শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:১৩ অপরাহ্ন

তক্ষকসহ ৪ জন গ্রেফতার

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর, ২০২২

খুলনায় তক্ষকসহ চার জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে তিন জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। অপরজনকে দুই হাজার জরিমানা করা হয়েছে। সোমবার দিনগত রাতে রূপসা স্ট্যান্ডরোড মোল্লাবাড়িতে এ অভিযান চালানো হয়।

র‌্যাব ৬ পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ মোসতাক আহমদ এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, এ ঘটনায় সাজাপ্রাপ্তরা হচ্ছে– রূপসা স্ট্যান্ড রোড মোল্লা বাড়ি এলাকার রুস্তম আলীর ছেলে আরিফুল ইসলাম, সোনাডাঙ্গা সবুজবাগ এলাকার আশরাফ শেখের ছেলে ফারুক হোসেন বাপ্পী এবং খালিপুর চিত্রালী এলাকার সুলতানের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক। এ ছাড়া মিজান নামে একজনকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

র‌্যাব ৬-এর সহকারী পরিচালক লেফটেন্যান্ট আবুল কালাম আজাদ জানান, দীর্ঘদিন ধরে নগরীর রূপসা স্ট্যান্ডরোড এলাকায় কিছু ব্যক্তি তক্ষক কেনাবেচা করছে বলে তাদের কাছে সংবাদ আসে। সোমবার রাত ৮টার দিকে রূপসা স্ট্যান্ডরোড মোল্লাবাড়ি ঘিরে অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখান থেকে তারা তক্ষকটি উদ্ধার করেন।

তিনি আরও জানান, গ্রেফতার আরিফুল ইসলাম তক্ষক বিক্রির মধ্যস্থতাকারী। গহীন জঙ্গল থেকে সে তক্ষক সংগ্রহ করে এবং দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষের কাছে বিক্রি করে। সোমবার তক্ষকটি কেনার জন্য তিন ব্যক্তি মোল্লাবাড়িতে আসে।

সেখানে দরদাম করার সময় তাদের আটক করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আরিফুল ইসলাম, ফারুক হোসেন বাপ্পী ও আব্দুর রাজ্জাককে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। এ সময় আদালত মিজানকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করে তাকে ছেড়ে দেন।

খুলনা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অপ্রতিম কুমার চক্রবর্তী বলেন, ‘সাজাপ্রাপ্ত তিন জনকে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারদণ্ড দেওয়া হয়েছে। মিজান উৎসাহী হয়ে তাদের সঙ্গে এখানে এসেছিলেন। তার বিরুদ্ধে কোনও অপরাধ পাওয়া যায়নি। তাকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।’

উল্লেখ্য, গুজব প্রচলিত আছে ক্যানসারের ওষুধ তৈরিতে তক্ষক ব্যবহার হয়; তক্ষক ঘরে রাখলে সহসাই ধনী হওয়া যায়; এর মাথার ম্যাগনেট দাম কোটি টাকা; প্রতিবেশী দেশে এর ব্যাপক চাহিদা– এমন গুজবের ওপর ভর করে দেশজুড়ে সংঘবদ্ধ চক্র নির্বিচারে তক্ষক ধরছে। তারা গুজব ছড়িয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে তক্ষক নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টি করছে।

এর পর প্রতারণার মাধ্যমে তাদের হাতে কথিত ‘মহামূল্যবান’ তক্ষক বা এর কঙ্কাল গছিয়ে দিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। একটি ১০-১২ ইঞ্চি তক্ষকের দাম ধরা হচ্ছে ৫০ লাখ টাকা। এই চক্রের ফাঁদে পা দিয়ে সর্বস্ব খুইয়েছেন অনেকেই।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Recent Posts

© 2022 sundarbon24.com|| All rights reserved.
Designer:Shimul Hossain
themesba-lates1749691102