সী বঙ্গমাতার চেতনা,অদম্য বাংলাদেশের প্রেরণা” এই প্রতিপাদ্য কে সামনে রেখে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে।

সোমবার (০৮ আগষ্ট) সকাল ১০ টায় উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় উপজেলা পরিষদের হলরুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব প্রশান্ত কুমার বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব ঘোষ সনৎ কুমার ।

মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নাহারের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মুর্শিদা পারভীন,তালা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান সহ সহ মুক্তিযোদ্ধা প্রতিনিধি ও সরকারী কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা শেষে সাত জন দুঃস্থ নারীকে সেলাই মেশিন ও ছয় জন দুঃস্থ নারীকে পঁয়তাল্লিশ হাজার টাকার নগদ চেক বিতরণ এবং চার জন দুঃস্থ নারীকে দুই হাজার টাকা প্রদান করেন অতিথিদ্বয়। এছাড়াও রচনা প্রতিযোগিতার জন্য প্রাথমিক পর্যায়ে তিনটি,মাধ্যমিক পর্যায়ে তিনটি ও কলেজ পর্যায়ে তিনটি সর্বমোট নয়টি পুরুষ্কার প্রদান সহ কুইজ প্রতিযোগিতার জন্য দশটি পুরুষ্কার বিতরণ করা হয়। এর আগে একটি র্যালি তালা উপ-শহর প্রদক্ষিন করেন।

তালায় উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত
তালা(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি
তালায় উপজেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষ্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার(০৮ ই আগস্ট)সকালে তালা শিল্পকলা একাডেমী হলরুমে বিশেষ বর্ধিত সভায় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ ফিরোজ কামাল শুভ্র, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি বিশ^জিৎ সাধু,সিনিয়র সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোড়ল আব্দুর রশিদ,সৈয়দ জুনায়েদ আকবর,সি.যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মীর জাকির হোসেন,সাংগঠনিক সম্পাদক সাংবাদিক মোজাফফার রহমান জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা জেবুনেচ্ছা খানম,আওয়ামীলীগ নেতা মীর মহাসিন হোসেন,পিএম গোলাম মোস্তফা প্রমুখ।

অনুরুপ ভাবে মাগুরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আয়োজনে বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্মবার্ষিকীকে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এসময় জাতীয় শোক দিবস পালন ও ১৭ আগস্ট গ্রেনেড হামলা প্রতিবাদে বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের সিধান্ত গৃহিত হয়।

তালার পাটকেলঘাটা ইজিবাইক ও মাহেন্দ্র স্ট্যান্ড দখল চেষ্টা, থানায় অভিযোগ
তালা(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি
তালার পাটকেঘাটার ইজিবাইক ও মাহেন্দ্র স্ট্রান্ড জোর দখল করার চেষ্ঠার অভিযোগ উঠেছে সুমন কাগজী ও আলামীনের বিরুদ্ধে পাটকেলঘাটা থানায় একটি অভিযোগ জমা দিয়েছেন ভুক্তভোগী ইজিবাইক ও মাহেন্দ্র চালকরা।
প্রকাশ,তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা ওভার ব্রীজ এলাকায় প্রতিদিন ৭০টি মহেন্দ্র ও ১৪০ থেকে ১৬০টি ইজিবাইক চলাচল করেন। সে স্ট্যান্ড দখল করে দীর্ঘ আটমাস যাবত কথিত শ্রমিক নেতা সুমন কাগজী ও আলামীন সরদার সহ তার সাংঙ্গপাঙ্গরা সীমাহীন চাঁদাবাজি করতে থাকেন। এমতঅবস্থায় কয়েক মাস আগে সাতক্ষীরা জেলা শ্রমিকলীগের সাইফুল করিম সাবু ও সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক এর নির্দেশনা মোতাবেক পাটকেলঘাটা থানা শ্রমিকলীগের নেতৃবৃন্দরা সাতক্ষীরা জেলা অটোরিক্সা ও অটোটেম্পু মালিক সমিতি খুলনা-২১৯৯ এর কাছে স্ট্যান্ডটির শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। এত করে উক্ত স্ট্যান্ডটিতে চলাচলরত ইজিবাইক ও মাহেন্দ্র চালকদের সীমাহীন চাঁদাবাজি ও হয়রানী হতে মুক্তি লাভ করেন। কিন্তু পুনরায় ওই সুমন কাগজী ও আলামিন স্ট্যান্ডটি সীমাহীন চাঁদাবাজি চালানোর উদ্দেশ্য গত শনিবার(৬ ই আগস্ট) ৩০-৪০ জন এলাকার বখাটে নেশাগ্রস্ত পোলাপান নিয়ে দখল নেওয়া চেষ্টা করেন।

এসময় সুমন কাগজী ও আলামিন সরদার পাটকেঘাটা স্ট্যান্ডে ইজিবাই ও মাহেন্দ্র চালকদের কাছে চাঁদা দাবি সহ চালকদের এলোপাতাড়ি ভাবে মারপিট করেন। পরে সকল ইজিবাইক ও মাহেন্দ্র চালকদের প্রতিরোধের মুখে ঘটনাস্থলে ত্যাগ করতে বাধ্য হন উক্ত চাঁদাবাজরা।এর আগেও এই সুমন কাগজী ও আলামিন কয়েকবার চাঁদাবাজি করার দায়ে পুলিশের হাতে আটক হয়ে মুচলেকা দিয়ে মুক্তি লাভ করেন।

এবিষয়ে থানায় অভিযোগকারী মাহেন্দ্র চালক শ্রী রাজিব বিশ^াস জানান, গত শনিবার ১২ টার দিকে এই চাঁদাবাজ সুমন কাগজী ও আলামিন সরদারসহ ৩০-৪০ জন স্ট্যান্ড দখল নেওয়া চেষ্টা করেন। এসময় আমার কাছে চাঁদা চাইলে প্রতিত্তরে কেন চাঁদা দেব বললে, সুমন ও আলামিন আমাকে এলোপাতাড়ি মারপিট করা সহ আমার পকেটে থাকা ৪ হাজার ৫০০ শত টাকা কেড়ে নেয়। উক্ত সময় সুমন কাগজী ও আলামিন সহ তার সঙ্গীরা মাহেন্দ্র ভাংচুর করতে উদ্যত হলে সকল ইজিবাইক ও মাহেন্দ্র চালকদের প্রতিরোধের মুখে পরে। পরে ধাওয়া মুখে সুমন কাগজীরা পলায়ন করেন।

সাতক্ষীরা জেলা অটোরিক্সা ও অটোটেম্পু মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাসুদ পারভেজ মাসুম জানান, এলাকার নামকরা চাঁদাবাজ এর আগের কয়েক বার স্ট্যান্ডটি দখল করে সীমাহিন চাঁদাবাজি করার চেষ্টা করেন। সম্প্রতি কয়েক মাস আগেও স্ট্যান্ডে চাঁদাবাজি করার সময় বর্তমান ওসির নির্দেশে সুমন কে আটক করা হয় । পরে মুচলেকা দিয়ে রক্ষা পান। সুমন কাগজী ও আলামানি ইজিবাইক ও মাহেন্দ্র চালক না বা সদস্যও না তরপরে অদৃশ্য ক্ষমতাবলে সে স্ট্যান্ডটি দখল করার চেষ্টা করেন বারংবার। এই সুমন কাগজী ও আলামিন এলাকাজুড়ে নানান অপকর্মের সহিত জড়িত আছেন। আমরা ইজিবাইক ও মাহেন্দ্র চালকরা তার হাত হতে মুক্তির দাবি জানাচ্ছি।

এবিষয়ে পাটকেলাটা থানার এসআই সলেমান বলেন, ইজিবাইক স্ট্যান্ড বিষয়ক একটি অভিযোগ জমা হয়েছে। ওসি স্যারের নির্দেশ মোতাবেক তদন্ত পূর্বক আইন গত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জীবনাদর্শ থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে: এমপি বাবু
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা-৬ (কয়রা-পাইকগাছা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু বলেছেন, পর্দার অন্তরাল থেকে সংকটে, সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুকে প্রেরণা, শক্তি ও সাহস দিয়েছেন শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব। ‘বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কেবল বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী ছিলেন না, ছিলেন সহযোদ্ধা, নীরব রাজনৈতিক সহকর্মী। এই আদর্শ নারীর জীবন থেকে আমাদের সকলের অনেক কিছু শেখার আছে। তিনি বর্তমান সরকারের নানা উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরে আরও বলেন,“বাঙালি জাতির মহিয়সী নারীর নাম বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব। বঙ্গমাতা সব সময় অসহায়-সম্বলহীন মানুষের জন্য উৎসর্গিত ছিলেন। সোমবার (৮ আগস্ট) সকাল ১১টায় কয়রা উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের আদর্শে আদর্শিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে ভাবে দিন রাত পরিশ্রম করে দেশের উন্নয়ন ও দেশের মানুষ যাতে করে খেয়ে পড়ে ভালো থাকতে পারে এবং প্রতিটি পরিবারে যেন শিক্ষা স্বাস্থ্য খাদ্য বাসস্থান পায় সেই সব ব্যাপারেও কাজ করে যাচ্ছেন। আমাদের সকলের উচিত ষড়যন্ত্র না করে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা ও ওনার পরিবারের সকল সদস্যর জন্য দোয়া করা। যাতে করে তিনি এই বাংলাদেশকে আরো উন্নত দেশ হিসাবে গড়ে তুলতে পারে। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিএম মোহসিন রেজার সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি মাস্টার কফিল উদ্দিন, খগেন্দ্র নাথ মন্ডল, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম বাহারুল ইসলাম, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক জি এম ফজর আলী,প্রচার সম্পাদক হারুন অর রশিদ,আওয়ামী লীগ নেতা, এস এম জিয়াদ আলী,সরদার নূরুল ইসলাম কোম্পানী, মাস্টার খয়রুল আলম, নির্মল কুমার দাস,আব্দুস সামাদ গাজী, আব্দুর রশিদ মোড়ল, ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান,শ্রমিক লীগ নেতা মাস্টার আব্দুল হালিম, আমিরুল ইসলাম,স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা গাজি আব্দুর রকিব, জি এম আক্তারুল ইসলাম, খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোঃ আবু সাঈদ খান, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক বাদল প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর আত্মার মাগফিরাত কামনা বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করাসহ শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর জন্মদিন উপলক্ষে আদিবাসিদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন করেন এমপি আক্তারুজ্জামান বাবু। এরপর দুপুরে উপজেলা প্রশাসন ও তথ্য আপা প্রকল্প (২য় পর্যায়) এর আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেষ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন খুলনা-৬ সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবু। এসময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম শফিকুল ইসলাম, অফিসার ইনচার্জ এবিএমএস দোহা (বিপিএম), প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা মোস্তাইন বিল্লাহ, মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল হক, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রেশমা খাতুন,তথ্য আপা ইসকিতা আফরিন,চেয়ারম্যান এস এম বাহারুল ইসলাম, আব্দুস সামাদ গাজি, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান, ছাত্রলীগ সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হক বাদল প্রমুখ। আলোচনা ও দোয়া মাহফিল শেষে উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে নারীদের জিবন মান উন্নয়নে উপজেলার অসহায় নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিরতন করেন এমপি আক্তারুজ্জামান বাবু।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদে আলোচনা সভা ও দেয়া মাহফিল
খবর বিজ্ঞপ্তি
সোমবার বিকাল পাঁচটায় ৭১,খানাহান আলী রোডস্থ খুলনা জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্মবার্ষিকী যথাযথ মর্যাদায় উদযাপন উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, খুলনা মহানগর ও জেলা ইউনিট কমান্ডের উদ্যোগে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা ইউনিট কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সরদার মাহবুুবার রহমান, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা মহানগর ইউনিট কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ অধ্যাপক আলমগীর কবির। সভায় উপস্থিত উভয় সংসদের ডেপুটি কমান্ডার, সহকারী কমান্ডার থানা ও উপজেলা কমান্ডারগণের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা খান মোহাম্মদ আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ মনিরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা মুন্সী আইয়ুব আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে মকবুল হোসেন মিন্টু, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম মনু, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিঃ শেখ আব্দুল জব্বার, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইদ্রিস আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আলমগীর হোসন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোখলেসুর রহমাম বাবলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ শেখ শহিদুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন উর রশিদ বন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধা এস, এম, হাফিজুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবুল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ নাজিম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ বজলুর রশিদ আজাদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা এস, এম, বেলাল উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ রহমত আলী গাজী, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আহম্মদ আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ মোঃ আজাদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ বাবর আলী সরদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইদ্রিস মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিমল কুমার দাস, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাক আবেদিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল উদ্দিন বাদসা, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ মোশারফ হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী ইয়াহিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা চৌধুরি আবুল খায়ের, বীর মুক্তিযোদ্ধা স ম রেজওয়ান আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা কামরুজ্জামান বাচ্চু, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম মানিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা নির্মল কুমার রায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যডঃ কেরামত আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা নিরঞ্জন কুমার, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহিত চন্দ্র রায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহাদৎ হেসেন বাচ্চু, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী জাফর উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক এম, এ, রশিদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আমিরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ ওবাইদুল্লাহ রনো, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী মতিয়ার রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ মহসিন আলী, প্রমুখ।

ভোটারবিহীন সরকার দমনে যুবকদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে: পীর সাহেব চরমোনাই
খবর বিজ্ঞপ্তি
৮ আগস্ট’২২ ইসলামী যুব আন্দোলন খুলনা মহানগর শাখার উদ্যোগে মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে যুবকদের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভা নগরীর ঐতিহ্যবাহী খুলনা প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয় । অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সংগ্রামী আমীর আল্লামা মুফতি সৈয়দ মোঃ রেজাউল করীম, পীর সাহেব চরমোনাই। আলোচনা সভা নগর সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ আবুল কাশেম এর সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক ইমরান হোসেন মিয়া ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুর রশিদ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান বক্তা হিসেবে আলোচনা রাখেন ইসলামী যুব আন্দোলন কেন্দ্রীয় সেক্রেটারী জেনারেল প্রকৌশলী আতিকুর রহমান মুজাহিদ । বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইসলামী বাংলাদেশের নায়েবে আমীর আলহাজ¦ অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা আব্দুল আউয়াল । বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগরীর সভাপতি আলহাজ¦ মুফতি আমানুল্লাহ ও নগর সেক্রেটারী শেখ মোঃ নাসির উদ্দিন। ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন খুলনা মহানগরীর সভাপতি এস এম আবুল কালাম আজাদ, ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ নগর সভাপতি মোঃ মঈনুল ইসলাম । আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন ইসলামী যুব আন্দোলন নগর সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ফেরদাউস গাজী সুমন, দপ্তর সম্পাদক মুহাম্মদ আব্দুর সবুর, অর্থ সম্পাদক মোঃ আমজাদ হোসেন, প্রচার সম্পাদক মোঃ নাজমুল ইসলাম, প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ আরিফুল ইসলাম, দাওয়াত ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক মোঃ মামুনুর রশীদ, যুব কল্যাণ ও কর্মসংস্থান সম্পাদক মাওলানা ফরিদ উদ্দিন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মোঃ শামীম হায়দার, আইন সম্পাদক মোঃ আলফাত হোসেন লিটন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ইঞ্জিঃ হায়দার আলী, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, মানবাধিকার সম্পাদক মুফতি আমানুল্লাহ, মহিলা ও পরিবার সম্পাদক মোহাম্মদ সুমন হাওলাদার, সংখ্যালঘু সম্পাদক মোঃ শিমুল ব্যাপারী, উপ সম্পাদক মোঃ হাবিবুল্লাহ গাজী, ডালিম হাওলাদার। আলোচনা সভায় নগর আওতাধীন থানা ও ওয়ার্ড শাখার বিভিন্ন পর্যায়ের দায়িত্বশীল উপস্থিত ছিলেন ।

বিআরটিসি সুপারভাইজার গনি সড়ক দুর্ঘটনায় আহত আশংকাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি
ফুলবাড়ীগেট প্রতিনিধি
শিরোমনি পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা ও গাজীপুরের বি আরটিসি ডিপোর সুপারভাইজার আঃ গনি গত ৬ আগষ্ট শনিবার সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে আশংকাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। গত ৬ আগষ্ট রাত আনুমানিক সাড়ে ৮ টার সময় ঢাকা গাজীপুরের বি আর টিসি ডিপোর সামনে দাড়িয়ে থাকা অবস্থায় পিছন থেকে বেপরোয়া গতিতে একটা মাইক্রোবাস এসে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়, মাইক্রোবাস এর ধাক্কায় আঃ গনি রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে এসময় তার বাম হাত ও বাম পা ভেঙ্গে যায় , পড়ে পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে গাজীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়, অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ি পর দিনই তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বর্তমানে তার অবস্থা আশংকাজনক।

রূপান্তর-এর আয়োজনে উদ্যোক্তাদের সাথে পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত
খবর বিজ্ঞপ্তি
গতকাল ৮ আগস্ট সোমবার সকালে সুইজারল্যান্ড সরকারের সহায়তায় রূপান্তরের বাস্তবায়নাধীন স্ক্রিম প্রকল্পের আওতায় খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিল অডিটোরিয়ামে ১, ২, ৩, ও ৫নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী উদ্যোক্তাদের সাথে শেয়ারিং সভা অনুষ্ঠিত হয়। ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ মোহাম্মদ আলী প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।
প্রকল্পের ফিল্ড অফিসার আকাশ সাহার সঞ্চালনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রকল্পের জেলা কর্মকর্তা শেখ জার্জিস উল্লাহ। অনুষ্ঠানে করোনা সংকট মোকাবেলায় দক্ষতা উন্নয়নের মাধ্যমে উদ্যোক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষণের অভিজ্ঞতা ও ব্যবসা পরিচালনার পরিকল্পনা বিষয়ে আলোচনা করেন উদ্যোক্তা রুমা বেগম, মাহিনুর বেগম,অরুনা দাস, মঙ্গল দাস, হোসনেয়ারা প্রমুখ।
প্রকল্পটি খুলনা উপকূলীয় এলাকার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কর্মদক্ষতা সৃষ্টি করে করোনার নয়া স্বাভাবিকত্ব পরিস্থিতির সাথে খাপ খাওয়ানোর উদ্দেশ্যেই বাস্তবায়িত হচ্ছে।

মহেশপুরে অসহায় মহিলাদের মাঝে শেলাই মেশিন ও নগত অর্থ বিতরণ করেন এম,পি চঞ্চল
মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধি
”শেখ হাসিনার বার্তা – নারী – পুরুষ সমতা” এ শ্লো-গান নিয়ে গতকাল সোমবার দুপুরে ঝিনাইদহের মহেশপুরে পালিত হয়েছে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্ম বার্ষিকী। বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্ম বার্ষিকীতে এলাকার অসহায় মহিলাদের মাঝে শেলাই মেশিন ও নগত অর্থ বিতরণ করা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নয়ন কুমার রাজবংশীর সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্ম বার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ শফিকুল আজম খান চঞ্চল।
আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ময়জদ্দীন হামিদ,ভাইস চেয়ারম্যান আজিজুল হক আজা,হাসিনা খাতুন হেনা,উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাজ্জাদুল ইসলাম সাজ্জাদ,সাধারণ সম্পাদক মীর সুলতানুজ্জামান লিটন, নাটিমা ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম মাষ্টার,স্বারুপপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান,বাঁশবাড়ীয়া ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা জিন্টু , মহেশপুর মহিলা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা মনোরঞ্জন কুমার প্রমুখ।
পরে এলাকার অসহায় মহিলাদের মাঝে শেলাই মেশিন ও নগত অর্থ বিতরণ করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এম,পি শফিকুল আজম খান চঞ্চল।

মহেশপুর পৌর আওয়ামীলীগের কার্যালয় উদ্বোধন
মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধি
যুগ যুগ পর হলেও অবশেষে ঝিনাইদহের মহেশপুর পৌর আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ শফিকুল আজম খান চঞ্চল ফিতে কেটে পৌর আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খান,উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাজ্জাদুল ইসলাম সাজ্জাদ,সাধারণ সম্পাদক মীর সুলতানুজ্জামান লিটন,পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি অমল কুমার কুন্ডু,সাধারণ সম্পাদক শেখ এমদাদুল হক বুলু,সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌ কাউন্সিলর আবুল হাশেম পাঠান, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও পৌর কাউন্সিলর কাজি আতিয়ার রহমান, জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য এম এ আসাদ, শেখ হাশেম আলী প্রমুখ।

মহেশপুরে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্ম বার্ষিকী অনুষ্ঠিত
মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধি ঃ
ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে গতকাল সোমবার বিকালে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২ তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাজ্জাদুল ইসলাম সাজ্জাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ শফিকুল আজম খান চঞ্চল।
সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মীর সুলতানুজ্জামান লিটন, পৌর আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মুকুল চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, জেলা কৃষকলীগের যুগ্ন সম্পাদক আলহাজ¦ শরীফুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কাজি আতিয়ার রহমান, যুগ্ন আহবায়ক ইয়াকুব আলী, উপজেলা স্বেচ্ছসেবকলীগের আহবায়ক শাহেদ মেহেবুব রনজু,যুগ্ন আহবায়ক আশাবুল আরাফ শিমুল প্রমুখ। পরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

সড়ক দূর্ঘটনায় বাগেরহাটের দুই সাংবাদিক আহত
স্টাফ রিপোটার,বাগেরহাট
বাগেরহাটের মোংলায় সড়ক দূর্ঘটনায় আহত হয়েছেন যমুনা টেলিভিশনের বাগেরহাট প্রতিনিধি মো. ইয়ামিন আলী ও গ্লোবাল টেলিভিশনের বাগেরহাট প্রতিনিধি সোহেল রানা বাবু। সোমবার সকাল পোনে ৯টার দিকে মোংলা বন্দরের মধ্যে ৯ নম্বর জেটির কাছে নির্মানাধীন রেল লাইনের মটরসাইকেল দূর্ঘটনায় আহত হন বাগেরহাটের এই দুই সাংবাদিক। দুর্ঘটনার পর আহত সাংবদিকদের উদ্ধার করে মোংলা বন্দর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সভাপতি নীহার রঞ্জন সাহা জানান, সোমবার সকাল ভারতের কলকাতা বন্দর থেকে আসা পন্যবোঝাই জাহাজের প্রথম ট্রায়াল রানের (পরীক্ষামূলক পণ্য পরিবহন) খবর সংগ্রহ করতে বাগেরহাট থেকে মটরসাইকেল মোংলা বন্দরে যান যমুনা টেলিভিশনের বাগেরহাট প্রতিনিধি মো. ইয়ামিন আলী ও গ্লোবাল টেলিভিশনের বাগেরহাট প্রতিনিধি সোহেল রানা বাবু। সকাল পোসেন ৯টার দিকে মোংলা বন্দরের ভিতরে ৯ নম্বর জেটির কাছে নির্মানাধীন রেল লাইনে মটরসাইকেল দূর্ঘটনায় আহত হন এ দুই সাংবাদিক। দুর্ঘটনার পর আহত সাংবদিকদের উদ্ধার করে মোংলা বন্দর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দূর্ঘটনায় আহত মো. ইয়ামিন আলীর হাত ও আঙ্গুল কাটাসহ সাইলেন্সার পাইপে পা পুড়ে গেছে। আহত সোহেল রানা বাবু হাত-পা ও মুখ কেটে যাওয়ার পাশাপাশি মাথায়ও আঘাত পেয়েছেন। মোংলা বন্দর হাসপাতালের চিকিৎসরা বলেছেন, আহত দুই সাংবাদিক শংঙ্কামুক্ত। উন্নত চিকিৎসার জন্য মোংলা বন্দর হাসপাতাল থেকে বিকালে তাদের বাগেরহাটে নিয়ে আসা হয়েছে।

বাগেরহাটে শিক্ষককের বিরুদ্ধে ছাত্রীর মাকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ
স্টাফ রিপোটার,বাগেরহাট
বাগেরহাটের ফকিরহাটে গৃহ শিক্ষককের বিরুদ্ধে ছাত্রীর মাকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় ওই নারী (৪০) একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ অভিযুক্ত গৃহ শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে। মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযুক্ত তারক কুমার বিশ্বাসকে শনিবার দুপুর ১টার দিকে যাত্রাপুরের লাউপালা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। তিনি গ্রামের নারায়ণ কুমার বিশ্বাসের ছেলে।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৭ জুলাই বিকেল ৪টার দিকে তারক বিশ্বাস ওই নারীর ভাড়া বাসায় তার মেয়েকে প্রাইভেট পড়াতে যান। এ সময় বাসায় আর কেউ না থাকায় নারীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ ঘটনায় তিনি মডেল থানায় একটি মামলা করেছেন।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. আলীমুজ্জামান বলেন, এক নারীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মামলা হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

সাতক্ষীরায় নগদ একাউন্ট থেকে বয়স্ক ভাতার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ
খান নাজমুল হুসাইন, সাতক্ষীরা
সাতক্ষীরায় নগদ একাউন্ট থেকে বয়স্ক ভাতার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী জামিলা খাতুন প্রতিকার চেয়ে সাতক্ষীরা সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
জানা গেছে, পৌরসভার বাঁকাল পাটনিপাড়া মোড়ে তামান্না বস্ত্রালয় নামের প্রতিষ্ঠান থেকে ০১৯১৯৫১১৭৮৬ নাম্বারে নগদ একাউন্ট খোলেন বাঁকাল জেলেপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল কাদেরের স্ত্রী জামিলা খাতুন। তিনি লেখাপড়া না জানার কারনে একাউন্টের পিন নম্বর জানেন তামান্না বস্ত্রালয়ের মালিক আব্দুর রাজ্জাকের পুত্র মিজানুর রহমান। ওই একাউন্টে ভাতার ৬ হাজার টাকা আসলে ২৯/৬/২০২২ তারিখ বেলা ০২.৫২ মিনিটে মিজানুর রহমান তার নগদ ০১৮৫৪৮৭২৯৯৯ নাম্বারে ক্যাশ আউট করে নেয়। কিন্তু তিনি কয়েকবার ভাতার টাকার বিষয়ে মিজানুর রহমানের কাছে গেলে তিনি বলেন কোন টাকা আসেনি। শুধু জামিলা খাতুন ই নন ইতোপূর্বে আরো অনেকের বয়স্ক ভাতার প্রথম চালানের ৬ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে মিজানুর রহমান।
এবিষয়ে অভিযুক্ত মিজানুর রহমান বলেন, আমি কারো কোন টাকা নেয়নি। জামিলার বয়স্ক ভাতা টাকা আসেনি। ফাও অভিযোগ করেছে জামিলা।
নগদ এর পাবলিক রিলেশন অফিসার(হেড অফিস) দেবব্রত মুখাার্জির সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, অভিযোগের সত্যতা পেলেই সাথে সাথেই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। নগদ এধরনের অপরাধ কোন ভাবেই মেনে নেবে না।

ফকিরহাটে বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে সেলাই মেশিন বিতরণ
ফকিরহাট প্রতিনিধি।
বাগেরহাটের ফকিরহাটে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯২তম জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা, ৭জন নারীকে সেলাই মেশিন বিতরণ ও ৩জনকে মোবাইলে নগদের মাধ্যমে সরাসরি অর্থ বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া এদিন ১৩তম ব্যাচের ৫০জন প্রশিক্ষনার্থীদের মাঝে ৬লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজনে সোমবার (৮ আগষ্ট) বেলা ১১টায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান স্বপন দাশ। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনোয়ার হোসেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শেখ হেলাল উদ্দীন ফাউন্ডেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ অমিত রায় চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শেখ মোস্তাহিদ সুজা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তহুরা খানম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তাহিরা খাতুন।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শাহ্ মো. মহিবুল্লাহ, প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা মো. জাহিদুর রহমান, মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই ওহিদুল ইসলাম, সদর ইউপি চেয়ারম্যান শিরিনা আক্তার কিসলু, তথ্য সেবা কর্মকর্তা নাজমা আক্তার, মহিলা ইউপি সদস্যা শিউলি বেগম প্রমূখ। এসময় বিভিন্ন কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, গনমাধ্যমকমৃী উপস্থিত ছিলেন। #

ফকিরহাট শেখ হাসিনা কারিগরি কলেজে অভিভাবক সমাবেশ
ফকিরহাট প্রতিনিধি।
বাগেরহাটের ফকিরহাট শেখ হাসিনা কারিগরি মহাবিদ্যালয়ে সোমবার (৮ আগষ্ট) বেলা ১১টায় কলেজ মিলনায়তনে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শেখ হাসিনা কারিগরি মহাবিদ্যালয়ের আয়োজনে শিক্ষার্থী উপস্থিতি, শিক্ষার্থীদের পাঠ মুল্যায়ণ, কলেজ সরকারি ঘোষনা অবহিতকরণ সহ শিক্ষার গুনগত মান উন্নয়নের লক্ষ্যে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ নীহার কান্তি ফৌজদার। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহকারী অধ্যাপকব অঞ্জনা রানী পাল কুন্ডু। প্রভাষক উত্তম কুমার দে এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহকারী অধ্যাপক মোড়ল নাজিম উদ্দীন, প্রভাষক শ্যামল কুমার সাহা, খন্দকার আল ফেসানি তারিকুল্লাহ, সাংবাদিক মান্না দে, অভিভাবক সদস্য আ. সাত্তার, খায়রুল আলম প্রমূখ। এসময় কলেজের বিভিন্ন শিক্ষক ও অভিভাবকগন উপস্থিত ছিলেন।

ফকিরহাটে মাদকসহ পুলিশের হাতে কারবারি আটক
ফকিরহাট প্রতিনিধি।
বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার নলধা এলাকায় পুলিশের অভিযানে মাদক সহ নুরইসলাম গাজী (২৪) নামের এক মাদক কারবারিকে আটক করেছে। পুলিশ জানায়, রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মৌভোগহ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই কনক মন্ডলের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল নলধা এলাকায় অভিযান চালিয়ে নুর ইসলামে গাজীকে আটক করে। এসময় তার দেহ তল্লাশী করে ৬০গ্রাম গাজা উদ্ধার করে পুলিশ। আটক মাদক কারবারি নুর ইসলাম নলধি গ্রামের আব্দুল্লাহ গাজীর ছেলে। এ ব্যাপারে মডেল থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা হয়েছে। ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মু. আলীমুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। #

ফকিরহাটে বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে সেলাই মেশিন বিতরণ
ফকিরহাট প্রতিনিধি।
বাগেরহাটের ফকিরহাটে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯২তম জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা, ৭জন নারীকে সেলাই মেশিন বিতরণ ও ৩জনকে মোবাইলে নগদের মাধ্যমে সরাসরি অর্থ বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া এদিন ১৩তম ব্যাচের ৫০জন প্রশিক্ষনার্থীদের মাঝে ৬লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজনে সোমবার (৮ আগষ্ট) বেলা ১১টায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান স্বপন দাশ। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনোয়ার হোসেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শেখ হেলাল উদ্দীন ফাউন্ডেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ অমিত রায় চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শেখ মোস্তাহিদ সুজা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তহুরা খানম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তাহিরা খাতুন।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শাহ্ মো. মহিবুল্লাহ, প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা মো. জাহিদুর রহমান, মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই ওহিদুল ইসলাম, সদর ইউপি চেয়ারম্যান শিরিনা আক্তার কিসলু, তথ্য সেবা কর্মকর্তা নাজমা আক্তার, মহিলা ইউপি সদস্যা শিউলি বেগম প্রমূখ। এসময় বিভিন্ন কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, গনমাধ্যমকমৃী উপস্থিত ছিলেন। #

ফকিরহাট শেখ হাসিনা কারিগরি কলেজে অভিভাবক সমাবেশ
ফকিরহাট প্রতিনিধি।
বাগেরহাটের ফকিরহাট শেখ হাসিনা কারিগরি মহাবিদ্যালয়ে সোমবার (৮ আগষ্ট) বেলা ১১টায় কলেজ মিলনায়তনে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শেখ হাসিনা কারিগরি মহাবিদ্যালয়ের আয়োজনে শিক্ষার্থী উপস্থিতি, শিক্ষার্থীদের পাঠ মুল্যায়ণ, কলেজ সরকারি ঘোষনা অবহিতকরণ সহ শিক্ষার গুনগত মান উন্নয়নের লক্ষ্যে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ নীহার কান্তি ফৌজদার। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহকারী অধ্যাপকব অঞ্জনা রানী পাল কুন্ডু। প্রভাষক উত্তম কুমার দে এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহকারী অধ্যাপক মোড়ল নাজিম উদ্দীন, প্রভাষক শ্যামল কুমার সাহা, খন্দকার আল ফেসানি তারিকুল্লাহ, সাংবাদিক মান্না দে, অভিভাবক সদস্য আ. সাত্তার, খায়রুল আলম প্রমূখ। এসময় কলেজের বিভিন্ন শিক্ষক ও অভিভাবকগন উপস্থিত ছিলেন।

ফকিরহাটে মাদকসহ পুলিশের হাতে কারবারি আটক
ফকিরহাট প্রতিনিধি।
বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার নলধা এলাকায় পুলিশের অভিযানে মাদক সহ নুরইসলাম গাজী (২৪) নামের এক মাদক কারবারিকে আটক করেছে। পুলিশ জানায়, রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মৌভোগহ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই কনক মন্ডলের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল নলধা এলাকায় অভিযান চালিয়ে নুর ইসলামে গাজীকে আটক করে। এসময় তার দেহ তল্লাশী করে ৬০গ্রাম গাজা উদ্ধার করে পুলিশ। আটক মাদক কারবারি নুর ইসলাম নলধি গ্রামের আব্দুল্লাহ গাজীর ছেলে। এ ব্যাপারে মডেল থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা হয়েছে। ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মু. আলীমুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। #

এপিসি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ৬তলা বিশিষ্ট নতুন একাডেমিক ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা মহানগরীর ৩১নং ওয়ার্ডস্থ দক্ষিণ লবনচরায় আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র (এপিসি) মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ৬তলা বিশিষ্ট নতুন একাডেমিক ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফলক উম্মোচন ও মোনাজাতের মধ্য দিয়ে একাডেমিক ভবন নির্মাণ কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।
বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মো: শামীমুর রহমান শামীম-এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেসিসি’র স্থানীয় কাউন্সিলর মো: আরিফ হোসেন মিঠু, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর রেকসনা কালাম লিলি ও ৩১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: নজরুল ইসলাম তালুকদার। অন্যান্যের মধ্যে শিক্ষা প্রকৌশলী অধিদপ্তর-খুলনার সহকারী প্রকৌশলী মো: আশরাফুল হক, উপসহকারী প্রকৌশলী মো: মনিরুল ইসলাম, ঝর্ণা এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধিকারী মো: শহিদুল ইসলাম, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শেখ মো: ফারুক হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: শরিফুল ইসলাম মুন্না, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সনজিৎ গোলদার, মো: মোশারফ হোসেন, মো: কামাল হোসেন, মো: তাইজুল ইসলাম ও সোনালী বেগম, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ভবতোষ কুমার ঘোষসহ শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব এঁর ৯২ তম জন্মবার্ষিকী কেসিসির দোয়া মাফফিল অনুষ্ঠিত
খবর বিজ্ঞপ্তি
বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব এঁর ৯২ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে সোমবার সকালে নগর ভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের স্মৃতি একজন মহীয়সী নারী হিসেবে চির অম্লান হয়ে থাকবে। আমৃত্যু স্বামীর পাশে থেকে অসীম ধৈর্য্যরে সাথে তিনি দেশ ও মানুষের সেবা করে গেছেন। বিপদে আপদে তিনি কখনো বিচলিত না হয়ে বরং অসীম সাহসীকতার সাথে বিপদ সংকুল অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য বঙ্গবন্ধুকে সুপরামর্শ দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে আওয়ামী লীগের দুঃসহ দিনগুলিতে তিনি দৃঢ়তার সাথে প্রতিকূলতা মোকাবেলা করেছেন। তাঁরই পরামর্শে বঙ্গবন্ধু ৭ই মার্চে হৃদয় থেকে উৎসারিত অলিখিত ভাষণ প্রদান করেন। সেই ভাষণটি পৃথিবীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ ভাষণ হিসেবে বিশ্ব দরবারে স্থান করে নিয়েছে।

সিটি মেয়র বঙ্গমাতার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আরো বলেন, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পত্নী হওয়া সত্বেও তিনি অত্যন্ত সাদামাটা জীবন যাপন করতেন। তাঁর কোন অহংকার ছিলনা। তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে মনে-প্রাণে ধারণ ও লালন করেছিলেন। দেশ ও জাতির জন্য তাঁর অপরিসীম ত্যাগ দেশবাসী চিরকাল শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে।

কেসিসি’র কাউন্সিলর ফকির মো: সাইফুল ইসলাম-এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্মসচিব) লস্কার তাজুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন কেসিসি’র মেয়র প্যানেলের সদস্য মোঃ আমিনুল ইসলাম মুন্না, মোঃ আলী আকবর টিপু ও এ্যাড. মেমরী সুফিয়া রহমান শুনু। অন্যান্যের মধ্যে কাউন্সিলর শেখ আব্দুর রাজ্জাক, মোঃ সাইফুল ইসলাম, শেখ মোহাম্মদ আলী, মোঃ ডালিম হাওলাদার, এমডি মাহফুজুর রহমান লিটন, মুন্সী আব্দুল ওয়াদুদ, মোঃ মনিরুজ্জামান, এসএম খুরশিদ আহম্মেদ টোনা, শেখ মোসারাফ হোসেন, শেখ মোঃ গাউসুল আজম, মোঃ শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন, আলহাজ্ব ইমাম হাসান চৌধুরী ময়না, মোঃ গোলাম মাওলা শানু, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মনিরা আক্তার, সাহিদা বেগম, রহিমা আক্তার হেনা, পারভীন আক্তার, শেখ আমেনা হালিম বেবী, মাহমুদা বেগম, কনিকা সাহা, মাজেদা খাতুন, রেকসনা কালাম লিলি, সচিব মোঃ আজমুল হক, প্রধান প্রকৌশলী মোঃ মনজুরুল ইসলাম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মশিউজ্জামান খান ও মোঃ আব্দুল আজিজ, চীফ প্লানিং অফিসার আবির উল জব্বার, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. স্বপন কুমার হালদার, নির্বাহী প্রকৌশলী শেখ মোহাম্মদ মাসুদ করিম, আর্কিটেক্ট রেজবিনা খানম, কঞ্জারভেন্সি অফিসার মোঃ আনিসুর রহমান, রাজস্ব কর্মকর্তা মোঃ অহিদুজ্জামান খান, সহকারী কঞ্জারভেন্সী অফিসার নুরুন্নাহার এ্যানী, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক অফিসার এস কে এম তাছাদুজ্জামান প্রমুখ। দোয়া পরিচালনা করেন রেজিষ্ট্রার মাওলানা মো: রফিকুল ইসলাম এবং অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন পাবলিক হল সুপারিনটেনডেন্ট মো: আব্দুর রহিম।

নড়াইলে বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে সেলাই মেশিন ও নগদ অর্থ বিতরণ
নড়াইল প্রতিনিধিঃ
নড়াইলে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯২ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে অসহায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ ও নগদ টাকা প্রদান এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (৮ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১২ টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন- পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় পিপিএম (বার), জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মৌসুমি রাণী মজুমদার, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এসএম ছায়েদুর রহমান, আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর জেলা কমান্ড্যান্ট বিকাশ চন্দ্র দাস, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাদিয়া ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইফুর রহমান হিলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা এসএ মতিন সহ আরো অনেকেই। আলোচনা সভা শেষে অসহায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়। জেলায় মোট ২৪ জন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মহিলাকে সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়। এর মধ্যে সদরে ১৪ জন, লোহাগড়ায় ৫ জন এবং কালিয়ায় ৫ জন। একই সাথে জেলায় মোট ৩০ জন অসহায়কে উপায়ের (অনলাইন ব্যাংকিং) মাধ্যমে ২ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়।

কেশবপুর সার্জিক্যাল ও মাতৃমঙ্গল ক্লিনিক বন্ধ করে দিলো স্বাস্থ্য বিভাগ
আলমগীর হোসেন , কেশবপুর (যশোর)
কেশবপুরে বেসরকারী ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এ সময় বহু বিতর্কিত কেশবপুর সার্জিকাল ও মাতৃমঙ্গল ক্লিনিক সিলড করা হয়েছে। রোববার দুপুরে সিভিল সার্জন বিপ্লব কান্তি বিশ্বাসের নের্তৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, অভিযান চলাকালে কেশবপুর সার্জিকাল ও মাতৃমঙ্গল ডায়াগনস্টিক কর্তৃপক্ষ অনুমোদনের কোনো প্রমাণপত্র দেখাতে পারেনি। এ সব প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসকতো দূরের কথা, নিবন্ধিত কোনো সেবিকাও ছিল না। নোংরা প্যাথলজি কক্ষে টেকনোলজিস্ট হিসেবে যারা ছিলেন তাদেরও কোনো অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি নেই। অথচ তারা দিব্যি রোগীদের প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ভুয়া রিপোর্ট প্রদান করছেন। এসব অভিযোগে স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান দু’টি বন্ধ করা হয়।
সিভিল সার্জন বিপ্লব কান্তি বিশ্বাস জানান, ছয় মাস আগে এই সব স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানদের সতর্ক করা হয়। কিন্তু এতো দিনেও তারা কোনো নিয়মের ভিতরে আসেনি। এসব কারণে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বেসরকারি ডায়াগনস্টিক বা হাসপাতাল পরিচালনা করতে গেলে বিধি মোতাবেক ৩৬ ধরনের চিকিৎসা সংক্রান্ত যন্ত্রপাতির থাকতে হবে। তিন-চারটি ছাড়া বলতে গেলে এসবের কিছুই নেই এ দুই ডায়াগনস্টিকে। অনুমোদনহীন এমন প্রতিষ্ঠান বন্ধে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের এমন অভিযান চলমান থাকবে। বৈধ কাগজ পত্র ছাড়া কোনো স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান চলতে দেয়া হবেনা।
অভিযানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি সিভিল সার্জন নাজমুস সাদিক রাসেল ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা আরিফুজ্জামান।
উল্লেখ্য, ৬ আগস্ট কেশবপুর সার্জিক্যাল ক্লিনিকে ভুল সিজারিয়ান অপারেশনে সীমা খাতুন (২৫) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়। পত্র পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর রোববারই অভিযান চালায় স্বাস্থ্য বিভাগ।#

খুবির শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের সেমিনার অনুষ্ঠিত
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের আয়োজনে ৮ আগস্ট (সোমবার) দুপুর ২টায় আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে ‘জড়ষব ড়ভ কট ঝঢ়ড়ৎঃং রহ ঝযধঢ়রহম ঃযব খবধফবৎং ড়ভ ঞড়সসড়ৎৎড়’ি (রোল অব কেইউ স্পোর্টস ইন শেপিং দ্য লিডার্স অব টুমোরো) শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারের উদ্বোধনীপর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন।
তিনি বলেন, খেলাধুলার মাধ্যমে নেতৃত্ব তৈরি হয়। খেলাধুলায় জয়-পরাজয় থাকে। এখানে আনন্দ ও দুঃখ আছে। তবে পরাজয় থেকে শিক্ষা নিয়ে পরবর্তীতে ভালো করার শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। উৎসাহ ও উদ্দীপনার মাধ্যমে খেলাধুলাকে উপভোগ্য করে তুলতে হবে। খেলার মাঠে অসুস্থ প্রতিযোগিতা পরিত্যাগ করতে হবে। টিম স্পিরিট ও পরিচ্ছন্ন মানসিকতা নিয়েই খেলার মাঠে নামতে হবে। দর্শকদেরকেও সেরূপ আচরণ করতে হবে যাতে করে খেলোয়াড়রা উৎসাহিত হয়। কিন্তু কোনো অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা যেনো না ঘটে। যাতে আনন্দময় পরিবেশ বিঘ্নিত না হয়। কারণ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা যখন মাঠে খেলে বা খেলা দেখে তখন তাদের একটি স্বাতন্ত্র্য পরিচয় থাকে। এর মাধ্যমে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের, ডিসিপ্লিন এমনকি পরিবারেরও প্রতিনিধিত্ব করে।
তিনি আরও বলেন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বমানে এগিয়ে নিতে আমরা নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। এক্ষেত্রে সহ-শিক্ষামূলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চার ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। যাতে করে শিক্ষার্থীদের সুপ্ত প্রতিভা, মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্য বিকশিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এক্ষেত্রে সম্ভব সহযোগিতা প্রদান করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তিনি শিক্ষার্থীদেরকে নিজ নিজ উদ্যোগে সহ-শিক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণে এগিয়ে আহ্বান জানান।
শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগ ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব গঠনে খেলাধুলার ভূমিকাকে সামনে রেখে যে সেমিনার আয়োজন করেছে তা অত্যন্ত সময়োপযোগী এবং সবিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বলে উপাচার্য মন্তব্য করেন। তিনি এজন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগের পরিচালককে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
সেমিনারের উদ্বোধনপর্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস ও ছাত্র বিষয়ক পরিচালক প্রফেসর মো. শরীফ হাসান লিমন। সভাপতিত্ব করেন শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. আহসান হাবীব। তিনি সেমিনারের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য, বিভাগের অন্যান্য উদ্যোগ ও পরিকল্পনা তুলে ধরেন। এসব ক্ষেত্রে সহযোগিতা প্রদানের জন্য তিনি উপাচার্যের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।
সেমিনারে রিসোর্স পারসন হিসেবে স্পোর্টস ইথিকস্ বিষয়ে প্রফেসর ড. মো. ওয়াসিউল ইসলাম, বিল্ডিং লিডারশিপ বিষয়ে প্রফেসর মো. সামিউল হক ও স্পোর্টস ম্যানেজমেন্ট বিষয়ে সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. তানভীর আহমেদ সোহেল আলোচনা করেন। এসময় বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের শিক্ষক প্রতিনিধি এবং প্রায় দুইশত শিক্ষার্থী (খেলোয়াড় প্রতিনিধি) ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

খুলনা বিভাগে মুজিব গ্রাফিক নভেল সিরিজ বিতরণ
তথ্য বিবরনী
বিশ^সাহিত্য কেন্দ্রের উদ্যোগে ও মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস বিকাশের সহযোগিতায় স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মাঝে ‘মুজিব’ গ্রাফিক নভেল সিরিজ বিতরণ অনুষ্ঠান সোমবার দুপুরে খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এসডিএফ) এর চেয়ারম্যান ও বিশ^সাহিত্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি মোঃ আব্দুস সামাদ। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় চেয়ারম্যান বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন জাতির কান্ডারি ও রাজনীতির কবি। তিনি সারাজীবন বাঙালি জাতির স্বাধীনতা ও অধিকার আদারের জন্য সংগ্রাম করেছেন। এই জন্য তাকে বার বার জেলে যেতে হয়েছে। তার বজ্রকন্ঠ, অনবদ্য সাহস ও অসাধারণ নেতৃত্বের ফলে আমরা সার্বভৌম স্বাধীন রাষ্ট্র পেয়েছি। হাজার বছর ধরে বাঙালির যে দুঃখ, বেদনা, কষ্ট, অর্থনৈতিক দুরাবস্তা, অনাচার জমে ছিলো সেই পাষাণকে ভেঙ্গে একটি আত্মপ্রত্যয়ে দীপ্ত জাতি গঠন করাই ছিলো তার স্বপ্নের দর্শন। পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্পর্কে চেয়ারম্যান বলেন, পদ্মা সেতু বাংলাদেশকে কেন্দ্রীভূত করেছে। একীভূত বাংলাদেশ গড়ে তুলেছে। আজকের টেকনাফ থেকে পঞ্চগড় এবং সাতক্ষীরা থেকে সুনামগঞ্জের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। এই সেতুর ফলে মানুষের মাঝে ব্যবধান দূর হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ‘মুজিব’ গ্রাফিক নভেল সিরিজ বিতরণের উদ্যোগ শিশু-কিশোরসহ সকল মানুষকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে আরো ভাল করে জানার সুযোগ করে দেবে। এই কাজে সহযোগিতার জন্য বিকাশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।
শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, যত বেশি বই পড়বে, জ্ঞানরাজ্য সম্পর্কে ততবেশি জানতে পারবে। এর ফলে বুদ্ধিদীপ্ত মানুষ হবে। বিশ^মানের নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠবে। পৃথিবীকে নেতৃত্ব দিতে পারবে।

খুলনার বিভাগীয় কমিশনার মোঃ জিল্লুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিকাশের চিফ এক্সটার্নাল অ্যান্ড কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স কর্মকর্তা মেজর জেনারেল (অব:) শেখ মোঃ মনিরুল ইসলাম ও বিশ^সাহিত্য কেন্দ্রের পরিচালক শামীম আল মামুন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি খুলনা বিভাগের একশ’টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মাঝে চার হাজার কপি ‘মুজিব’ গ্রাফিক নভেল সিরিজ বিতরণ করেন। এপর্যায়ে একশটি স্কুলের প্রতিটিতে পাঁচ সেট করে বই দেয়া হয়েছে। ফলে একই সাথে ৪০ জন শিক্ষার্থী স্কুলের লাইব্রেরি থেকে বইটি পড়ার সুযোগ পাবে।
উল্লেখ্য, আগামী প্রজন্মের মাঝে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে দায়িত্বশীল কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান হিসেবে ২০১৪ সাল থেকে বিশ^সাহিত্য কেন্দ্রের বই পড়া কর্মসূচির সাথে যুক্ত আছে বিকাশ। এ পর্যন্ত দুই হাজার ৯০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২ লাখ ৫৩ হাজার ছয়শত বই দিয়েছে বিকাশ, যা থেকে ২৬ লাখ পাঠক উপকৃত হয়েছেন।

ডুমুরিয়ায় বঙ্গমাতার ৯২তম জন্মবার্ষিকী পালিত
ডুমুরিয়া প্রতিনিধি
“মহীয়সী বঙ্গমাতার চেতনা,অদম্য বাংলাদেশের প্রেরণা” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ডুমুরিয়ায় উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর’র আয়োজনে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা’র ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া, আলোচনা সভা ও দুঃ¯’ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলা শহীদ জোবায়েদ আলী মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরীফ আসিফ রহমান। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রীনা মজুমদার। বক্তব্য রাখেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শারমীনা পারভীন রুমা, গাজী আব্দুল হালিম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মামুনুর রশীদ, ওসি সেখ কনি মিয়া, সমাজসেবা কর্মকর্তা সুব্রত বিশ্বাস, নির্বাচন কর্মকর্তা কল্লোল বিশ্বাস, জনস্বা¯’্য প্রকৌশলী ডঃ সোহেল পারভেজ, দারিদ্র্য বিমোচন কর্মকর্তা প্রতাপ চন্দ্র দাস প্রমুখ। সভা শেষে দুঃ¯’ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়। পরে উপজেলা জামে মসজিদে জোহর নামাজ বাদ বঙ্গমাতার মাগফিরাত কামনায় এক দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া পরিচালনা করেন হাফেজ মোঃ ওহিদুজ্জামান।

ডুমুরিয়ায় নারী উন্নয়ন ফোরামের দ্বি-মাসিক সভা
ডুমুরিয়া প্রতিনিধি
ডুমুরিয়ায় বে-সরকারি উন্নয়ন সং¯’া রূপান্তরের অপরাজিতা প্রকল্পের সহযোগিতায় নারী উন্নয়ন ফোরামের আয়োজনে দ্বি-মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন ফোরামের সভাপতি মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শারমীনা পারভীন রুমা। ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ললিতা সরদারের পরিচালনা বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রকল্প সমন্বয়কারী দীপঙ্কর মন্ডল, ইউপি সদস্য নারগিস বেগম, আসমা বেগম, বন্দনা কবিরাজ, আর্জিনা বেগম, ফিরোজা বেগম, আরতী বৈরাগী, প্রমিলা মন্ডল, মাধুরী মল্লিক, আলেয়া বেগম, পারুল আক্তার, রোকেয়া বেগম প্রমূখ।

রামপালে মাদকাসক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর গলায় ছুরিকাঘাতের অভিযোগ
রামপাল (বাগেরহাট) সংবাদদাতা
রামপালে যৌতুকলোভী পাষন্ড স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর গলায় ছুরিকাঘাত করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী সায়মা বেগমের পিতা আশ্বাস আলী মোড়ল রামপাল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। বিবাহের পর থেকেই মাদকাসক্ত স্বামী স্ত্রী সায়মাকে শারীরিক ও মানষিকভাবে নির্যাতন করে আসছেন।

লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, পারিবারিক ভাবেই বাগেরহাটের হেলাতলার মোসলেম ফকিরের ছেলে আলমগীর ফকিরের (৫৪) সাথে রামপাল উপজেলার বাছাড়েরহুলা গ্রামের আশ্বাদ আলীর মেয়ে ছায়মা বেগমের (২৮) বিবাহ হয়। কিছুদিন সংসার জীবন অতিবাহিত হতেই নানাবিধ সমস্যার অযুহাত দিয়ে শুরু হয় যৌতুক চাওয়া। সাধ্যমত যৌতুক দিলেও মাদকাসক্ত স্বামী আলমগীর ফকির ও তার বোন আফরোজা বেগম ছায়মা বেগমের উপর চালাতে থাকেন নির্যাতন। যৌতুক দিতে অস্বীকৃতি জানালে আলমগীর ও তার বোন আফরোজা বেগম বাড়ি থেকে ছায়মা কে তাড়িয়ে দেয়।

গত ২৮ জুলাই আনুমানিক রাত দেড়টার সময় পরিকল্পিতভাবে বোন আফরোজার ইন্ধনে আলমগীর খুন করার উদ্দেশ্যে ধারালো ছুরি দিয়ে ছায়মার গলায় ও বাম পায় ছুরিকাঘাত করে গুরুতর জখম করে। এর আগেও আলমগীর ও তার বোন আফরোজা মাথার চুল কেটে দেয় ছায়মার।

এ বিষয়ে রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামসুদ্দীন জানান, অভিযোগ পত্রটি হাতে পেয়েছি। বিষয়টি পারিবারিক। অভিযোগের সত্যতা পেলে তার বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অভয়নগরে গাঁজা সহ আটক ১জন
স্টাফ রিপোর্টার, অভয়নগর
অভয়নগর থানা পুলিশের অভিযানে গাঁজা সহ এক মাদক কারবারি আটক। এসময় তার অপর সহযোগি পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।
সোমবার (৮আগষ্ঠ) সকাল ১১টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই শরিফুল ইসলাম নেতৃত্বে ও এএসআই সিলন সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন।
এসময় বিক্রয়ের জন্য আনা ৫০০গ্ৰাম গাঁজা সহ মাদক কারবারি জীয়াডাঙ্গা গ্ৰামের সাইফুল ইসলামের ছেলে আসিব হোসেন (২২)কে আটক করা হয়েছে। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তার অপর সহযোগি ধলিরগাতি গ্ৰামের মুনসুর আলীর ছেলে রিয়াজ হোসেন (২৪) দৌড়ে পালিয়ে যায়।
এবিষয়ে অভয়নগর থানার পরিদর্শক ( তদন্ত ওসি) মিলন কুমার মন্ডল বলেন, গাঁজা সহ এক জনকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। পালিয়ে যাওয়া অপর আসামিকে ধরতে অভিযান চলছে।

তালায় রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং প্রকল্প দ্রুত সম্পন্ন হচ্ছে
ইলিয়াস হোসেন, তালা(সাতক্ষীরা)::
আশ্রয়ন প্রকল্পের অধিন তালা উপজেলার গৃহহীন ও ভূমিহীনদের জন্য বসতঘর নির্মানের পর এবার তাদের সু-পেয় পানি সরবারহ নিশ্চিত করতে সরকার রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এই প্রকল্পের অধিনে উপকারভোগী পরিবারগুলো ৩ হাজার লিটার ধারন ক্ষমতা সম্পন্ন একটি পানির ট্যাংক সহ ট্যাংকে বৃষ্টির পানি ধরে রাখাতে সকল উপকরনের সুযোগ পাবে। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের মাধ্যমে তালা উপজেলায় রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ দ্রুত গতীতে সম্পন্ন হচ্ছে।
তালা উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী মো. মফিজুর রহমান জানান, তালা উপজেলার গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারগুলোকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আশ্রয়ন প্রকল্পের অধীনে জমি সহ বসতঘর প্রদান করেছেন। সেখানে বাসবাসকারী পরিবারগুরো যাতে সু-পেয় পানি পান করতে পারে এজন্য রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং প্রকল্পের অধিনে পরিবার প্রতি ১টি করে ৩হাজার লিটার ধারন ক্ষমতার পানির ট্যাংক স্থাপন করে দেয়া হচ্ছে। উপজেলার অন্য এলাকায় প্রকল্প বাস্তবায়নের ধারাবাহিকতায় বর্তমানে খলিলনগর ইউনিয়নের নলতা গ্রামে আশ্রয়ন প্রকল্পের উপকারভোগী ৪২টি পরিবারের জন্য রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং প্রকল্প বাস্তবায়ন প্রায় শেষ পর্যায়ে। কিন্তু এরইমধ্যে একটি স্বার্থান্বেসী মহল তাদের স্বার্থ উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে অতিগুরুত্বপূর্ন ও স্পর্শকাতর এই প্রকল্প নিয়ে নানান অপপপ্রচার ও মিথ্যা তথ্য প্রচার করে সরকারের ভাবমূর্তী ক্ষুন্ন করার অপচেষ্টা করছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।
উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী মো. মফিজুর রহমান বলেন, টেন্ডারের মাধ্যমে সাতক্ষীরার সোনা সাহেব ঠিকাদার নিযুক্ত হয়ে তালার নলতা গ্রামে ৪২টি রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এই প্রকল্পের নক্সা অনুযায়ী পানি ট্যাংক স্থাপনের জন্য একটি প্লাটফর্ম তৈরি করতে হবে। প্লাটফর্মের ২ লেয়ারের ইট ১৫ ইঞ্চি, ৪ লেয়ারের ইট ১০ইঞ্চি, ব্যাস ৫ফুট ৩ইঞ্চি এবং ১:৪ হিসেবে সিমেন্ট ও বালি দিয়ে কাজ করে প্লটফর্মটির প্লাস্টার সহ ড্যাডো করতে হবে। বালি ভরাট করে জমি উঁচু করায় এখানে প্লাটফর্মের নিচে অতিরিক্ত কোনও বালি বা বেজ ঢালায় প্রয়োজন হয়নি। অথচ একটি স্বার্থান্বেসী মহল তাদের স্বার্থ উদ্ধার না হওয়ায় এই প্রকল্পের বিরুদ্ধে নানান ভিত্তিহীন ও কাল্পনিক তথ্য প্রচার চালিয়ে সরকার এবং প্রকল্পের ভাবমূর্তী ক্ষুন্ন করার অপচেষ্টা করছে।
জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী জানান, এই প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে ইট, সিমেন্ট, বালি সহ সবকিছু যাচাই-বছাই করে নেয়া হচ্ছে। এছাড়া, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয় সরজমিন পরিদর্শন করে কাজের মান পরীক্ষা করছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই প্রকল্পে দূর্নীতি বা অনিয়মের কোনও সুযোগ কাউকে দেয়া হবেনা।
এবিষয়ে জানতে চাইলে তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার বলেন, নলতা গ্রামে প্রকল্পের কাজ সিডিউল অনুযায়ী করা হয়েছে। এখানে অনিয়ম হচ্ছে বলে আমার জানা নেই।
তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস জানান, সরজমিন পরিদর্শন করে প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ব্যবহৃত ইট, বালি ও সিমেন্ট পরীক্ষা করে নেয়া হয়েছে। এছাড়া সর্বসময় প্রকল্পের কাজের দিকে নজর রাখা হচ্ছে।

তালায় বিদ্যালয় ও বাড়ি চোরাচক্রের হানা
তালা(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
তালার খলিলনগর ইউনিয়নের ৬০ নং মহান্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একই ইউনিয়নের হরিশচন্দ্রকাটি গ্রামের নিতাই দেবনাথে বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা ঘটেছে। রবিবার (৭ আগস্ট) গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। চোরচক্র বিদ্যালয়ের তিনটি শ্রেণিকক্ষের তালা ভেঙ্গে ১২টি ফ্যান, ১টি ইউপিএস, ১টি মাইক্রোফোনসহ বড় সাউন্ড সিস্টেম এবং ৩টি তালাসহ গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র নিয়ে যায়।

মহান্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মনোয়ারা খাতুন জানান, প্রতিদিনের মত শনিবার স্কুল ছুটি শেষে তালা বন্ধ করে আমরা বাড়ি চলে আসি। কিন্তু রবিবার সকালে এলাকাবাসীর মাধ্যমে জানতেপারি স্কুলে চুরি হয়েছে। স্কুলে গিয়ে দেখি তিনটি শ্রেণিকক্ষের তালা ভেঙ্গে ১২টি ফ্যান, ১টি ইউপিএস, ১টি মাইক্রোফোনসহ বড় সাউন্ড সিস্টেম, ৩টি তালাসহ গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র নিয়ে যায় চোরচক্র। এ বিষয়ে উর্দ্ধতন স্যারদের জানানো হয়েছে। একই সাথে তালা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে ইরিশ্চন্দ্রকাটি গ্রামের নিতাই দেবনাথ জানান, শনিবার রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে গরু তিনটি গোয়াল ঘরে দেখে ঘুমাতে যায়। সকালে গরু গুলো দেখতে গেলে দেখি কে বা কারা গোয়াল থেকে গরু চুরি করে নিয়ে গেছে। তিনি জানান তিনটি গাভী গরু দাম ৫ লক্ষ টাকা গরু গুলো হারিয়ে আমি নিঃস্ব হয়ে গেছি।
খলিলনগর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রণব ঘোষ বিষয়টি নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আমি খবর পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি এবং ইউএনও ও ওসি স্যারের সাথে ঘটনা নিয়ে তাৎক্ষণিক কথা বলি। বিদ্যালয়টিতে উপজেলার একমাত্র ডিজিটাল ক্লাসরুম রয়েছে। কিন্তু নিরাপত্তা ব্যবস্থা দুর্বল হওয়ার জন্য চুরি সংগঠিত হতে পারে।

তালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান জানান, সকালে চুরির ঘটনা শোন মাত্রই আমি সেখানে একজন এসআই পাঠিয়েছি। তদন্ত চলছে। চোর চক্র ধরার জন্য চেষ্টা চলছে।

তালায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে নম্বর জালিয়াতির অভিযোগ
ইলিয়াস হোসেন, তালা(সাতক্ষীরা)::
তালার শহীদ আলী আহম্মদ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকের বিরুদ্ধে পরীক্ষার নম্বর জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে। আর এই জালিয়াতির অভিযোগ করেছে বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক।
সম্প্রতি বিদ্যালয়টির ৮ম শ্রেণির অর্ধবার্ষিক পরীক্ষায় সিনিয়র শিক্ষক মুুমতাহিনা মুক্তি কর্তৃক পরীক্ষার নম্বর জালিয়াতির অভিযোগ করে ৭ আগস্ট রবিবার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি অভিযোগ প্রদান করে ভুক্তভূগি শিক্ষার্থীর অভিভাবক।
অভিযোগকারী রেজাউল ইসলাম (রেজা)জানান, আমার মেয়ে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। অর্ধবার্ষিক পরীক্ষায় পরীক্ষার নম্বর জালিয়াতি মাধ্যমে আমার মেয়ে কে মেধা তালিকা থেকে নিচে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্ত অন্য একটা মেয়েকে আই সি টি খাতার নম্বর জালিয়াতি করে ৪০ মার্কস দেওয়া হয়েছে। কিন্ত আই সি টি মূল্যায়নকারী শিক্ষক মারফতে জানতে পারলাম ওই মেয়েটা ৩৪ থেকে ৩৬ এই ভেতর নম্বর পেয়েছে। আমি মনে করি ঐ শিক্ষক অনেক টাকার বিনিময়ে এই নম্বর জালিয়াতি করেছেন। এভাবে চলতে থাকলে বিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হবে। আমি এর প্রতিকার চাই।
এ বিষয়ের মুমতাহিনা মুক্তি বলেন, যা কিছু করেছি তা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের অনুমতি নিয়েই করেছি।
আইসিটি বিষয়ের শিক্ষক মো. আসলাম আল মেহেদী বলেন, আমি আইসিটি বিষয়ের শিক্ষক। আমি খাতা মূল্যায়ন করে একজন শিক্ষার্থীকে ৩৬ নম্বর দিয়েছি। কিন্তু ইংরেজি বিভাগের একজন শিক্ষক এসে কিভাবে আমার মূল্যায়নকৃত নম্বর কেটে নম্বর বাড়িয়ে দেয় তার আমার জানা নেই। এতে আমি অপমানিত হয়েছি।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অলোক কুমার তরফদার বলেন, আমি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি দেখবো। তারপর ব্যবস্থা নিবো।
তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার বিশ^াস জানান, আমি অভিযোগ পেয়েছি। যেহেতু সরকারি প্রতিষ্ঠান সেহেতু সরকারি নিয়ম অনুযায়ী বিষয়টি দেখা হবে।

খুলনায় বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উদযাপিত
তথ্য বিবরনী
স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দুস্থ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ এবং আর্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠান সোমবার সকালে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। জন্মবার্ষিকী পালনে এবারের প্রতিপাদ্য ‘মহীয়সী বঙ্গমাতার চেতনা, অদম্য বাংলাদেশের প্রেরণা’।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের টুঙ্গিপাড়ার খোকা থেকে বাঙালির মুক্তির মহানায়ক জাতির পিতা হয়ে ওঠার পেছনে প্রেরণার উৎস ছিলেন বেগম মুজিব। পরিবার হতে সহায়তা না থাকলে মানুষের জন্য কাজ করা ও রাজনীতিতে টিকে থাকা সম্ভব নয়। বঙ্গবন্ধুর পারিবারিক ও রাজনৈতিক জীবনে সর্বতোভাবে সহযোগিতা করে বাঙালীর মুক্তির সংগ্রামকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করেছেন বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিব। তিনি বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বড় ডিগ্রীধারী ছিলেনা না তবে দূরদর্শী জ্ঞানসম্পন্ন ও প্রজ্ঞাবান নারী ছিলেন। দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের বিভিন্ন স্তরে তাঁর বলিষ্ঠ অবদান রয়েছে। বঙ্গবন্ধু রাজনৈতিক কারণে কারাগারে থাকাকালে সাহসের সাথে ফজিলাতুন নেছা মুজিব পরিবার ও দলকে গুছিয়ে রেখেছেন।

খুলনার জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনার বিভাগীয় কমিশনার মোঃ জিল্লুর রহমান চৌধুরী, জেলা পরিষদের প্রশাসক শেখ হারুনুর রশীদ ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান। অনুষ্ঠানে খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর কবীর ও জাতীয় মহিলা সংস্থা খুলনার চেয়ারম্যান অধ্যাপিকা রুনু ইকবাল বিথার বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত জানান মহিলা বিষয়ক দপ্তরের উপপরিচালক হাসনা হেনা। সভায় সরকারি বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা ও বিভিন্ন নারী সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শেষে দুস্থ নারীদের মাঝে আর্থিক সহায়তা ও সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়। উল্লেখ্য, বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে খুলনা মহানগর ও নয় উপজেলার ৯৫ জন নারীকে সেলাই মেশিন ও ৩০জন নারীকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

প্রথম ট্রায়ালের পণ্য মোংলা বন্দর দিয়ে খালাসের পর ভারতে পরিবহণ শুরু
মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি
বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পণ্য আমদানী-রপ্তানী চুক্তির প্রথম ট্রায়ালের পণ্য মোংলা বন্দর দিয়ে খালাসের পর টার্মিনাল ট্রাক্টরে করে তা ভারতের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে গেছে। গত ১ আগস্ট ভারতের কলকাতা বন্দর থেকে এ পণ্য নিয়ে ছেড়ে আসা নৌযান (লাইটার জাহাজ) এম,ভি রিশাদ রায়হান সোমবার সকাল ৯টায় মোংলা বন্দরের ৯ নম্বর জেটিতে ভিড়ে। এরপর বেলা সাড়ে ১১টায় শুরু হয় নৌযানটি থেকে কন্টেইনার ও স্টিল পণ্য খালাসের কাজ। সেখানে খালাস হওয়া কন্টেইনার ও স্টিল পণ্য নৌযান থেকে সরাসরি টার্মিনাল ট্রাক্টরে উঠানো হয়। এরপর নানা আনুষ্ঠানিকতা শেষে দুপুর ১২টাট দিকে সেই পণ্য নিয়ে টার্মিনাল ট্রাক্টরটি সড়ক পথে ভারতের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যায়। কলকাতা থেকে নৌযানে আসা দুইটি কন্টেইনারের মধ্যে একটি তামাবিল সীমান্ত হয়ে ভারতের মেঘালয়ে যাবে। আর অপর কন্টেইনারটি বিবিরবাজার সীমান্ত দিয়ে ভারতের আসামে যাবে।

অ্যাগ্রিমেন্ট অন দ্যা ইউজ অব চট্টগ্রাম অ্যান্ড মোংলা পোর্ট ফর মুভমেন্ট অব গুডস টু অ্যান্ড ফ্রম ইন্ডিয়া (এসিএমপি) চুক্তির আওতায় এ ট্রায়াল রান শুরু হয়েছে। চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহার করে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে পণ্য সরবরাহ করতে দুই দেশের মধ্যে ২০১৮ সালের অক্টোবরে এ চুক্তি হয়।
এরপর প্রথমবারের মতো ট্রায়াল রান হয়েছিল ২০২০ সালের জুলাইয়ে। তখন কলকাতা বন্দর থেকে পণ্যবাহী নৌযান চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছায়। সেখান থেকে স্থলপথে পণ্য আগরতলা নেয়া হয়েছিল। তখনকার পণ্য ছিল ডাল ও রড। কিন্তু করোনা মহামারিসহ নানা জটিলতায় গত চার বছরে এ চুক্তির উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়নি।
পরে ভারতের পক্ষ থেকে চারটি রুটে ট্রায়েল রানের অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। তবে আপাতত দুইটি স্থলবন্দর দিয়ে ট্রান্সশিপমেন্ট দিতে রাজি হয় বাংলাদেশ। তার প্রক্ষিতেই মোংলা বন্দর ব্যবহার বিষযয়ক চুক্তি পূর্ণাঙ্গভাবে বাস্তবায়নে ৪টি ট্রায়াল রানের প্রথমটি শুরু করেছে ভারতের কলকাতা বন্দর।
তারই ধারাবাহিকতায় প্রথম ট্রায়ালে ভারতের কলকাতা থেকে বাংলাদেশী নৌযান (কার্গো) এম.ভি রিশাদ রায়হান আসে মোংলা বন্দরে। এ নৌযানটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট জ্যাক শিপিং। আর সিএন্ডএফ’র কাজ করছেন সুইফট লজিস্টিক সার্ভিসেস লিঃ। মার্কস লাইনের এই দুইটি কন্টেইনারের মধ্যে একটিতে রয়েছে ইলেক্ট্রোস্টিল কাস্টিংস লিমিটেডের ৭০ প্যাকেজের ১৬.৩৮০ মেট্টিক টন লোহার পাইপ আর আরেকটিতে রয়েছে ২৪৯ প্যাকেজে ৮.৫ মেট্টিক টন প্রিফোম।

মোংলা বন্দর জেটিতে এ পণ্য খালাসের সময় ভারতের সহকারী হাইকমিশনার ইনডার জিত সাগর, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা, মোংলা কাস্টমস হাউসের কমিশনার মোহাম্মদ নেয়াজুর রহমানসহ বন্দর সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

ভারতের সহকারী হাইকমিশনার ইনডার জিত সাগর বলেন, ভারত-বাংলাদেশ প্রটোকল রুটে অভ্যন্তরীণ নৌপথ ব্যবহার করে ব্যবসায়িক গতি
বাড়ানোর লক্ষ্যে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ কার্যক্রমের মাধ্যমে দুই দেশের অর্থনীতি ও দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নে আরও ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে। তিনি আরো বলেন, ২০২২ সালের মার্চে অনুষ্ঠিত ১৩তম ভারত-বাংলাদেশ জয়েন্ট গ্রুপ অফ কাস্টমস
(জেএসসি) বৈঠকের পর ট্রায়াল রান পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তারই প্রথম ট্রায়ালের পণ্য মোংলা বন্দর দিয়ে খালাস ও পরিবহণ শুরু হয়েছে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা বলেন, মোংলা বন্দরের মাধ্যমে ভারতের সাথে পণ্য পরিবহণের ক্ষেত্রে একটি মাইলফলক সৃষ্টি হলো। এ কার্যক্রমের মাধ্যমে আমাদের বন্ধুপ্রতিম দেশের সাথে বন্ধুত্ব ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরও জোরদার হবে হলে আমি বিশ্বাস করি।

ইন্দুরকানীতে পাঁচটি ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষনা
ইন্দুরকানী(পিরোজপুর) সংবাদদাতাঃ
পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নের বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের ৩১ সদস্য বিশিষ্ট ইউনিয়ন আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক মোঃ হুমাউন কবির ও সদস্য সচিব জুয়েল রানার সাক্ষরিত কমিটি অনুমোদন করেন । এতে ১নং পাড়েরহাট ইউনিয়নের আহবায়ক মোঃ আলী আক্কাস খান ও মোঃ মাসুম মৃধা, ২নং পত্তাশী ্ইউনিয়নের আহবায়ক শেখ মোঃ জাহিদুল ইসলাম ও সদস্য সচিব মোঃ সালাউদ্দিন রুবেল ৩নং বালিপাড়া ইউনিয়নের আহবায়ক মোঃ ইব্রাহীম ও সদস্য সচিব আব্দুল্লাহ আল মামুন ৪নং ইন্দুরকানী সদর ইউনিয়নের আহবায়ক মোঃ ইমাম হোসেন হাওলাদার ও সদস্য সচিব মোঃ ইমরান হোসেন রানা, ৫নং চন্ডিপুর ইউনিয়নের আহবায়ক মোঃ রবিউল ইসলাম ও সদস্য সচিব মোঃ নাইম শেখকে সদস্য সচিব করে ৩১ সদস বিশিষ্ঠ কমিটি ঘোষনা করা হয় ।

সন্তানের মায়া না করে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে মহান মুক্তিযুদ্ধে দুই শিশু সন্তানকে পাঠিয়েছিলেন: সিটি মেয়র
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব অত্যন্ত ধৈর্য্যশীল, সাহসী, ত্যাগী ও মহিয়সী নারী ছিলেন। সন্তানের মায়া না করে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে জনগনের মুক্তির জন্য দুই শিশু সন্তানকে যুদ্ধ পাঠিয়েছিলেন। তিনি সংসার সন্তানের দিকে না তাকিয়ে সংসার খরচের টাকা দলের পেছনে ব্যয় করেছেন। তিনি ছাত্রনেতা থেকে শুরু করে দলের সকল স্তরের নেতাকর্মীর খোঁজ রাখতেন। তিনি আরো বলেন, জীবন এবং রাজনীতির ক্ষেত্রে ত্যাগ স্বীকার করতে হবে। সেজন্যে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জীবন থেকে শিক্ষা নিতে হবে। তিনি বলেন, তাঁর ত্যাগ-তিতিক্ষাই বঙ্গবন্ধুকে খোকা থেকে জাতির পিতা করেছেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা এবং মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গমাতার অবদান অপরিসীম। বঙ্গবন্ধু গ্রেফতার হলে তিনি দলের শীর্ষ নেতাদের সাথে পরামর্শ করে দলের দিক নির্দেশনা দিতেন। তাঁর মতো ত্যাগী মহিয়সী নারীর আদর্শকে অনুসরণ করে আগামীতে দেশ ও মানুষের উন্নয়নে কাজ করতে হবে। সেজন্য জননেত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বের প্রতি অবিচল আস্থা রেখে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হবে।
গতকাল সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় দলীয় কার্যালয়ে মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মীনি এবং তাঁর রাজনৈতিক অনুপ্রেরণা, আওয়ামী রাজনীতির নেপথ্যে কুশীলব, প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার মাতা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শ্যামল সিংহ রায়, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর ইসলাম বন্দ, নির্বাহী সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ মো. ফারুক আহমেদ, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শেখ মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী সদস্য রুনু ইকবাল বিথার, নির্বাহী সদস্য কাউন্সিলর মো. গাউসুল আযম, সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তসলিম আহমেদ আশা, মহানগর শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মোতালেব হোসেন, সোনাডাঙ্গা থানা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূরানী রহমান বিউটি, মহানগর সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এম এ নাসিম, যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক এ্যাড. রাবেয়া ওয়ালী করবী। মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগের পরিচালনায় এসময়ে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা বেগ লিয়াকত আলী, মল্লিক আবিদ হোসেন কবীর, বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন মিন্টু, এ্যাড. রজব আলী সরদার, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, জামাল উদ্দিন বাচ্চু, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যা. আলমগীর কবির, প্যানেল মেয়র আলী আকবর টিপু, এ্যাড. অলোকা নন্দা দাস, শেখ মো. ফারুক হাসান হিটলু, কামরুল ইসলাম বাবলু, বীরেন্দ্র নাথ ঘোষ, মো. মফিদুল ইসলাম টুটুল, শেখ নুর মোহাম্মদ, কাউন্সিলর হাফিজুর রহমান হাফিজ, বীর মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলর মুন্সি আব্দুল ওয়াদুদ, মনিরুজ্জামান খান খোকন, এস এম আকিল উদ্দিন, কাউন্সিলর আব্দুর রাজ্জাক, কাউন্সিলর মাহমুদা বেগম, কাউন্সিলর কণিকা সাহা, কাউন্সিলর রেকসোনা কালাম লিলি, কাউন্সিলর সাহিদা বেগম, কাউন্সিলর রহিমা আক্তার হেনা, কাউন্সিলর মনিরা আক্তার, এ্যাড. সুলতানা রহমান শিল্পী, পারভিন ইলিয়াছ, এ্যাড. এ কে এম শাহজাহান কচি, রনজিত কুমার ঘোষ, মো. শফিকুর রহমান পলাশ, অধ্যা. এ বি এম আদেল মুকুল, মীর বরকত আলী, এস এম আসাদুজ্জামান রাসেল, নূর জাহান রুমী, সমীর কৃষ্ণ হীরা, মোক্তার হোসেন, আলী আকবর খান, তোতা মিয়া ব্যাপারী, চ. ম. মজিবর রহমান, আব্দুল হাই পলাশ, বাবুল সরদার বাদল, সরদার আব্দুল হালিম, এ্যাড. শামীম মোশাররফ, আতাউর রহমান শিকদার রাজু, শেখ হাসান ইফতেখার চালু, মো. আযম খান, মো. ফয়েজুল ইসলাম টিটো, ওহিদুল ইসলাম পলাশ, মীর মো. লিটন, মো. সেলিম মুন্সি, মুন্সি সেলিমুজ্জামান, আব্দুল ওহাব, বাদশা হাওলাদার, জেসমিন সুলতানা শম্পা, সাবিহা ইসলাম আঙ্গুর, রেখা খানম, রেজওয়ানা প্রধান, মেহজাবিন খান, মামনুরা জাকির খুকুমনি, রোজী ইসলাম নদী, কবীর পাঠান, নাজনিন নাহার বিটটি, নাসরিন ইসলাম তন্দ্রা, আফরোজা জেসমিন বিথী, রওশনা আরা রীমা, নজিবুল ইসলাম নজিব, ইলিয়াছ হোসেন লাবু, মো. শহীদুল হাসান, মো. আশরাফ আলী হাওলাদার শিপন, জব্বার আলী হীরা, ঝলক বিশ্বাস, মাহমুদুর রহমান রাজেস, এম এ হাসান সবুজ, ওমর কামালসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।
আলোচনা সভা শেষে বঙ্গমাতা বেগম বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া পরিচালনা করেন হাফেজ আব্দুর রহীম ও মাওলানা রফিকুল ইসলাম।

বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সদর ও সোনাডাঙ্গা থানা মহিলা আ‘লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
খবর বিজ্ঞপ্তি
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মীনি এবং তাঁর রাজনৈতিক অনুপ্রেরণা, আওয়ামী রাজনীতির নেপথ্যে কুশীলব, প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার মাতা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সদর ও সোনাডাঙ্গা থানা মহিলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকার সোমবার বাদ আছর দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপিকা হোসনেয়ারা রুনু। সদর থানা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পারভিন ইলিয়াছের সভাপতিত্বে এবং সদর ও সোনাডাঙ্গা থানা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা যথাক্রমে নূরানী রহমান বিউটি ও নূর জাহান রুমীর পরিচালনায় এসময়ে উপস্থিত ছিলেন মুক্তি রায়, সুলতানা রহমান লিপি, আলেয়া জাহিদ, জেসমিন সুলতানা, লিভানা পারভিন, মামুন আরা জাকির, খুকুমনি, ফারহানা হক বাপি, রিনা চৌধুরী, মুক্তা হক, কামরুন নাহার কাজল, মুনজেলা লিমা, হাসিনা খাতুন, শাহানা ভানু, শাহিনুর, সবনম মুস্তারী বকুল, সুপ্তি হাসান, রেখা খানম, তামান্না ইসলাম, নাসরিন কাজি, হোসনেয়ারা ইকবাল, সাবিহা ইসলাম আঙ্গুরী, শবনম সাবা, দিপা বিশ্বাস, আফরোজা বেগম তন্নি, মরিয়ম, রেহানা পারভিন মনি, বাবলি, পিয়া, হিরা, বিউটি, রুনা জ্যোতি, শাহানা ইসলাম, মুনমুন, সুফিয়া বেগম, ইরানী বেগম, সুষমা সরকার, জয়াসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।
।।আজকের নগরী।।
পবিত্র মহররম উপলক্ষে মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ে আজ মঙ্গলবার বাদ মাগরিব আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত অনুষ্ঠানে মহানগর, থানা, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মী এবং নির্বাচিত দলীয় কাউন্সিলদের উপস্থিত থাকার জন্য বিশেষ আহ্বান জানিয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক এবং সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা।

যে কারণে একা স্কুলে যেতে ভয় পাচ্ছেন শিক্ষিকা
নড়াইল প্রতিনিধি ।।
নড়াইলের নড়াগাতি থানার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ওই স্কুলের এক সহকারী শিক্ষিকাকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে। এর প্রতিকার ও নিরাপত্তা চেয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী শিক্ষিকা।

এ ঘটনায় দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার। এদিকে একা স্কুলে যেতে ভয় পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন যৌন হেনস্তার শিকার ওই শিক্ষিকা!

জানা যায়, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একই বিদ্যালয়ের এক সহকারী শিক্ষিকাকে দীর্ঘদিন ধরে যৌন হয়রানি করে আসছেন। বিদ্যালয় চলাকালীন প্রধান শিক্ষক ওই শিক্ষিকাকে অকারণে তার কক্ষে ডেকে নিয়ে অশ্লীল কথা বলাসহ বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দিতেন।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার নজরুল ইসলামকে প্রধান করে দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অপর সদস্য হলেন আরেক সহকারী শিক্ষা অফিসার শুভঙ্কর মণ্ডল।

ভুক্তভোগী শিক্ষিকা বলেন, প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে আমার সঙ্গে খারাপ আচরণ করে আসছেন। বিভিন্ন সময় প্রধান শিক্ষক তার রুমে ডেকে নিয়ে আমার সঙ্গে কুরুচিপূর্ণ আচরণ ও যৌন হয়রানি করেন।

তিনি বলেন, গত ২৭ জুন টিফিনের (ক্লাস বিরতির সময়) সময় আমি একা স্কুলের অফিস কক্ষে বসেছিলাম। এমন সময় প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম আমার সামনে বসে হঠাৎ অশ্লীল কথা বলতে থাকেন। একপর্যায়ে তিনি আমার হাত ধরেন। এরপর আমি জোরাজুরি করে হাত ছাড়িয়ে অফিস কক্ষ থেকে বেরিয়ে বাইরে চলে যাই। তার (প্রধান শিক্ষকের) নিয়মিত যৌন হয়রানিতে অতিষ্ঠ হয়ে এ ঘটনায় শাস্তি দাবি করে প্রতিকার ও নিরাপত্তা চেয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। এখন আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। একা স্কুলে যেতেও ভয় লাগছে। তাই মাকে সঙ্গে নিয়ে স্কুলে যাচ্ছি।

ভুক্তভোগী ওই শিক্ষিকার মা বলেন, প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম বিভিন্ন সময় আমার মেয়েকে অনৈতিক প্রস্তাবসহ অশ্লীল কথাবার্তা বলে উত্ত্যক্ত করে আসছেন। এমনকি নানা অজুহাতে তাকে শারীরিকভাবেও যৌন হয়রানির চেষ্টা করে। এর প্রতিবাদ করলে তাকে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখায়। এভাবে বিভিন্ন আচরণে আমার মেয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। নিরাপত্তার স্বার্থে আমি আমার মেয়ের সঙ্গে স্কুলে যাচ্ছি।

এসব অভিযোগের বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সত্য নয়। আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে।

এ বিষয়ে কালিয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার স্বপন কুমার দাস সোমবার (৮ আগস্ট) যৌন হয়রানির অভিযোগ দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রধান শিক্ষক কর্তৃক ঘটনার বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগটি তদন্ত করার জন্য দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এরপর গঠিত কমিটি তদন্ত শেষে ইতোমধ্যে একটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। যেটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার নিমিত্তে ফরোয়ার্ড করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে।

পাইকগাছার ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত বিএনপির নেতাদের বাড়ি পরিদর্শনে উপজেলা বিএনপি
পাইকগাছা(খুলনা)প্রতিনিধি
গত বৃহস্পতিবার বিকেলে পাইকগাছার লতা ইউনিয়নের গদারডাঙ্গা এলাকার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া আকষ্মিক ঘূর্ণিঝড়ের কবলে একটি কাঁচা বসত-বাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।
এসময় ঘেরের পানি প্রচন্ড গতিতে ঘূর্ণায়মান অবস্থায় এক ঘের থেকে অন্য ঘেরের কয়েক ফুট উপর দিয়ে বয়ে যায়। ঘূর্ণিঝড়টি গদারডাঙ্গা গ্রামের গপ্ফার গাজীর বাড়ি অতিক্রমের সময় তার কাঁচা বসতঘরটি নিমিষেই গুড়িয়ে যায়। অন্যদের ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়।
আকষ্মিক ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ৩নং লতা ইউনিয়ন বিএনপি নেতা অহেদ আলী গাজীর ছেলে মোঃ গফফার আলী, জুলফিকার মোল্লার ছেলে জুয়েল মোল্লা, রহিম মোল্লার ছেলে মাসুদ মোল্লা।
বুধবার বিকালে এ সকল বিএনপির নেতাদের সার্বিক খোঁজ-খবর নিতে যান পাইকগাছা উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ সময় পাইকগাছা উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান এসএম এনামুল হকের নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন,সিনিয়র সহ-সভাপতি আসলাম পারভেজ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হোসেন, লতা বিএনপির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাহার, আবু মুসা, ইব্রাহীম গাজী, লিপটন সরদার, জাহিদুর রহমান লিটন, ছাত্রদলের সদস্য সচিব সাদ্দাম হোসেন, সেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম-আহ্বায়ক শামীম জোয়াদ্দার, বিশ্বজিৎ সাধু, বিল্লাল হোসেন, ওমর ফারুক মিঠু, জিয়াউর রহমান ও আমিনুল ইসলাম সহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সদর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৯২ তম জন্ম বার্ষিকী পালন
খবর বিজ্ঞপ্তি
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মা বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৯২ তম জন্ম বার্ষিকী পালন করেছে খুলনা সদর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগ। গতকাল সোমবার দুপুর ২ টায় রুপসা ট্রাফিক মোড়ে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের জন্ম বার্ষিকীতে দোয়া অনুষ্ঠান ও দুস্থদের মাঝে খাবার বিবতরণ করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এম এ নাসিমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এস এম আসাদুজ্জামান রাসেলের পরিচালনায় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, সদর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এ্যাড. সাইফুল ইসলাম, কাউন্সিলর ফকির মো. সাইফুল ইসলাম, ড. সাঈদুর রহমান, এ্যাড. এনামুল হক, ্ গোলাম মাওলা টিংকু, বুলবুল আহম্মেদ, মো. আশরাফুল আলম বাবু, মাহবুব মোর্শেদ লেমন, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, মো. কামরুজ্জামান ইমরান, মো. শফিকুল ইসলাম অভি, শেখ রায়হান উদ্দিন, , মো. শরিফুল ইসলাম মুন্না, তাইজুল হক তাজু, আসিফ সবুজ, মো. ইউসুফ আলী মন্টু, মো. মোজাহার হোসেন মোজো, তাপস রায় চৌধুরী, মো. আমিরুল ইসলাম বাবু, ফাহিদ হোসেন ঐশ্বর্য্য, শংকর কুন্ডু, ওমান, লিটন মাহমুদ, সরদার আসাদুল ইসলাম সানি, সোহানুর রহমান সোহাগ, মো. আকরাম হোসেন, রুপম তালুকদার, নবাব আহম্মেদ, বায়েজিদ হোসেন, মো. রবিউল ইসলাম প্রিন্স, মো. আনিচ শেখ, মো. রফিকুল ইসলাম রাসেল, মো. শওকত হোসেন, মো. মারুফ হোসেন, মারুফ চেীধুরী রিমন, রবিন ধর, মো. ইউসুফ আলী, মো. নাসির হুসাইন, নাসির মৃধা, মো, হানিফ শেখ, নাদিম, স জল, কবির হোসেন, মো. বাপ্পি, রামমোহন, জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, মো, মারুফ, জাকির হোসেন খোকা, মো. রাজিব , রফিক খান, আলাল হোসেন, মেহেদী হাসান, শাহজাহান শিকদার, ইজাজুল ইসলাম, সম্রাট হাওলাদার, মো. রাজ্জাক, মো. সোহেল শেখ বাপ্পি, জিম, জয় দত্তসহ দলীয় বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।


Post Views:
5



নিউজের উৎস by [সুন্দরবন]]

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Recent Posts

© 2022 sundarbon24.com|| All rights reserved.
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102